বিদেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

আকাশ লাল, ধুলোর ঝড়!‌ দাবানলের প্রভাবে যেন এগিয়ে আসছে ধ্বংসের দিন

আকাশ লাল, ধুলোর ঝড়!‌ দাবানলের প্রভাবে যেন এগিয়ে আসছে ধ্বংসের দিন
Image Credits: Twitter/@OdorousObject/@PkBohan.

এর আগেও ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গলে দাবানল তৈরি হয়েছিল। কিন্তু এবারের মতো সেটা বিশাল আকার ধারণ করেনি।

  • Share this:

#‌ক্যালিফোর্নিয়া:‌ বুধবার আমেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া আর সান ফ্রান্সিসকো শহরের আকাশের দিকে তাকালে যে কারওর মনে পড়ে যাবে হলিউডি কোনও ছবির দৃশ্য। যেখানে পৃথিবী ধ্বংসের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। যেন সেই ধ্বংসের মুহূর্ত ঘনিয়ে আসছে আকাশ লাল করে। কোথাও কোথাও দিনেও যেন রাতের অন্ধকার নেমেছে। আকাশ কালো করে নেমে আসছে ছাই, বরফের মতো। আর এসবই হচ্ছে ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গলে লেগে যাওয়া বিশেষ দাবানলের প্রভাবে। ২০২০ সাল যেন আরও অভিশপ্ত সাল হয়ে উঠছে আমেরিকার ক্ষেত্রে। তাই মার্কিন এই প্রদেশগুলির বাসিন্দাদের ট্যুইটার, ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ছে একের পর এক ছবি, ভিডিও। যেখানে দেখা যাচ্ছে কীভাবে বদলে গিয়েছে এই শহরগুলির চেহারা। দূষণের মাত্রা বাড়ছে হু হু করে। একজন লিখেছেন, ‘‌এমন রক্ত রঙের আকাশ দেখেও আমরা যদি পরিবেশ নিয়ে ভাবতে এগিয়ে না আসি, তাহলে আমাদের দ্রুত বিনাশ নিশ্চিত।’‌ পড়ছে শারীরিক প্রভাবও। অনেকেরই দেখতে সমস্যা হচ্ছে, শ্বাসকষ্ট হচ্ছে এই পোড়া ছাইয়ের দাপট ও গন্ধে। তাই বুধবারের সকাল যেন এক অভিশপ্ত সকাল হয়ে এসেছে মার্কিন মানুষদের কাছে।

এর আগেও ক্যালিফোর্নিয়ার জঙ্গলে দাবানল তৈরি হয়েছিল। কিন্তু এবারের মতো সেটা বিশাল আকার ধারণ করেনি। সূর্য ঢাকা পড়েছে এই ছাইয়ের ঘন আস্তরণের ফলে। সেই কারণে গ্রীষ্মের সময়েও সান ফ্রানসিসকোর আবহাওয়া হয়ে গিয়েছে অত্যন্ত ঠাণ্ডা। জাতীয় আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, একাধিক স্তরে ধোঁয়া ও ছাইয়ের মিশ্রন ঢেকে ফেলেছে প্রদেশদুটিকে। সেই কারণে অনেক কিছু হঠাৎ বদলে গিয়েছে। ঠাণ্ডা পড়তে শুরু করেছে অনেকটা। প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিস্থিতির বর্ননা করতে গিয়ে বলা হয়েছে, এক অভূতপূর্ব দাবানলের মুখে পড়েছে দেশ। সেই কারণে ক্যালিফোর্নিয়া, ওরিগাও, ওয়াশিংটন, সান ফ্রান্সিসকোর মতো শহরও পড়েছে এক চ্যালেঞ্জের সামনে। দাবানলের লেলিহান শিখা, তার সঙ্গে তীব্র গতির হাওয়া এই দাবানলের প্রভাব এনে ফেলেছে একেবারে শহরের মধ্যেও। পশ্চিম ইউরোপে এক আশ্চর্য পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বহু মানুষ এর ফলে ঘরছাড়া হয়েছেন। শেষ কয়েকদিনে দাবানলের কারণে এখনও পর্যন্ত ৮ জনের মৃত্যুর খবর এসেছে। অসংখ্য বাসিন্দাকে হেলিকপ্টারে করে উদ্ধার করা হয়েছে। অনেকেই কেবলমাত্র এই ধুলো ঝড়ের প্রভাবেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে খবর। কীভাবে এই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যায়, এখন সেটা নিয়েই চিন্তার ভাঁজ প্রশাসনের কপালে।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: September 11, 2020, 8:25 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर