• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • জিনিস দিতে এসে তুমুল নাচ Amazon-এর ডেলিভারি পার্সনের! ভাইরাল ভিডিও!

জিনিস দিতে এসে তুমুল নাচ Amazon-এর ডেলিভারি পার্সনের! ভাইরাল ভিডিও!

ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে রীতিমতো দক্ষ স্ট্রিট ডান্সারের মতো তিনি হাতে পার্সেলটি নিয়ে নাচতে নাচতে পৌঁছে গিয়েছেন দরজার কাছে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে রীতিমতো দক্ষ স্ট্রিট ডান্সারের মতো তিনি হাতে পার্সেলটি নিয়ে নাচতে নাচতে পৌঁছে গিয়েছেন দরজার কাছে।

ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে রীতিমতো দক্ষ স্ট্রিট ডান্সারের মতো তিনি হাতে পার্সেলটি নিয়ে নাচতে নাচতে পৌঁছে গিয়েছেন দরজার কাছে।

  • Share this:

#নিউ ইয়র্ক: এমনিতে Amazon-এর ডেলিভারি পার্সনদের নিয়ে ক্রেতাদের অভিযোগের অন্ত থাকে না। মাঝে মাঝেই তাঁদের দুর্ব্যবহারের ঘটনা ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। কেউ অভিযোগ করেন যে ডেলিভারি পার্সন খুচরো নিয়ে তাঁদের সঙ্গে সহযোগিতা করছেন না, কেউ বা আবার জিনিস না দিয়েই ডেলিভারি মার্ক করে দেওয়ার স্বভাব নিয়ে সমালোচনায় মুখর হয়ে ওঠেন! এ সবের মাঝেই যখন নিউ ইয়র্কের এক Amazon ডেলিভারি পার্সনের ভিডিও ভাইরাল হল সদর্থক কারণে, সোশ্যাল মিডিয়া উপচে পড়ল তাঁর প্রশংসায়।

খবর বলছে যে ওই ডেলিভারি পার্সনের নাম ইব্রাহিম কম্ব। তাঁর কথা সবার সামনে তুলে ধরেছেন ক্লদিয়াস নামের এক ট্যুইটারেতি। জানা গিয়েছে যে ইব্রাহিম তাঁর বাড়িতে তাঁর মায়ের একটা জিনিস ডেলিভারি করতে এসেছিলেন। বাড়ির সামনে রাখা সিসিটিভি ক্যামেরায় এর পর ধরা পড়েছে তাঁর প্রাণবন্ত স্বভাব। ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে রীতিমতো দক্ষ স্ট্রিট ডান্সারের মতো তিনি হাতে পার্সেলটি নিয়ে নাচতে নাচতে পৌঁছে গিয়েছেন দরজার কাছে। জিনিসটি যথাস্থানে রেখে দিয়ে তার পর আবার একই ভাবে নাচতে শুরু করেছেন। দু'-একটা ডান্স মুভের পর তাঁকে চলে যেতে দেখা গিয়েছে ভিডিওয়!

এ রকম কাণ্ড দেখে স্বাভাবিক ভাবেই আর উত্তেজনা ধরে রাখতে পারেননি পেশায় সুরশিল্পী ক্লদিয়াস। তিনি ইব্রাহিমের ওই ডান্স মুভের সঙ্গে সুর বসিয়ে সেই ভিডিও ফুটেজ আপলোড করে দিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবং জানতে চেয়েছেন- এই ব্যক্তিটি আদতে কে! পাশাপাশি, এটাও লিখতে ভোলেননি ক্লদিয়াস যে এ হেন দক্ষ কর্মচারীকে যে কোনও সংস্থারই খ্রিসমাস বোনাস দেওয়া উচিৎ!

পোস্টের সঙ্গে সঙ্গেই প্রায় ক্লদিয়াসের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। জনৈক ট্যুইটারেতি জানান যে ইব্রাহিমকে তিনিও চেনেন, এ রকম ভাবে নাচতেই নাচতেই বাড়ি বাড়ি জিনিস ডেলিভারি করে থাকেন তিনি। অন্য দিকে আরেক ট্যুইটারেতির বক্তব্য- এ হেন প্রাণবন্ত স্বভাব প্রশংসার যোগ্য! তাঁর মতে সংস্থা যে ভাবে ডেলিভারি পার্সনদের খাটিয়ে মারে, তার মধ্যে এমন সদর্থক মনোভাব বজায় রাখা প্রায় অসম্ভব হয়ে ওঠে! এ ভাবেই ট্যুইট, রি-ট্যুইটের জেরে এক সময়ে ওই ডেলিভারি পার্সনের পরিচয়টি প্রকাশ হয়, যার জন্য সবাইকে ধন্যবাদও জানান ক্লদিয়াস!

Published by:Piya Banerjee
First published: