কথা রাখলেন বিডেন, পাঁচ লাখ ভারতীয়র স্বপ্নপূরণ করা বিল পাশ মার্কিন সংসদে

কথা রাখলেন বিডেন, পাঁচ লাখ ভারতীয়র স্বপ্নপূরণ করা বিল পাশ মার্কিন সংসদে

ক্ষমতায় আসার আগে জো বিডেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি অন্য দেশের মানুষদের আমেরিকার নাগরিকত্ব দেওয়ার ব্যাপারে সুবিধা করে দেবেন।

ক্ষমতায় আসার আগে জো বিডেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি অন্য দেশের মানুষদের আমেরিকার নাগরিকত্ব দেওয়ার ব্যাপারে সুবিধা করে দেবেন।

  • Share this:
    #ওয়াশিংটন: মার্কিন সংসদে এমন এক বিল পাস হয়েছে যা পাঁচ লাখের বেশি ভারতীয়র স্বপ্ন পূরণ করতে পারে। এই বিল পাস হওয়ার ফলে আমেরিকায় বসবাসকারী পাঁচ লাখের বেশি ভারতীয়র লাভ হবে। এদিন মার্কিন সংসদের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটি-এ আমেরিকান ড্রিম এন্ড প্রমিস অ্যাক্ট নামের একটি বিল পাস হয়েছে। ছোট বয়স থেকে অনেকেই আমেরিকায় অবৈধভাবে বসবাস করেন। বহু বছর ধরেই তাঁরা মার্কিন নাগরিক হওয়ার চেষ্টা করছেন। কিন্তু সেটা কোনওভাবেই সম্ভব হচ্ছে না। অন্য দেশের বহু মানুষের সঙ্গে ভারতীয়রাও রয়েছেন এই দলে। এবার তাঁদের মার্কিন নাগরিকত্ব পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা হবে। ক্ষমতায় আসার আগে জো বিডেন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তিনি অন্য দেশের মানুষদের আমেরিকার নাগরিকত্ব দেওয়ার ব্যাপারে সুবিধা করে দেবেন। কথা রাখলেন বিডেন। বহু সাংসদের মতানৈক্য সত্বেও সেই বিল পাস হয়ে সিনেটে পৌঁছেছে। সেখানে পাস হলেই এই বিল আইনে বদলে যাবে। আমেরিকায় বসবাসকারী অনেককেই বহু বছর ধরে আইনি নজরদারির মধ্যে থাকতে হয়। এমনকী মার্কিন প্রশাসন কথায় কথায় তাঁদের নিজেদের দেশে পাঠিয়ে দেওয়ার হুমকিও দেয়। এই বিল পাস হওয়ার ফলে সেসব মানুষদের আমেরিকার নাগরিকত্ব পেতে অনেকটাই সুবিধা হবে। ৫ লাখ ভারতীয়সহ মোট এক কোটি ১০ লাখ প্রবাসী আমেরিকার নাগরিকত্ব পেতে পারেন। বলাবাহুল্য, তাঁদের কারও কাছেই কোনও নাগরিকত্বের প্রমাণপত্র নেই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিডেন এই বিলের সমর্থন করেছেন। তিনি দাবি করেছেন, আমেরিকার সার্বিক বিকাশের ক্ষেত্রে এই বিল পাস হওয়া জরুরি। বিডেন বলেছেন, অনেকেই আমেরিকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করার স্বপ্ন দেখেন। যদিও তারা এদেশের নাগরিক নন। তবে তাদের মধ্যে অনেকেই ছোটবেলা থেকে আমেরিকায় রয়েছেন। ফলে তাদের এবার স্বপ্ন পূরণ হবে। এর আগে ২০২০ সালের জুন মাসে একটি ঘোষণার মাধ্যমে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একাধিক ভিসা প্রক্রিয়া আটকে দিয়েছিলেন। ফলে অন্য আইটি প্রফেশনালদের সব থেকে বেশি অসুবিধার মধ্যে পড়তে হয়েছিল।
    Published by:Suman Majumder
    First published: