Home /News /international /
সিরিয়ায় একযোগে হামলা চালাল আমেরিকা, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড

সিরিয়ায় একযোগে হামলা চালাল আমেরিকা, ফ্রান্স, ইংল্যান্ড

Explosion on the outskirts of Damascus after Western strikes reportedly hit Syrian military bases . Photo : Instagram page of Arturas Kerelis

Explosion on the outskirts of Damascus after Western strikes reportedly hit Syrian military bases . Photo : Instagram page of Arturas Kerelis

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: আসাদের রাসায়নিক হামলার বিরুদ্ধে আমেরিকা অন্তত চুপ করে বসে থাকবে না এটা প্রায় আন্দাজ করাই যাচ্ছিল ৷ শুক্রবার রাতে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটল ৷ সিরিয়ায় একযোগে বিমান হামলা চালাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ফ্রান্স ৷ অন্যদিকে,  সিরিয়ার বিমান বাহিনী এই হামলার প্রতিরোধ করছে ৷ শুক্রবার রাতে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে সিরিয়ায় আসাদের ঘাঁটিতে আক্রমণের নির্দেশ দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

    ট্রাম্পের নির্দেশ পেতেই ঝাঁকে ঝাঁকে মার্কিন যুদ্ধবিমান উড়ে গেল সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদের মূল সেনাঘাঁটির দিকে। হামলার উদ্দেশ্য, আসাদের রাসায়নিক অস্ত্রাগারগুলি ধ্বংস করে দেওয়া। পালটা আমেরিকাকে জবাব দিচ্ছে রুশ সাহায্যপ্রাপ্ত সিরিয়ার এলিট মিলিটারি ফোর্স রিপাবলিকান গার্ডের ফোর্থ ডিভিশন।

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যতদিন না সিরিয়া ‘রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার’ বন্ধ করছে, ততদিন হামলা চলবে ৷ এর আগে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, সিরিয়ার ডুমায় রাসায়নিক হামলার অভিযোগটি বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলার বিষয়ে কী করা হবে সে বিষয়ে খুব শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সেই ঘোষণার মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরই বিমান হামলা শুরু করা হল। ট্রাম্প যখন বক্তৃতা দিচ্ছিলেন, তখন অন্তত ৬টি জোরালো বিস্ফোরণ শোনা গিয়েছে সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে। দূর থেকে দেখা গিয়েছে ধোঁয়া। জানা গিয়েছে, হামলা চলেছে দামাস্কাসের বারজা জেলায়, এখানেই দেশের সবথেকে বড় বৈজ্ঞানিক গবেষণাগার রয়েছে। সিরিয়া দাবি করেছে, জবাব দিচ্ছে তারাও, তাদের আকাশে মার্কিন, ব্রিটিশ ও ফরাসি বিমান যাতে না ঢুকতে পারে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এদিকে দেশটিতে রাসায়নিক হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সিরিয়া প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ। এছাড়া রাসায়নিক আক্রমণের অভিযোগ পশ্চিমাদের ‘প্ররোচনামূলক’ আচরণ বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

    First published:

    Tags: Britain, Donald Trump, France, Russia, Syria, Syria Attack, US

    পরবর্তী খবর