কাজ থেকে ছুটি পেতে অজ্ঞানের ভান, একদিনের ছুটির সঙ্গে চকোলেট আর এনার্জি ড্রিঙ্কও আদায় করলেন কর্মী, ভিডিও ভাইরাল!

Credits: Twitter/ elpedro

নেটিজেনরা এই ভিডিও দেখে হাসি থামাতে পারেনি এবং তাঁরাও তাঁদের নানা অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছেন।

  • Share this:

#লন্ডন: কাজ থেকে মুক্তি পেতে ভণিতা! আর কাজের সময়ে অসুস্থ হওয়ার ভান করার সেই ভিডিও এখন নেট মাধ্যমে ভাইরাল। একজন Twitter ইউজার সম্প্রতি কাজ থেকে ছুটি পাওয়ার জন্য এক ব্যক্তি অজ্ঞান হওয়ার ভান করেছেন, এমন একটি ভিডিও তাঁর Twitter হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন। যে ভিডিও শেয়ার হতেই নেটমাধ্যমে তুমুল সাড়া ফেলেছে। এই ভিডিওটি শেয়ার করে এল পেদ্রো (El Pedro) লিখেছেন এটা খুব সহজ উপায় কাজ থেকে ছুটি পাওয়ার। এমন ঘটনা তিনিও ঘটিয়েছেন, যখন তাঁর ১৮ বছর ছিল আর সেই দিনে তিনি একটি বক্সিং প্রতিযোগিতায় ভাগ নিয়েছিলেন। সেই কারণে তিনি কাজে ছুটি নিতে চেয়েছিলেন। নেট নাগরিকরা এই ভিডিও দেখে হাসি থামাতে পারেনি এবং তাঁরাও তাঁদের নানা অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছেন।

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন---

https://twitter.com/ElpedroThe2nd/status/1400552995738226689

৪ জুনে পোস্ট হওয়া এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে এক ব্রিটেনের (UK) বাসিন্দা যিনি একটি সুপারমার্কেটে কাজ করেন, তিনি স্টোরে আসা এক মহিলা গ্রাহকের নেওয়া জিনিসের বিল করবার জন্য কম্পিউটারের সামনে আসেন। এর পর এই মহিলা তাঁর দিকে নেওয়া জিনিসগুলি এগিয়ে দেন। তখন থেকেই লক্ষ্য করা যায় স্টোরের ওই কর্মচারী শারীরিক অস্বস্তি প্রদর্শন করার চেষ্টায় রয়েছেন। সামনে দাঁড়ানো ওই মহিলা তেমন ভাবে বিষয়টি লক্ষ্য করছিলেন না, কিন্তু কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ওই ব্যক্তি মেঝেতে লুটিয়ে পড়ার ভান করেন, সামনে দাঁড়ানো ওই মহিলাও চমকে ওঠেন। এই ভিডিও যিনি শেয়ার করেছেন তিনি নিশ্চিত করে লিখেছেন এই ঘটনা ঘটার সময় স্টোর ম্যনেজার সামনেই ছিলেন। তিনি ওই কর্মচারীকে তখনই ছুটি দিয়ে দেন এবং একটি এনার্জি ড্রিঙ্ক ও চকোলেট দেওয়া হয় ওই ব্যক্তিকে। পরে জানতে পারা যায় অসলে তিনি অজ্ঞান হয়ে যাননি। তিনি অজ্ঞান হওয়ার নাটক করেছিলেন। তবে সুপার মার্কেটের মালিক পক্ষ ওই ব্যক্তিকে চাকরিতে বহাল রেখেছেন। এই হাস্যকর ভিডিও সামনে আসতেই নানা ধরনের মন্তব্য করেছেন নেট নাগরিকরা।

এই ভিডিও ১০ লক্ষের বেশি মানুষ দেখেছে। ৮২ হাজারের বেশি মানুষ পছন্দ করেছেন। কমেন্ট সেকশনে প্রতিক্রিয়ার বন্যা বয়ে গিয়েছে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: