১০ ফুট গভীর নোংরার স্তূপ থেকে উদ্ধার হারিয়ে যাওয়া বিয়ের আংটি!

১০ ফুট গভীর নোংরার স্তূপ থেকে উদ্ধার হারিয়ে যাওয়া বিয়ের আংটি!
জেমস ও লারা, পাশে সুয়েজ কর্মীরা

ময়লা জমে উঁচু হয়ে গিয়েছিল প্রায় ১০ ফুট মতো। কী ভাবে তিনি সেখানে খুঁজে পাবেন তাঁর সাধের ভালোবাসার আংটি? চিন্তায় কালঘাম ছুটছিল জেমসের। যদিও মুহূর্তে বিষাদ কেটে গিয়েছে তাঁর। সৌজন্যে সাইট কর্মীদের সাহায্য।

  • Share this:

    #লন্ডন: ভালোবাসার দিনেই এমন কাণ্ড ঘটায় অত্যন্ত চিন্তায় পড়েছিলেন জেমস রস নামে এক ব্যক্তি। ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে তাঁর স্ত্রী লারার দেওয়া বিয়ের আংটি আঙুল থেকে খুলে পড়ে গিয়েছিল বাড়ির নোংরা ফেলার বিনে। কার্ডবোর্ড রিসাইকেলের জন্য ডাস্টবিনে ফেলতে গিয়ে আচমকাই খুলে গিয়েছিল আংটিটি। সেখানে ময়লা জমে উঁচু হয়ে গিয়েছিল প্রায় ১০ ফুট মতো। কী ভাবে তিনি সেখানে খুঁজে পাবেন তাঁর সাধের ভালোবাসার আংটি? চিন্তায় কালঘাম ছুটছিল জেমসের। যদিও মুহূর্তে বিষাদ কেটে গিয়েছে তাঁর। সৌজন্যে সাইট কর্মীদের সাহায্য।

    দুর্ঘটনার পরই জেমস সাইট অপারেটিভে এই ঘটনার কথা জানিয়েছিলেন। কর্মীরা দ্রুত সেখানে গিয়ে তল্লাশি শুরু করেন। প্রায় ২০ মিনিট ধরে খোঁজাখুঁজির পর এক কর্মী নোংরা থেকে টেনে বের করতে সক্ষম হন আংটিটি। ইউকে-র সুয়েজ রিসাইকেল অ্যান্ড রিকভারিতে কর্মরত এই কর্মীরা। নর্থ টিনসাইড কাউন্সিলের তরফে ফেসবুকে এই ঘটনার কথা জানিয়ে পোস্ট করা হয়। তার পরেই প্রকাশ্যে আসে ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে এমন দুর্ঘটনার কথা।


    A couple from Cullercoats have praised SUEZ UK staff at the HWRC in North Shields, after they recovered the man's...Posted by North Tyneside Council on Thursday, February 18, 2021

    অপ্রত্যাশিত ভাবে নিজের বিয়ের আংটি খুঁজে পেয়ে উচ্ছ্বসিত জেমস রস। তিনিও ওই কর্মীদের প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পোস্টে। তাঁর কথায়, 'খুব ঠান্ডা ছিল সেই সময়। ছোট একটা ফাঁক দিয়ে নোংরা ফেলার কন্টেনারে কার্ডবোর্ডগুলি ফেলছিলাম। আচমকাই আঙুল থেকে আংটিটা খুলে পড়ে যায় সেই বিনে। ভাবছিলাম কী হয়ে গেল এটা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব ভালো হল'।

    জেমস জানিয়েছেন, আংটিটা ফিরে পাওয়ার আশা প্রায় ছেড়েই দিয়েছিলেন তিনি। তবে কর্মীদের এমন অদম্য প্রচেষ্টাই যেন প্রাণ ফিরে পেয়েছেন তিনি। নোংরার কথা তোয়াক্কা না করে যেভাবে এক ব্যক্তির ভালোবাসার জিনিসটি খুঁজে বের করা হয়েছে তাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন সকলেই। নর্থ টিনসাইডের মেয়র নর্মা রেডফার্ন সিবিই-ও এই ঘটনাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। তিনি কর্মীদের কাজে গর্বিত বলে মন্তব্য করেছেন।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    লেটেস্ট খবর