' কুকুর ছানা ভেবেই পুষেছিলাম, বুঝিনি ভল্লুক'... গ্রেফতার জনপ্রিয় গায়িকা

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jun 15, 2019 10:12 AM IST
' কুকুর ছানা ভেবেই পুষেছিলাম, বুঝিনি ভল্লুক'... গ্রেফতার জনপ্রিয় গায়িকা
representative image
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jun 15, 2019 10:12 AM IST

#মালয়েশিয়া: বাড়িতে ভল্লুক পুষে হাতে হাতকড়া পরলেন জনপ্রিয় গায়িকা। যদিও তাঁর দাবি, তিনি বোঝেননি ভল্লুক, কুকুর ভেবেই পুষেছিলেন। বাড়িতে বিরল বন্যপ্রাণী রাখার আপরাধে গ্রেফতার মালয়েশিয়ার বিখ্যাত গায়িকা সোফিয়া ইয়াশিন। সোফিয়া অবশ্য জানান, বেশ কিছুদিন আগে প্রাণীটিকে রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়েছিলেন। বাড়িতে নিয়ে এসেছিলেন সেবা শুশ্রুষা করে সুস্থ করে তোলার জন্য। ২৭ বছর বয়সী গায়িকার ভাষায়, '' তখন রাত। রাস্তার ধারে ভল্লুকের বাচ্চাটিকে দেখতে পাই। খুবই দুর্বল ছিল। আমার মায়া হয়। কুকুর ছানা ভেবেই বাড়ি নিয়ে এসেছিলাম।''

তিনি এও জানান, আইন ভাঙার বা অমান্য করার কোনও উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না। তিনি শুধু পশুটিকে সুস্থ করতে চেয়েছিলেন এবং না বুঝেই কুকুর ছানা ভেবে ভল্লুক শাবককে বড়ি নিয়ে এসেছিলেন। নামকরণ করেছিলেন ব্রুনো। ভেবেছিলেন, সুস্থ হয়ে গেলে চিড়িয়াখানায় দিয়ে আসবেন।

শুক্রবার, মালয়েশিয়ার বদফতরের আধিকারিকরা গায়িকার কোয়ালালামপুরের বাড়িতে হানা দেন। একসঙ্গে অত লোককে দেখে ভয় পেয়ে যায় ব্রুনো। জানলা দিয়ে মুখ বের করে প্রাণপনে ডাকতে থাকে। সেইসময়ই স্থানীয় এক বাসিন্দা ভল্লুক শাবকের ভিডিও শ্যুট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। মুহূর্তে ভাইরাল! এরপরই বয়ে যায় বিতর্কের ঝড়। অনেকেরই দাবি, ভল্লুকটিকে পরবর্তী কালে চড়া দামে বিক্রি করার মতলব এঁটেছিলেন গায়িকা। যদিও তিনি এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন।

দেখুন সেই ভিডিও--

First published: 10:12:52 AM Jun 15, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर