এমনও সম্ভব!‌ লকডাউন ছাড়াই এই দেশ হারিয়েছে করোনা ভাইরাসকে

নতুন করে করোনা আক্রান্তের খবর মিলছে না৷ এই পরিস্থিতিতে মাস্ক না পরেই বাইরে বেরনোর ক্ষেত্রে ছাড়পত্র দিল বেজিংয়ের স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্তৃপক্ষ৷ Photo- Reuters

রেস্তোরাঁ, স্যালোঁ, সবই খোলা ছিল এই দেশে। সাধারণ মানুষ যেখানে খুশি যাতায়াত করছিলেন করোনা সংক্রমণের দিনগুলির মধ্যেও।

  • Share this:

    #‌টোকিও:‌ জাপান। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের খবর আসার পর থেকে একেবারে সুস্থ হয়ে ওঠার মধ্যে অনেকগুলো দিন হয়ত কেটে গিয়েছে। আর এই মাঝের এতগুলো দিন সহজেই কাটিয়ে দিয়েছে জাপান। কোনওরকম লকডাউন ছাড়াই হারিয়ে দিয়েছে করোনা ভাইরাস সংক্রমণকে। আর তাই গোটা বিশ্বের কাছে এই দেশ যেন এক উদাহরণ হয়ে উঠছে।

    রেস্তোরাঁ, স্যালোঁ, সবই খোলা ছিল এই দেশে। সাধারণ মানুষ যেখানে খুশি যাতায়াত করছিলেন করোনা সংক্রমণের দিনগুলির মধ্যেও। কেউ তাঁদের পথ আটকায়নি। সরকার দেশের নাগরিকরদের সবাইকে নজরদারি করেছেন এমনও নয়। তবু ভাইরাসের সংক্রমণ কমেছে। জাপানে করোনায় সংক্রমিত হয়ে মৃতের সংখ্যা এক হাজারেরও কম। অন্যদিকে, এই দেশে পরীক্ষাও হয়েছে মোট জনসংখ্যার মাত্র ০.‌২ শতাংশের। যা অন্য অনেক দেশের তুলনায় কম। কিন্তু মৃত্যুও হয়নি মানুষের। তাই একে সাফল্যের একদিক হিসাবেই তুলে ধরছে জাপান সরকার।

    কী করে হল এমন?‌ মনে করা হচ্ছে, জাপান জোর দিয়েছে কন্ট্যাক্ট ট্রেসিংয়ের ওপর। একজন আক্রান্ত ধরা পড়লেই তাঁর সংস্পর্শে এসেছেন এমন সবাইকে আগে চিহ্নিত করেছে প্রশাসন। পাশাপাশি, জাপানের মানুষেরা অন্য অনেক দেশের থেকে স্বাস্থ্য সচেতন। তাঁরা আগাগোড়া সংক্রমণ রুখতে নির্দেশনামা মেনে চলেছেন। সেই সব কারণেই জাপানে সংক্রমণের পরিমাণ কমেছে। শেষে করোনা মুক্ত হয়েছে দেশ। শোনা যাচ্ছে, শেষ দফার যে কয়েকটি কন্টেইনমেন্ট জোন সে দেশে ছিল, আগামী সোমবার সেগুলিও মুক্ত করে দেবে জাপান। পুরোপুরি মুক্তি পাবে এই দেশ।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: