corona virus btn
corona virus btn
Loading

সর্বনাশ! বিদায় ঘণ্টা বেজে গেল পৃথিবীর সবচেয়ে বড় হিমশৈলর

সর্বনাশ! বিদায় ঘণ্টা বেজে গেল পৃথিবীর সবচেয়ে বড় হিমশৈলর
আন্টার্রটিকার এই এ-৬৮ হিমবাহ গলতে শুরু করেছে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন ওজন স্তর গলে যাওয়া, বিশ্ব উষ্ণায়ন ইত্যাদির কারণে এই গতিতে মেরুবরফ গললে ভয়াবহ বিপদ পৃথিবীর।

  • Share this:

#আন্টার্কটিকা: মৃত্যু হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় হিমশৈলের। ইওরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির তোলা সাম্প্রতিকতম ছবি সেই জল্পনাতেই শিলমোহর দিল।

বৃহস্পতিবার ইওপিয়ান স্পেস এজেন্সির তরফে বেহমথবার্গের এ-৬৮ নামক চূড়ার একটি ছবি শেয়ার করা হয়। তাতে দেখা যায়, এই দৈত্যাকার হিমবাহটির ৬৭.৫ বর্গমাইল (১৭৫ বর্গকিলোমিটার) আন্টার্টিকার উষ্ণজলে ধুয়ে গিয়েছে। এই হিমবাহটি একসময়ে আয়তনে ২৩০০ স্কোয়ামাইল ছিল। পাঁচটি নিউইয়র্ক শহরের থেকেও বড় ছিল এর আয়তন। এখন মেরেকেটে ২০০০ বর্গমাইল টিকে আছে। কিন্তু আন্টার্কটিকার উষ্ণায়ন প্রতিদিন গলিয়ে দিচ্ছে এই বরফশৈলকে। ডেকে আনছে মৃত্যু।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গ্লেসিয়ার বিশেষজ্ঞ আড্রিয়ান ল্যাকম্যান জানাচ্ছেন, "এই ঘটনায় আমি ভেঙে পড়েছি। ২০১৭ সালের জুলাই মাসেই ভাঙণ শুরু হয় এ-৬৮-এ। এখন তা মৃত্যুর দিকে এগোচ্ছে। হয়তো আর কয়েক বছর আমাদের মধ্যে এই হিমশৈলের ভাঙা অংশটা থাকবে। তারপর আর থাকবে না।"

বিজ্ঞানীরা বলছেন ওজন স্তর গলে যাওয়া, বিশ্ব উষ্ণায়ন ইত্যাদির কারণে এই গতিতে মেরুবরফ গললে ভয়াবহ বিপদ পৃথিবীর। বন্যায় ভেসে যাবে বহুদেশ। বদলে যাবে ঋতুচক্র , জলবায়ু। সেই বদলানো পরিস্থিতির সঙ্গে কতটা লড়াই করতে পারবে মানুষ, তা নিয়ে সন্দিহান বিশেষজ্ঞরা।

Published by: Arka Deb
First published: April 25, 2020, 11:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर