পর্যটন কি ফিরবে পুরনো ফর্মে? জেনে নিন থাইল্যান্ডের হাল-হকিকত

গত অক্টোবর মাসে, দীর্ঘ ৬ মাসে প্রথম, থাইল্যান্ডেও পর্যটন শিল্প বেশ মাথা তুলে দাঁড়ায়।

গত অক্টোবর মাসে, দীর্ঘ ৬ মাসে প্রথম, থাইল্যান্ডেও পর্যটন শিল্প বেশ মাথা তুলে দাঁড়ায়।

  • Share this:

    করোনার জেরে গোটা বছরটাই প্রায় লকডাউন। বছর ঘুরতে চলল ঘরে বসেই। স্বাভাবিকভাবেই ট্রাভেল ইন্ড্রাস্টি হয়ে পড়েছে বিধ্বস্ত। তবে লকডাউন তুলে নেওয়ার পর, সাহস করে সকলে বেরিয়ে পড়ছেন ইতিউতি। আর তাতে কিছুটা স্বস্তি মিলেছে পর্যটন শিল্পের পেশায় যুক্ত সকলের মনেই। মালদ্বীপ, গোয়া-র মতো জায়গায় পুনরায় শুরু হয়েছে লোকসমাগম।

    এদিকে গত অক্টোবর মাসে, দীর্ঘ ৬ মাসে প্রথম, থাইল্যান্ডেও পর্যটন শিল্প বেশ মাথা তুলে দাঁড়ায়। খবর পাওয়া গিয়েছে, এদেশে ১০০০-এরও বেশি বিদেশি পর্যটক এসেছেন ওই সময়। থাইল্যান্ডের পর্যটন মন্ত্রকের দাবি, বেশির ভাগ পর্যটক লম্বা সময়ের জন্য ট্যুরিস্ট ভিসা নিয়ে এসেছেন ।

    করোনার সংক্রমণের আগে, প্রতি অক্টোবর মাসে প্রায় ৩.০৭ মিলিয়ন বিদেশি পর্যটকের আতিথেয়তা করত থাইল্যান্ড। মহামারির প্রকোপে, গত মার্চ মাস থেকে এত পর্যটক তো দূর অস্ত, প্রায় বন্ধ হতে বসেছিল পর্যটন শিল্প। সময়ের সঙ্গে, একটু একটু আশার আলো দেখা দিতে শুরু করেছে। থাইল্যান্ড কিংডম চেষ্টা করছে আবার উঠে দাঁড়ানোর। পর্যটন-সংক্রান্ত ব্যবসা পুনরুদ্ধারের জন্য সরকার এখন কোভিড-১৯ এর নিয়মবিধিতে কিছুটা ছাড় দিতে শুরু করেছে।

    তবে ব্লুমবার্গ-এর তথ্য অনুযায়ী, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশ জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে রেখেছে। থাই সরকারের তরফে কঠিন নিয়মবিধি এখনও মেনে চলা হচ্ছে। বাইরে থেকে এদেশে এলেই ১৪ দিনের কোয়ারান্টিন মানতেই হচ্ছে। সে কারণে, এখনও পর্যন্ত পুরোপুরি ছুটির আমেজ আসছে না থাইল্যান্ডের সুন্দরী সি বিচে।

    সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে এই দেশ মোট ৪০ মিলিয়ন পর্যটকের কাছ থেকে ব্যবসা করেছে ৬০ বিলিয়ন ডলারের। যদিও পর্যটন মন্ত্রক তাদের এই আয় সম্পর্কে বিশদে জানাতে চায়নি।

    Antara Dey

    Published by:Elina Datta
    First published: