• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • স্কুলে ফোন নিয়ে যাওয়ার শাস্তি, মাটিতে ফোন ফেলে ভাঙার নির্দেশ শিক্ষকের; ভাইরাল ভিডিও!

স্কুলে ফোন নিয়ে যাওয়ার শাস্তি, মাটিতে ফোন ফেলে ভাঙার নির্দেশ শিক্ষকের; ভাইরাল ভিডিও!

Photo Source: Twitter

Photo Source: Twitter

সম্প্রতি চিনের একটি স্কুলে দেখা গিয়েছে যে, মোবাইল ফোন ভেঙে ফেলতে বাধ্য করা হচ্ছে পড়ুয়াদের।

  • Share this:

#বেজিং: বেশিরভাগ দেশেই স্কুলে ফোন নিয়ে যাওয়ার অনুমতি নেই। ফোন নিয়ে গেলে অনেক সময়েই তা জমা নিয়ে নেন শিক্ষকরা। অথবা অভিভাবকদের ডেকে বারণ করে দেওয়া হয় বা ফোন চেক করে জমা করে স্কুলেই অনেক দিন রেখে দেওয়া হয়। এর থেকে বেশি যদি কিছু হয়, তা হলে মারধরও করতে পারেন শিক্ষকরা। কিন্তু সম্প্রতি চিনের (China) একটি স্কুলে দেখা গিয়েছে যে, মোবাইল ফোন (Mobile Phone) ভেঙে ফেলতে বাধ্য করা হচ্ছে পড়ুয়াদের।

সংবাদসংস্থা ডেইলি মেলের রিপোর্ট অনুযায়ী, চিনের কোনও এক স্কুলে ফোন নিয়ে যাওয়ার অনুমতি ছিল না। ফলে ফোন নিয়ে গিয়ে যারা ধরা পড়েছে, তাদের ফোন মাটিতে ছুড়ে ফেলার আদেশ দিয়েছেন শিক্ষকরা। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই রীতিমতো হইচই পড়ে যায় ইন্টারনেটে। ভিডিওটিতে দেখা যায়, একজন শিক্ষক তিনজন পড়ুয়াকে নির্দেশ দিচ্ছেন ফোনগুলি বারবার মাটিতে ফেলে দেওয়ার।

অভিযোগ উঠেছে, ঘটনাটি চিনের ইউনান প্রদেশের মেংজি এলাকার কোনও ঘটনা। ভিডিওটি নিয়ে হইচই পড়তেই সেখানকার প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, তারা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করেছে। তার পর জানা গিয়েছে, ওই স্কুলটিতে ফোন নিয়ে আসার অনুমতি ছিল না। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় কে শেয়ার করেছিলেন, তার পরিচয় জানা যায়নি। প্রশাসনের তরফে আরও জানানো হয়েছে, পডুয়াদের এ ভাবেই শাস্তি দেওয়া হচ্ছিল।

ভিডিওটি ভাইরাল হতেই নেটিজেনদের একাংশ বলতে থাকেন যে কারও ব্যক্তিস্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করার ক্ষমতা কারও নেই। কেউ আবার বলেন, শাস্তি অন্যরকমও হতে পারত। অনেকেই আবার বলতে থাকেন যে স্কুল কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত একেবারে সঠিক, এমন করলে তবেই বাচ্চারা কথা শুনবে! এই দলের দাবি- বারণ করলে ফোন নিয়ে স্কুলে যাবেই বা কেন পড়ুয়ারা!

এই সব মতামত নিয়ে রীতিমতো দুটো আলাদা দলে ভাগাভাগি হয়ে যান নেটিজেনরা। এর মধ্যে একজন অভিভাবক বলেন, এটা দারুণ ব্যাপার। আমাদের দেশের পড়ুয়ারা যদি কখনও নিয়ম ভঙ্গ করে স্কুলে ফোন নিয়ে যায়, তা হলে এমন হলে ভালো হয়। তাদের উচিৎ শিক্ষা হবে। আর এমন কাজ কোনও দিন করার সাহস করবে না তারা। একজন অভিভাবক আবার বলেন, ফোন ভেঙে দেওয়া মানে কারও জিনিস ইচ্ছা করে নষ্ট করা, কাজেই সেটা সমর্থনযোগ্য নয়!

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: