ইয়াসের জের, বুধবারও নিভল না শ্রীলঙ্কার সমুদ্রে জ্বলতে থাকা জাহাজের আগুন

কলম্বোর কাছে এক সপ্তাহ ধরে জ্বলছে মালবাহী জাহাজ৷ Photo-PTI

ইয়াসের (Cyclone Yaas) জেরে সমুদ্রের উপরে জোরাল হাওয়া বইতে থাকায় আগুন নেভাতে গিয়ে আরও বেগ পেয়েছে শ্রীলঙ্কার নৌসেনা৷

  • Share this:

    #কলম্বো: পূর্ব ভারতের ওড়িশা- বাংলা উপকূলে আছড়ে পড়ল অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস৷ যার জেরে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর কাছে সমুদ্রের উপর রাসায়ণিক বোঝাই জাহাজের আগুন নেভানোর কাজ আরও কঠিন হয়ে গেল৷ গত ২০ মে গুজরাত থেকে কলম্বোহামী এই কার্গো জাহাজটিতে আগুন লাগে৷ বুধবারও সেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি৷ বরং ইয়াসের জেরে সমুদ্রের উপরে জোরাল হাওয়া বইতে থাকায় আগুন নেভাতে গিয়ে আরও বেগ পেয়েছে শ্রীলঙ্কার নৌসেনা৷ বরং এ দিনও জাহাজটি থেকে ঘন কালো ধোঁয়ার কুণ্ডলী বেরিয়ে আসতে দেখা গিয়েছে৷

    প্রায় দেড় হাজার কন্টেনার বোঝাই জাহাজ এমভি এক্স-প্রেস পার্লে ২৫ টন নাইট্রিক অ্যাসিড ছাড়াও আরও অন্য ধরনের রাসায়নিক নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল৷ এর মধ্যে মঙ্গলবার জ্বলন্ত জাহাজ থেকে আটটি কন্টেনার সমুদ্রে পড়ে যায়৷ তার মধ্যে একটি কন্টেনার কলম্বো থেকে চল্লিশ কিলোমিটার দূরে বিখ্যাত পর্যটন কেন্দ্র নেগম্বো ট্যুরিস্ট বিচের কাছে ভাসতে ভাসতে পৌঁছে যায়৷ যার ফলে সমুদ্রে রাসায়নিক এবং তেল মিশে পরিবেশ দূষণের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে৷ যদিও সরকারি তরফে দাবি করা হয়েছে, জাহাজের ইঞ্জিন, জ্বালানি ট্যাঙ্ক বা কন্টেনার থেকে কোনও ভাবে জ্বালানি বা রাসায়ণিক সমুদ্রের জলে মিশে গেলে তা থেকে যাতে দূষণ না ছড়ায়, সেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে৷

    বুধবারও জ্বলন্ত জাহাজটির আগুন নেভাতে হেলিকপ্টার থেকে প্রায় ৪২৫ কিলোগ্রাম রাসায়ণিক ফেলেছে শ্রীলঙ্কার নৌসেনা৷ তার পরেও অবশ্য আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি৷ কারণ ওড়িশায় আছড়ে পড়া ঘূর্ণিঝড়ের জেরে জোরাল হাওয়া বইছিল কলম্বোকে ঘিরে থাকা ভারত মহাসাগরের উপরেও৷

    সরকারি তরফে জানানো হয়েছে, জাহাজ থেকে জ্বালানি বা রাসায়নিক জলে মিশলে মৌসুমী হাওয়ার কারণেই তা ভেসে নেগম্বো সৈকতের দিকে চলে যাওয়ার কথা৷ সেকথা মাথায় রেখেই দূষণ আটকাতে সেখানে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি এবং সরঞ্জাম নিয়ে যাওয়া হচ্ছে৷

    শ্রীলঙ্কার নৌসেনার তরফে জানানো হয়েছে, আগুন লাগার পর জাহাজটিতে থাকা ২৫ জন কর্মীকেই উদ্ধার করা হয়েছে৷ সামান্য আহত হওয়ায় একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে৷ সিঙ্গাপুরে নথিভুক্ত মালবাহী জাহাজটি গত ২০ মে যখন কলম্বো বন্দর থেকে মাত্র ১৪ কিলোমিটার দূরে, তখনই তার ডেকে প্রথম আগুন লাগে৷ ভারতীয় উপকূল রক্ষী বাহিনীর তিনটি জাহাজের এ দিনই আগুন নেভানোর কাজে যোগ দেওয়ার কথা৷ মঙ্গলবারই মালবাহী এই জাহাজে অগ্নিকাণ্ডের জেরে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বুঝতে ভারত একটি জাহাজ এবং বিমান পাঠিয়েছিল৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: