বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

Facebook, Instagram, Snapchatএ ঘণ্টার পর ঘণ্টা! মারাত্মক সর্বনাশ করছেন না তো!

Facebook, Instagram, Snapchatএ ঘণ্টার পর ঘণ্টা! মারাত্মক সর্বনাশ করছেন না তো!
Photo-Representative

দু'ঘণ্টার বেশি সোশ্যাল মিডিয়ায়? হতে পারে মানসিক অবসাদ, সতর্ক বার্তা আমেরিকার বিজ্ঞানীদের!

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : অফিসে যাওয়ার আগে, অফিস থেকে ফিরে বা অবসরে আজকাল অনেকেরই বেশিরভাগ সময় কাটে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media)। যারা বাড়িতে থাকে বা পড়ুয়া, তাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটে আরও বেশি সময়। বলা বাহুল্য বর্তমানে এন্টারটেনমেন্টের একটা বড় দিকই এই মাধ্যম। কে কী পরল, কে কী খেল, কোথায় গেল, স্টেটাসে কী দিল বা কী ইস্যু চলছে, এমনকি যে কোনও খবরও আজকাল টেলিভিশন বা রেডিওর আগে সোশ্যাল মিডিয়াতেই পাওয়া যায়। কিন্তু এই সকলের কী খেল, কী করল-র মাঝে আদতে মানসিক সমস্যা বাড়ছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। একটি সমীক্ষা দেখা গিয়েছে, দিনে অতিরিক্ত সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় থাকলে হতে পারে মানসিক অবসাদের মতো রোগও।

Facebook, Instagram, Snapchat বা Twitter-এর মতো সোশ্যাল সাইটে বেশিক্ষণ সময় কাটালে তা মানসিক স্বাস্থ্যের উপরে প্রভাব ফেলতে পারে বলে জানাচ্ছেন আমেরিকার গবেষকরা।

তবে, এটাই প্রথম গবেষণা নয়। সোশ্যাল মিডিয়া (Social media) ও তার প্রভাব এবং ঠিক কতক্ষণ সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটানো উচিৎ- এই নিয়ে আগেও একাধিক গবেষণা ও সমীক্ষা হয়েছে। যার বেশিরভাগই হয়েছে কমবয়সী ছেলেমেয়েদের সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটানো সময় ও তাদের উপরে সোশ্যাল মিডিয়ার প্রভাব নিয়ে। যেখানে দেখা গিয়েছে, এই মাধ্যমের একটা প্রভাব অবশ্যই সকলের মধ্যে রয়েছে, কিন্তু তা অবসাদের কারণ কি না, সেটা জানা যায়নি।

University of Arkansas-এর চিকিৎসক ব্রায়ান প্রিম্যাক এ বিষয়ে (Brian Primack) জানান, সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার এবং তার কারণে মানসিক স্বাস্থ্যে সমস্যা ও মানসিক অবসাদ এই দুইয়ের মাঝে সূক্ষ্ম পার্থক্য রয়েছে। যা সহজে বের করা সম্ভব হয় না। তবে, বেশিভাগ সমীক্ষাই বলে সোশ্যাল মিডিয়ার জন্য মানসিক অবসাদ আসে। এ বার কোনটাকে এ ক্ষেত্রে আগে রাখা উচিৎ বা সোশ্যাল মিডিয়া ও মানসিকের অবসাদের (Depression) মধ্যে কোনটাকে আগে রাখা উচিত সেই নিয়েও দ্বন্দ্ব রয়েছে। তবে, নতুন এই সমীক্ষা দাবি করছে, ডিপ্রেশন বা মানসিক অবসাদে থাকলে তা সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের উপরে প্রভাব সে ভাবে ফেলে না। কিন্তু যদি কেউ বেশি সোশ্যাল মিডিয়া বেশি ব্যবহার করে, তা হলে কিন্তু অবসাদ তৈরি হতে পারে।

American Journal of Preventive Medicine-এ প্রকাশিত সমীক্ষায় ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সী হাজারেরও বেশি মানুষের থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। একটি নির্দিষ্ট প্রশ্নাবলীর মাধ্যমে তাদের মানসিক অবসাদের পরিস্থিতি সম্পর্কে বোঝার চেষ্টা করা হয়। এবং তাদের প্রত্যেককে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের মোট সময় সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়।

তা হলে কি দু'ঘণ্টার বেশি সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটানো উচিৎ নয়?

সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, কমবয়সী যারা দু'ঘণ্টার কম সময় কাটায় এই সামাজিক মাধ্যমে, তাদের থেকে, যারা দিনে পাঁচ ঘণ্টারও বেশি সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটায়, তাদের ২.৮ শতাংশ বেশি সম্ভাবনা থাকে ৬ মাসের মধ্যে অবসাদে ভোগার।

এর কারণ হিসেবেও অনেককিছুকে নির্দিষ্ট করা হয়। যেমন- অনেকেই সম্পর্ক, কাজ, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর বদলে সোশ্যাল মিডিয়ায় সময় কাটায়। এতে সম্পর্কে প্রভাব পড়ে। পাশাপাশি একজন আত্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠতে পারে। এতে মানসিক সমস্যা বাড়ার সম্ভাবনা থেকেই যায়।

ব্রায়ান প্রিম্যাক এ বিষয়ে (Brian Primack) জানান, করোনার জেরে বর্তমানে সকলেই নিজেদের মতো সময় কাটাচ্ছে। সামাজিক দূরত্ব বেড়েছে। ফলে এই সময় সোশ্যাল মিডিয়া ও মানসিক অবসাদের গুরুত্ব আরও বেশি। সাময়িক ভাবে টেকনোলজির প্রভাবে অনেক লাভ হচ্ছে। অনেক কিছু আজ হাতের মুঠোয়। কিন্তু এর অত্যধিক ব্যবহারে আদৌ কোনও লাভ হয় না!

Keywords:

Original Story Link: https://www.news18.com/news/buzz/spending-over-two-hours-a-day-on-social-media-can-lead-to-depression-warn-scientists-3166715.html

Published by: Debalina Datta
First published: December 12, 2020, 12:23 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर