smart phone: সাবধান! মোবাইল থেকে আচমকা জ্বলে উঠতে পারে আগুন ! ভাইরাল ভিডিও!

smart phone: সাবধান! মোবাইল থেকে আচমকা জ্বলে উঠতে পারে আগুন ! ভাইরাল ভিডিও!

সাবধান! ব্যাগে রাখা মোবাইল থেকে আচমকা জ্বলে উঠতে পারে আগুন, ভয় ধরাবে ভাইরাল ভিডিও!

ঘটনার তদন্তে নেমে জানতে পারা যায়, আহত ওই ব্যক্তির সঙ্গে ২০১৬ সালের কেনা একটি Samsung ফোন ব্যাগে ছিল।

  • Share this:

#বেজিং: কথায় আছে বিপদ যখন আসে, তখন না বলেই আসে। দক্ষিণ চিনের রাস্তায় ঘটে যাওয়া এই ঘটনা সেই প্রমাণ দেয়। সম্প্রতি একটি ভিডিও নেট মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা গিয়েছে চিনের একটি রাস্তায় হেঁটে যাচ্ছিল এক দম্পতি। সেই সময় হঠাৎ করে ওই ব্যক্তির কাঁধে থাকা ব্যাগের মধ্যে বীভৎস আগুনের ফুলকি বেরিয়ে আসতে দেখা যায়। এর ফলে ওই ব্যক্তির মাথার সামনের চুল, বাহু, চোখের সামনের কিছুটা অংশ পুড়ে যায়। এই রোমহর্ষক ঘটনার ভিডিওটি দক্ষিণ চিন মর্নিং পোস্ট Twitter-এ শেয়ার করেছে, যেখানে দেখানো হয়েছে যে একজন পুরুষ তাঁর মহিলা-সঙ্গীকে নিয়ে রাস্তায় হাঁটছিলেন, তখন হঠাৎ কাঁধে থাকা ব্যাগের মধ্যে বিস্ফোরণ হয়। কী ঘটেছে তা বুঝতে পারার আগেই ব্যাগ থেকে আগুনের শিখা বের হতে শুরু করে এবং শীঘ্রই ছড়িয়ে পড়ে। তড়িঘড়ি ব্যাগটি ফেলে দিয়ে তাঁরা থমকে দাঁড়িয়ে পড়েন। আগুনের তীব্রতা দেখে পথের অন্য যাত্রীরাও ঘাবড়ে যান। ঘটনার তদন্তে নেমে জানতে পারা যায়, আহত ওই ব্যক্তির সঙ্গে ২০১৬ সালের কেনা একটি Samsung ফোন ব্যাগে ছিল। ফোনটির ব্যাটারি বহু দিন বদল করা হয়নি এবং ঘটনার দিন পর্যাপ্ত পরিমাণে ব্যাটারির চার্জও ছিল না।

দক্ষিণ কোরিয়ার জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড Samsung ২০১৬ সালে চিনের বাজারে আসা Galaxy Note 7 ফোনটিকে চিহ্নিত করে বলেছে ওই সময়ের সেটগুলির মধ্যে ডিসপুট পাওয়া গিয়েছে। এই সেটের ব্যাটারিটি অগ্নিপ্রবণ। এসসিএমপি (SCMP) রিপোর্ট অনুসারে মোট ১,৯১,০০০টি সেটে এই লক্ষণ পাওয়া গিয়েছে। এবং গ্রাহকদের এই নির্দিষ্ট ডিভাইজগুলি বন্ধ করার জন্য সতর্ক করেছিল দক্ষিণ কোরিয়ার এই সংস্থা।

এছাড়াও চিনা মালিকানাধীন Vivo ফোনে এই লক্ষণ দেখতে পাওয়া গিয়েছে। সম্প্রতি, হংকং বিমানবন্দরের টারম্যাকে আগুন লাগার ঘটনা সামনে এসেছে। তড়িঘড়ি SpiceJet এবং GoAir-এর মতো বিমান সংস্থা Vivo বহন বন্ধ করে দেয়। এর পাশাপাশি Hong Kong Air Cargo তাদের দু'টি স্থানীয় এয়ার কার্গো চালানো বন্ধ করে ঘটনার পরে Vivo মোবাইল ফোন স্থানান্তরে পুরো নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। চিনা এই স্মার্টফোন নির্মাতারা জানিয়েছে যে তারা আগুন লাগার কারণ অনুসন্ধান করছে।

Published by:Piya Banerjee
First published: