নৃশংস হত্যালীলা, নাকি অন্য কিছু? লাল জলে ভাসছে ইন্দোনেশিয়ার গ্রাম

এভাবেই জমে থাকা লাল জলের উপর দিয়ে যাতায়াত করছেন পথ যাত্রীরা / photo AP

দেশটির দক্ষিণ প্রান্তের গ্রাম পেকালংগনে রয়েছে জামাকাপড় তৈরির কারখানা। সেখান থেকেই এসে মিশেছে লাল রং। বাটিক শিল্পের কাজ হয় ওই গ্রামে।

  • Share this:

    #জাকার্তা: চক্ষু চড়কগাছ! দেখে ভিরমি খেয়ে যাওয়ার মত ব্যাপার। গোটা একটা গ্রামে রক্তগঙ্গা বইছে! রাজপথ থেকে অলিগলি, লাল জলের তোড়ে ঢেকে গিয়েছে সব রাস্তা। তার ওপর দিয়েই স্কুটার, সাইকেল নিয়ে যাতায়াত করছেন মানুষজন। শিশুরা ভয়ে ভয়ে হাঁটাচলা করছে। কোনও নৃশংস হত্যালীলা হয়েছে গ্রামে? প্রচুর সংখ্যায় মানুষ বা পশুদের হত্যা করা হয়েছে? দৃশ্য দেখলে প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক। কিন্তু লাল জল রক্ত নয়।

    দেশটির দক্ষিণ প্রান্তের গ্রাম পেকালংগনে রয়েছে জামাকাপড় তৈরির কারখানা। সেখান থেকেই এসে মিশেছে লাল রং। বাটিক শিল্পের কাজ হয় ওই গ্রামে। বন্যা হলেই বিভিন্ন রং মিশে গিয়ে রাস্তায় এক এক বর্নের জল রং তৈরি হয়। সেরকমই হয়েছে ব্যাপারটা। গত বছর যেমন বন্যার সময় সবুজ জলে ঢুকে গিয়েছিল গ্রামের রাস্তা। সেই কারণেই বহু নেটিজেন এই জলকে রক্ত ভেবে ভুল করছেন। ইন্দোনেশিয়ার কিছু মানুষ বিভ্রান্তি দূর করতে আসল কারণ ব্যাখ্যা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

    গ্রামের বিপর্যয় মোকাবিলা প্রধান জানিয়েছেন কয়েকদিন পর বৃষ্টির জলের সঙ্গে মিশে গিয়ে লাল জলের অস্তিত্ব থাকবে না।পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ কমেন্টস করেছেন এই ছবি দেখার পর। কৌতুহল ছড়িয়েছে সর্বত্র। আসলে এমন দৃশ্য স্বাভাবিক নয়। যাই হোক, এই দৃশ্য চাঞ্চল্য তৈরি করেছে তাতে কোন সন্দেহ নেই।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: