নিউজিল্যান্ডের সমুদ্র সৈকতে তিমিদের মৃত্যুমিছিল !

Photo Courtesy : Reuters

সমুদ্র সৈকত জুড়ে শুধুই শয়ে শয়ে তিমি পড়ে রয়েছে সারি সারি ৷ বিচের যেখানেই চোখ যায় শুধুই মৃত তিমি পড়ে রয়েছে ৷

  • Share this:

    #ওয়েলিংটন: সমুদ্র সৈকত জুড়ে শুধুই শয়ে শয়ে তিমি পড়ে রয়েছে সারি সারি ৷ বিচের যেখানেই চোখ যায় শুধুই মৃত তিমি পড়ে রয়েছে ৷ হঠাৎ করেই যেন নিউজিল্যান্ডের এই সমুদ্র তীরে এসে আত্মহত্যা করা শুরু করেছে শয়ে শয়ে ৷ সেই সংখ্যা কিন্তু নিতান্ত কম নয় ৷ সংবাদসংস্থা বিবিসি সূত্রে খবর, প্রায় ৪০০ তিমি মাছ সমুদ্রের তীরে এসে উঠেছে। এদের মধ্যে ৩০০ তিমি ইতিমধ্যেই মারা গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে ৷ বাকি যেগুলি বেঁচে রয়েছে, সেগুলিকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করছেন একদল স্বেচ্ছাসেবক ৷ তিমিগুলিকে পুনরায় সমুদ্রে ফেরত পাঠাতে হিমশিম খাচ্ছে তাঁর।

    তবে ঠিক কি কারণে তিমি মাছ এভাবে তীরে উঠে এসেছে সে সম্পর্ক স্পষ্ট কোনও ধারণা নেই বিজ্ঞানীদের। তাদের ধারণা, তিমি মাছ আহত হলে বা বুড়ো হয়ে গেলে তার চলাচলের দিক নির্দেশক ব্যবস্থা ঠিক মতো কাজ না করলে এভাবে সমুদ্র তীরে উঠে আসে তারা। কেউ এভাবে সমুদ্রের তীরের বালিতে উঠে আটকে গেলে কোনও একটি তিমি মাছের পক্ষে একটি সিগন্যাল পাঠায় সমুদ্রে। ধারণা করা হয়, এই সিগন্যালটি সাহায্য চাওয়ার জন্য পাঠানো হয়। আর তাতে আকৃষ্ট হয়ে দলে দলে তিমি তীরে উঠে আসে এবং বালিতে আটকে যায়।

    এখন নিউজিল্যান্ডের দক্ষিণ সমুদ্র তীরে এভাবেই এসে ভিড়ছে তিমির দল। তাদেরকে সঠিক পথ দেখিয়ে আবারও জলে ফেরত পাঠাতে চেষ্টা করছে স্থানীয় মানুষ ও স্বেচ্ছাসেবকেরা। কিন্তু এত বড় প্রাণীগুলোকে সঠিক পথে ফেরত পাঠাতে গিয়ে হিমশিম খাওয়াটাই স্বাভাবিক ।

    First published: