রেহাই পেল না লাল বোতাম! বাইডেন এসেই তুলে দিলেন ট্রাম্পের কোক বোতাম

photo/the print

প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ওভাল অফিসের টেবিলে জোড়া ল্যান্ড ফোন সেটের ঠিক পাশে একটা লাল বোতাম বসিয়েছিলেন ট্রাম্প। হঠাৎ ঘর ভর্তি সাংবাদিকদের সামনে সেই বোতাম দেখিয়ে বলতেন সেটা নাকি পারমাণবিক বোমা ফেলার বোতাম।

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: মুখে বলেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প নাকি তাঁর উদ্দেশ্যে অত্যন্ত মরমী চিঠি লিখেছিলেন। কিন্তু আমেরিকান রীতি মেনে সৌজন্যে দেখাননি ট্রাম্প। একই গাড়িতে প্রাক্তন এবং বর্তমান প্রেসিডেন্ট আসবেন, একজন অন্যজনের হাতে দায়িত্ব তুলে দেবেন, এই প্রথার ধার ধারেননি প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। হয়তো সে কারণেই প্রাক্তন হয়ে যাওয়া ডোনাল্ড ট্রাম্পের আর কোনও চিহ্ন রাখতে রাজি নন জো বাইডেন। নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর জানিয়ে দিয়েছিলেন যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে কাজ করতে হবে। করোনা সামলানো থেকে শুরু করে মেক্সিকো প্রাচীর, অভিবাসন নীতি থেকে শুরু করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন, বর্ণবিদ্বেষের বিষ দূর করা, ইত্যাদি বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ রয়েছে নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্টের সামনে। সে তো ঠিক আছে! কিন্তু এবার ট্রাম্পের প্রিয় লাল বোতাম তুলে দিলেন নতুন প্রেসিডেন্ট।

    কী এই লাল বোতাম? প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ওভাল অফিসের টেবিলে জোড়া ল্যান্ড ফোন সেটের ঠিক পাশে একটা লাল বোতাম বসিয়েছিলেন ট্রাম্প। হঠাৎ ঘর ভর্তি সাংবাদিকদের সামনে সেই বোতাম দেখিয়ে বলতেন সেটা নাকি পারমাণবিক বোমা ফেলার বোতাম। সাংবাদিকরা অবাক হয়ে একে অপরের দিকে তাকাতেন, ঠিক তখনই একজন রুপালী পাত্রে ডায়েট কোকের ক্যান নিয়ে আসত। এক নিমেষে সেই ক্যান শেষ করে হেসে গড়িয়ে পড়তেন ট্রাম্প। টিম শিপম্যান নামের ওই সাংবাদিক জানিয়েছেন ট্রাম্পের সাক্ষাৎকার নিতে গিয়ে ওই লাল বোতাম দেখেছিলেন তিনি। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট সাংবাদিকদের বোকা বানিয়ে বেশ মজা পেতেন।

    যাই হোক, বাইডেন জমানায় ইতি পড়ল পূর্বসূরির কোক অভ্যাসেও। নতুন আমেরিকার স্বপ্ন দেখিয়েছেন জো বাইডেন। স্বাধীনতা এবং ন্যায়বিচার যে দেশে সকলের জন্য সমান হবে, সকলের সমান অধিকার পাবেন, মুছে যাবে সাদা কালো বিভেদ। কিন্তু মুখে বলা যতটা সহজ, কাজে করা ততটা নয়। প্রায় অর্ধশতাব্দী ধরে রাজনীতিতে জড়িত থাকা বাইডেন ব্যাপারটা বিলক্ষণ জানেন। পাশাপাশি বিদেশনীতির ক্ষেত্রে তিনি কী করেন, সেদিকে তাকিয়ে গোটা দুনিয়া। তাঁর টিমে যেমন ভারতীয় এবং আফ্রিকান বংশোদ্ভূতদের গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে, তেমনই এল জি বি টি - দের জন্য আলাদা গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। মহিলাদের অনেকটা জায়গা দিয়েছেন নতুন প্রেসিডেন্ট। ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক কোন দিকে গড়ায় সেটাও যেমন দেখার, তেমনই চিন, পাকিস্তান এবং রাশিয়া নিয়ে নতুন প্রেসিডেন্টের নীতি কী হতে পারে সেটাও লাখ টাকার প্রশ্ন।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: