• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • ভোটের এখনও দু'দিন বাকি!‌ বিপুল আগাম ভোট চিন্তা বাড়াচ্ছে ট্রাম্পের

ভোটের এখনও দু'দিন বাকি!‌ বিপুল আগাম ভোট চিন্তা বাড়াচ্ছে ট্রাম্পের

কিন্তু আগাম ভোটের এই প্রবণতার কারণ কী?‌ অনেকেই মনে করছেন করোনা অতিমারির মধ্যে ভিড় এড়িয়ে ভোট দিতেই লোকে আগে থেকে ভোট দিয়ে রাখছেন।

কিন্তু আগাম ভোটের এই প্রবণতার কারণ কী?‌ অনেকেই মনে করছেন করোনা অতিমারির মধ্যে ভিড় এড়িয়ে ভোট দিতেই লোকে আগে থেকে ভোট দিয়ে রাখছেন।

কিন্তু আগাম ভোটের এই প্রবণতার কারণ কী?‌ অনেকেই মনে করছেন করোনা অতিমারির মধ্যে ভিড় এড়িয়ে ভোট দিতেই লোকে আগে থেকে ভোট দিয়ে রাখছেন।

  • Share this:

    আমেরিকার প্রেসিডেন্সিয়াল নির্বাচনের বাকি এখনও দু'দিন। কিন্তু তার আগেই সারা দেশজুড়ে চলছে আর্লিং ভোটিং। আর সেই ভোট দেওয়ার তারিখের আগে ভোটটি দিয়ে দেওয়ার প্রবণতা চিন্তা বাড়াচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসনের। ২০১৬ সালের নির্বাচনে সর্বমোট যা ভোট পড়েছিল, এবারে আর্লি ভোটিংয়েই তার দুই তৃতীয়াংশের বেশি ভোট ইতিমধ্যে পড়ে গিয়েছে। আর সেই কারণেই চিন্তা বাড়ছে ট্রাম্প প্রশাসনের। তাঁরা মনে করছেন, এই ভোটের বেশিটাই আগেভাগে নিজের ভোটটি দিয়ে মতামত জানিয়ে রাখার জন্য অনেকে করছেন। এঁদের একটা বড় অংশ বিরোধী ভোটার বলে মনে করছেন ট্রাম্প।

    সিএনএন–এর খবর অনুসারে, এখনও পর্যন্ত ৯১.‌৬ মিলিয়ন মানুষ আমেরিকায় ভোট দিয়ে ফেলেছেন। কোনও কোনও প্রদেশে আগাম ভোট দেওয়ার প্রবণতা বাকি সব বছরের রেকর্ড ইতিমধ্যে ভেঙে দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত কত শতাংশ মানুষ এবারের নির্বাচনে ভোট দেবেন তা শেষ দিনই বোঝা যাবে, কিন্তু যেদিকে পরিস্থিতি এগচ্ছে, তাতে ভোটের শতাংশ অনেকটাই বাড়তে পারে। আর তাতেই খুশি ডেমোক্র‌্যাটরা। আর চিন্তা বাড়ছে ট্রাম্প শিবিরের রিপাবলিকানদের। কারণ, তাঁরা মনে করছেন এর একটা বড় অংশ বিরোধী ভোট।

    কিন্তু আগাম ভোটের এই প্রবণতার কারণ কী?‌ অনেকেই মনে করছেন করোনা অতিমারির মধ্যে ভিড় এড়িয়ে ভোট দিতেই লোকে আগে থেকে ভোট দিয়ে রাখছেন। কিন্তু সেই মতো সবাই ভাবায়, এখন থেকেই ভিড় হচ্ছে ভোট কেন্দ্রে। আমেরিকার অর্ধেকের বেশি প্রদেশের থেকে খবর পাওয়া গিয়েছে, সেই সমস্ত প্রদেশে অর্ধেকের বেশি ভোটার আগাম ভোটে ভোট দিয়ে ফেলেছেন। অর্থাৎ ৩ নভেম্বর বাকি অর্ধেক লোক ভোট দেবেন। শুক্রবার টেক্সাস ও হাওয়াই ইতিমধ্যে ভোট পড়ার শতাংশের হিসাবে ২০১৬ সালকে পেরিয়ে গিয়েছে।

    অনেকের মধ্যেই এই প্রশ্ন জাগবে, আগাম ভোটিং ঠিক কী। আসলে আমেরিকার প্রায় সমস্ত প্রদেশেই নির্দিষ্ট ভোটের দিনের আগেই ভোট দেওয়ার সুবিধা থাকে। মুখবন্ধ খামের মাধ্যমে পোস্টাল ব্যালটে আর না হলে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে এই ভোট দেওয়া যায়। নির্দিষ্ট ভোটের দিনের ৪ থেকে ৫০ দিন আগে পর্যন্ত এই আগাম ভোটের প্রক্রিয়া চলতে পারে। এবারে করোনা অতিমারির জন্যই হয়ত ভিড় এড়িয়ে ভোট দিতে সাধারণ মানুষ আগাম ভোট দিয়ে সেরে ফেলতে চাইছে। যদিও তাতে ফলে কী প্রভাব পড়বে, এখনই তা নিয়ে মন্তব্য করতে নারাজ বিশেষজ্ঞরা।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: