'ব্রেন ডেথ'-এর ৩ মাস বাদে সন্তানের জন্ম, পরের দিনই হল মায়ের শেষকৃত্য

'ব্রেন ডেথ'-এর ৩ মাস বাদে সন্তানের জন্ম, পরের দিনই হল মায়ের শেষকৃত্য
representative image
  • Share this:

#পোর্তো: তাঁর মস্তিষ্কের মৃত্যু অর্থাৎ ব্রেন ডেথ ঘটেছে গত ডিসেম্বর মাসে। কিন্তু তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় গত ৩০ মার্চ! কারণ ? ২৯ মার্চ একটি ফুটফুটে পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন ২৬ বছরের ক্যাটেরিনা সেকেইরা। কোনও 'মিরাকল' বা 'ম্যাজিক' নয়, অসম্ভব এই ঘটনাটি সম্ভবপর হয়েছে চিকিত্‍সা বিজ্ঞানের জাদুতে।

পর্তুগালের পোর্তো শহর। ২০১৮ সালের শেষের দিকে ওই শহরেরই বাসিন্দা ক্যাটেরিনার একদিন আচমকা তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। সেই সময় তিনি ১৯ সপ্তাহের সন্তান সম্ভবা ছিলেন। চিকিৎসার জন্য তাঁকে পোর্তোর সেন্ট জন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চলতে থাকে চিকিৎসা! কিন্তু গত ২৬ ডিসেম্বর লড়াই থেমে যায় ক্যাটেরিনার। চিকিত্‍সকরা জানান, তাঁর মস্তিষ্কের মৃত্যু ঘটেছে।

ক্যাটেরিনা দেহদানের অঙ্গীকার করেছিলেন। পর্তুগালের আইন অনুযায়ী সেক্ষেত্রে পরিবারের সম্মতি অনুসারে তাঁর গর্ভের সন্তানকে রক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই থেকে ৫৬ দিন পর্যন্ত কৃত্রিম উপায়ে ক্যাটেরিনার শরীরকে জীবিত রেখে সন্তানকে রক্ষা করা হয়। গত বৃহস্পতিবার সি-সেকশন পদ্ধতিতে সুস্থ অবস্থায় ক্যাটেরিনার সন্তান জন্ম নেয়। সদ্যোজাতর নাম দেওয়া হয়েছে সালভাদোর। জন্মের সময় ওজন ছিল ১.৭ কিলোগ্রাম। আপাতত তাকে আগামী তিন সপ্তাহ হাসপাতালেই চিকিত্‍সকদের নজরদারিতে রাখা হবে।

মস্তিষ্কের মৃত্যুর পরও সন্তানের জন্ম দেওয়ার ঘটনা অবশ্য পর্তুগালে এই প্রথম নয়। ২০১৬ সালে লিসবনে লরেঙ্কো নামে এক শিশুরও একই পরিস্থিতিতে জন্ম হয়। তার মায়ের মস্তিষ্কের মৃত্যু ঘটেছিল তার জন্মের ১৫ সপ্তাহ আগে।

First published: April 1, 2019, 10:38 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर