পোশাক খোলামেলা, পছন্দ নয় পাইলটের, বিমানে উঠতে দেওয়া হল না কলেজ-পড়ুয়াকে!

পোশাক খোলামেলা, পছন্দ নয় পাইলটের, বিমানে উঠতে দেওয়া হল না কলেজ-পড়ুয়াকে!

তিনি জানতেন তিনি এমন কিছু পরেননি যা অতিরিক্ত খোলামেলা। সঙ্গে এ ভাবে সকলের সামনে হেনস্থা করায় খুবই ভেঙে পড়েন তিনি।

তিনি জানতেন তিনি এমন কিছু পরেননি যা অতিরিক্ত খোলামেলা। সঙ্গে এ ভাবে সকলের সামনে হেনস্থা করায় খুবই ভেঙে পড়েন তিনি।

  • Share this:

#ক্যানবেরা: খোলামেলা পোশাক পরেছেন মহিলা। যা পছন্দ হয়নি পাইলটের। তাই ফ্লাইটে উঠতে দেওয়া হল না তাঁকে। এমনই অভিযোগ। কী ভাবছেন, ঘটনাটি ভারতের? পোশাক নিয়ে সমস্যা শুধু এ দেশেই রয়েছে? না, ঘটনাটি অস্ট্রেলিয়ার।

ঘটনার সূত্রপাত গত বুধবার। ২৩ বছরের ক্যাথরিন ব্যাম্পটন অ্যাডিলেড থেকে গোল্ড কোস্ট এলাকায় তাঁর বাড়ি যাবেন বলে অ্যাডিলেড এয়ারপোর্ট থেকে বিমান ধরতে আসেন। VA1447 ফ্লাইটে তাঁর গোল্ড কোস্ট পৌঁছানোর কথা ছিল। কিন্তু ফ্লাইটে উঠতে গেলেই ক্যাথরিনকে জানানো হয়, তিনি অনুমতি পাননি ওই বিমানে সফর করার। তার কারণ জিজ্ঞাসা করলে বিমানকর্মীরা জানান, তাঁর পোশাক একটু বেশি খোলামেলা, তাই ওই পোশাকে ফ্লাইটে উঠতে দেওয়া হবে না।

এমনও কিছু হতে পারে, তা ক্যাথরিন ভাবেননি কখনও। ফলে যথেষ্ট অবাক হন। এবং তিনি জানতেন তিনি এমন কিছু পরেননি যা অতিরিক্ত খোলামেলা। সঙ্গে এ ভাবে সকলের সামনে হেনস্থা করায় খুবই ভেঙে পড়েন তিনি।

News.com.au-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, তিনি একটি হাই নেক হল্টার টপ পরেছিলেন সঙ্গে একটি হাই ওয়েস্ট ট্রাইজার ও সাদা ট্রেনারস। কিন্তু ফ্লাইটে উঠতে না দেওয়ার পর বিমানকর্মীরা তাঁকে জিজ্ঞাসা করেন, তাঁর কাছে আর কোনও টপ আছে কি না যেটা ওর উপরে চাপানো যাবে। বা কোনও জ্যাকেট জাতীয় কিছু আছে কি না!

ক্যাথরিন জানান, পুরো ঘটনাটি ফ্লাইটের বাকি যাত্রীদের সামনে ঘটে এবং তাঁরাও অবাক হয়ে যান। পরে অবশ্য তিনি ওই ফ্লাইটে ওঠেন এবং বিমানকর্মীদের জিজ্ঞাসা করেন, এমন কী ছিল সেই পোশাকে যে তাঁকে উঠতে দেওয়া হয়নি! বিমানকর্মীরা জানান, আসলে পাইলটের ওই পোশাক পছন্দ হয়নি, তাই তাঁদের এমন নির্দেশ দেওয়া হয়। ক্যাথরিনের বাকি প্রশ্নের উত্তর অবশ্য বিমানকর্মীরা আর দিতে পারেননি।

পাইলট এবং বিমানকর্মীদের এই ঘটনায় তাঁর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে- এমন দাবি তুলেছেন ক্যাথরিন এবং জানিয়েছেন, তিনি এই ধরনের ঘটনা আর কারও সঙ্গে হতে দেবেন না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়ার পরই ওই বিমান সংস্থা ও কর্মীদের বিরুদ্ধে একাধিক মন্তব্য করেন নেটিজেনরা। সঙ্কীর্ণ মানসিকতা ও অকারণে হেনস্থা করার জন্যও অনেকে পাইলটকে ক্ষমা চাইতে বলেছেন!

Published by:Pooja Basu
First published: