• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • লক্ষ্য ভারত, শাহিন থ্রি মিসাইলের সফল পরীক্ষা করল পাকিস্তান

লক্ষ্য ভারত, শাহিন থ্রি মিসাইলের সফল পরীক্ষা করল পাকিস্তান

photo/wikipedia

photo/wikipedia

যদিও এই শাহিন থ্রি পরমাণু অস্ত্র বহন করতে সক্ষম কিনা জানায়নি পাকিস্তান। তবে অতীতে পাকিস্তানের পরমাণু প্রোগ্রামের প্রধান হিসেবে থাকা খালিদ কিদওয়াই দাবি করেছিলেন এই মিসাইল পরমাণু অস্ত্র বহন করতে সক্ষম, ভারতের আন্দামান এবং লক্ষদ্বীপ পর্যন্ত তা আঘাত করতে পারে।

  • Share this:

    #করাচি: পাকিস্তানের শাহিন থ্রি মিসাইল নিয়ে কাজ চলছে আগেই জানা গিয়েছিল। এবার তার সফল উৎক্ষেপণ করল পাকিস্তান। পাক সেনাবাহিনীর প্রেস উইংয়ের তরফে অবশ্য জানানো হয়েছে এই মিসাইল পরীক্ষা কোনও দেশকে কোনও বার্তা দেওয়ার জন্য নয়। সিস্টেমের বিভিন্ন নকশা এবং প্রযুক্তিগত মান কোন জায়গায় রয়েছে তা দেখার জন্যই পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৭৫০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম এই মিসাইল। পাকিস্তানের হাতে থাকা সর্বোচ্চ পর্যায়ের মিসাইল এই শাহিন।এই মিসাইল পরীক্ষার পর পাক বাহিনীর স্টাফ কমিটির যৌথ প্রধান জানিয়েছেন পাকিস্তান শান্তিতে বিশ্বাস করে। কিন্তু পাকিস্তানের সার্বভৌমত্ব খন্ডিত হলে জবাব দিতেও জানে।

    যদিও এই শাহিন থ্রি পরমাণু অস্ত্র বহন করতে সক্ষম কিনা জানায়নি পাকিস্তান। তবে অতীতে পাকিস্তানের পরমাণু প্রোগ্রামের প্রধান হিসেবে থাকা খালিদ কিদওয়াই দাবি করেছিলেন এই মিসাইল পরমাণু অস্ত্র বহন করতে সক্ষম, ভারতের আন্দামান এবং লক্ষদ্বীপ পর্যন্ত তা আঘাত করতে পারে। তবে ভারত এবং পাকিস্তান নিজের মধ্যে থাকা চুক্তি অনুযায়ী মিসাইল পরীক্ষা করলে একে অপরকে আগাম বার্তা দেয়। জানা গিয়েছে এই মিসাইল পরীক্ষা হয়েছে আরব সাগরে।

    রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি এবং প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মিসাইলের সফল পরীক্ষার জন্য সামরিক বাহিনী এবং বিজ্ঞানীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তবে ভারত ভাল করেই জানে শাহিন ছাড়াও ঘাওরি, বাবর, ঘাজনভি, নাসার,আবদালি মিসাইল রয়েছে পাকিস্তানের হাতে। তবে ভারতের হাতে পৃথ্বী, অগ্নি, নাগ, ব্রহ্মস,ত্রিশূল, অস্ত্রের মত মিসাইল সিস্টেম রয়েছে। কয়েকদিনের ভিতরে রাশিয়ার এস ফোর হান্ড্রেড চলে এলে অনেকটা এগিয়ে যাবে ভারত।এমনিতে ভারতের মিসাইল রেঞ্জের ব্যাপারে অনেকটাই এগিয়ে পাকিস্তানের তুলনায়। ডিআরডিও প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছে মিসাইল সিস্টেম উন্নত করার জন্য।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: