ইস্তানবুলে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা,অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে গেল বিমান, ভেঙে গেল ৩ টুকরোয়

ইস্তানবুলে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা,অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে গেল বিমান, ভেঙে গেল ৩ টুকরোয়

অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে যায় যাত্রীবাহি বিমান, ভেঙে যায় ৩ টুকরো হয়ে

  • Share this:

#ইস্তানবুল: অবতরণের সময় মর্মান্তিক বিমান দুর্ঘটনা ইস্তানবুলে। বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে যায় যাত্রীবাহি বিমান, ভেঙে যায় ৩ টুকরো হয়ে। ঘটনায় ১ জন মৃত, ১৫৭ জন আহত।

পেগাসাস এয়ারলাইনস Pegasus Airlines jet-এর ৭৩৭ নম্বর বিমানটিতে ছিলেন ১৭১ জন যাত্রী, ৬জন ক্রিউ সদস্য। বিমানবন্দর সূত্রে জানা যায়, পশ্চিমের ইজমির অঞ্চল থেকে ইস্তানবুলের সবিহা গোরকেন Sabiha Gokcen বিমানবন্দরে আসছিল বিমনটি, অবতরণের সময় টেলউইন্ড ও বৃষ্টির দাপটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলায় ভয়াবহ দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়। দুর্ঘটনার পর বিমানন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়,  নিয়ন্ত্রিত করা হয়েছে বিমান পরিষেবা। তুরস্কের সংবাদমাধ্যম জানায়, যাত্রীদের মধ্যে অধিকাংশই  তুরস্কের বাসিন্দা , ২০ জন ভিন্নদেশি। ইস্তানবুলের রাজ্যপাল আলি ইয়েরলিকায়া জানিয়েছেন, ' খারাপ আবহাওয়ার কারণে পেগাসাস  এয়ারলাইনসের বিমান রানওয়েতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। ৫০-৬০ কিমি দূরত্ব পর্যন্ত স্কিড করে যায়। তারপর রানওয়ের শেষে ৩০-৪০ মিটারের মধ্যে বিমানটি ছিটকে পড়ে। ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক।' স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাহরেট্টিন কোকা জানিয়েছেন, একজন তুরস্কের নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। ১৫৭ জন যাত্রী আহত। আহতদের মধ্যে কারও অবস্থা সঙ্কটজনক নয়।

এরআগে গতবছরের ৭ জানুয়ারি, একই বিমানবন্দরে রানওয়েতে অবতরণের সময় ছিটকে যায় পেগেসাস এয়ারলাইনসের একটি বিমান। বিমনাটি আসছিল সারজা থেকে। ২০১৮ সালে ট্রাজবোন বিমানবন্দরেও রানওয়েতে অবতরণের সময় র্দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয় পেগেসাস এয়ারলাইনসের বিমান।

First published: February 6, 2020, 8:44 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर