corona virus btn
corona virus btn
Loading

নেপাল সংসদে পাশ বিতর্কিত মানচিত্র, করোনা সংকটে সাহায্যের কথা মনে করাল ভারত

নেপাল সংসদে পাশ বিতর্কিত মানচিত্র, করোনা সংকটে সাহায্যের কথা মনে করাল ভারত
নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

নেপালের যে মানচিত্র নিয়ে বিতর্ক, তাতে লিমপিয়াধুরা, কালাপানি এবং লিপুলেখের মতো ভারতীয় এলাকাগুলিকে নিজেদের বলে দাবি করছে কাঠমান্ডু ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এতদিন ভারতের বন্ধু হিসেবেই পরিচিত ছিল নেপাল৷ কিন্তু সেই চেনা বন্ধুর আচরণই যেন হঠাৎ বদলে গিয়েছে৷ ভারতীয় এলাকাকে নিজেদের বলে দাবি করে শুধু নতুন মানচিত্র প্রকাশ করাই নয়, সংবিধান সংশোধন করে সেই বিতর্কিত মানচিত্রকে সংসদে পাশ করিয়ে নিল নেপাল সরকার৷ শনিবারই নেপালের সংসদে ভোটাভুটির মাধ্যমে এই বিতর্কিত মানচিত্র পাশ করিয়ে নেওয়া হয়৷ ভারতের তরফে নেপালকে দুই দেশের মধ্যে সংস্কৃতি, সভ্যতা এবং বন্ধুত্বের সুদীর্ঘ ইতিহাসের কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

নেপালের যে মানচিত্র নিয়ে বিতর্ক, তাতে লিমপিয়াধুরা, কালাপানি এবং লিপুলেখের মতো ভারতীয় এলাকাগুলিকে নিজেদের বলে দাবি করছে কাঠমান্ডু৷

গত বৃহস্পতিবার ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব অতীতে দু'দেশের সুসম্পর্কের কথা মনে করিয়ে দিয়েছেন৷ পাশাপাশি করোনা মহামারির মোকাবিলাতেও কীভাবে ভারত নেপালকে সাহায্য করেছে, সেকথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন তিনি৷

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি একদিন আগেই বিবৃতি দিয়ে দাবি করেছিলেন, ভারত আলোচনায় আরও আগ্রহ দেখালে একটি সমাধান সূত্র বেরোত৷ ভারতও গত ২০ মে আলোচনার ইঙ্গিত দিয়েছিল, কিন্তু তার পরেও দু' দেশের বিদেশ সচিব স্তরে আলোচনায এগোয়নি৷

ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, 'প্যারাসিটামল এবং হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ওষুধ, টেস্ট কিট এবং অন্যান্য চিকিৎসা সরঞ্জাম-সহ প্রায় ২৫ টন মেডিক্যাল সাহায্য আমরা নেপালকে পাঠিয়েছি৷ নেপালই প্রথম দেশ, যাদের হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন রফতানিতে ছাড় দিয়েছিল ভারত ৷ মানবিকতার খাতিরে ভারতে আটকে থাকা নেপালের নাগরিকদেরও লকডাউনের মধ্যে দেশে ফেরত পাঠাতে সাহায্য করা হয়েছিল বলে মনে করিয়ে দিয়েছেন ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র৷

অনুরাগ ঠাকুর আরও দাবি করেন, লকডাউনের মধ্যেও নেপালে যাতে জরুরি সামগ্রীর সরবরাহ বন্ধ না হয় এবং দু' দেশের বাণিজ্যে যাতে বাধা না তৈরি হয়, তাও নিশ্চিত করেছে ভারত৷

এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার বিহারের সীতামারিতে ভারত- নেপাল সীমান্তে নেপাল পুলিশের গুলিতে এক ভারতীয়র মৃত্যু হয়৷ স্থানীয় গ্রামবাসীদের অভিযোগ, নেপালে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ তুলে সেদেশের পুলিশ তাঁদের সীমান্তের কাছাকাছি ঘোরাঘুরি করতে নিষেধ করে৷ বাকবিতণ্ডার মধ্যেই গুলি চালাতে থাকে তারা৷ মৃত্যু হয় এক গ্রামবাসীর৷

নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি বরাবরই চিনের দিকে কিছুটা ঝুঁকে৷ ভারতের সঙ্গে তাঁর মতবিরোধ নতুন কিছু নয়৷ ২০১৬ সালে ক্ষমতা হারানোর জন্য ভারতকেই দায়ী করেছিলেন ওলি৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 13, 2020, 6:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर