• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • 'শুক্রকে অগ্রাধিকারের সময় এসেছে,' প্রাণের ইঙ্গিত পেতেই ঘোষণা করলেন NASA-র প্রধান

'শুক্রকে অগ্রাধিকারের সময় এসেছে,' প্রাণের ইঙ্গিত পেতেই ঘোষণা করলেন NASA-র প্রধান

ভিনগ্রহে প্রাণের সন্ধানে শুক্রকে অগ্রাধিকার দেওয়ার আহ্বান জানালেন নাসার প্রধান জিম ব্রিডেনস্টাইন৷

ভিনগ্রহে প্রাণের সন্ধানে শুক্রকে অগ্রাধিকার দেওয়ার আহ্বান জানালেন নাসার প্রধান জিম ব্রিডেনস্টাইন৷

ভিনগ্রহে প্রাণের সন্ধানে শুক্রকে অগ্রাধিকার দেওয়ার আহ্বান জানালেন নাসার প্রধান জিম ব্রিডেনস্টাইন৷

  • Share this:

প্রাণের ইঙ্গিত মিলতেই এ বার শুক্র গ্রহকেই অগ্রাধিকার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা৷ ভিনগ্রহে প্রাণের সন্ধানে শুক্রকে অগ্রাধিকার দেওয়ার আহ্বান জানালেন নাসার প্রধান জিম ব্রিডেনস্টাইন৷

শুক্র গ্রহ তার চরম তাপমাত্রা, বায়ুমণ্ডলীয় রচনা এবং অন্যান্য কারণগুলির জন্যে এখনও জীবন সন্ধানের একটি উল্লেখযোগ্য অংশ হয়ে ওঠেনি। সোমবার নেচার অ্যাস্ট্রোনমি জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় বিজ্ঞানীরা বলেছেন, তাঁরা শুক্রের বায়ুমণ্ডলে ফসফিন নামে একটি গ্যাস শনাক্ত করেছেন৷ যা গ্রহের মেঘের মধ্যে জীবনের উপস্থিতির নির্দেশ করতে পারে। পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলেও এই গ্যাস রয়েছে৷

ব্রাইডেনস্টাইন টুইটারে লেখেন, 'শুক্রে জীবন? অ্যানেরোবিক বায়োলজির উপজাত পণ্য ফসফিন আবিষ্কার পৃথিবীর বাইরে জীবনের সন্ধানে একটি সর্বাধিক উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি৷ প্রায় ১০ বছর আগে নাসা পৃথিবীর উপরের বায়ুমণ্ডলে ১২,০০০ ফুট উপরে মাইক্রোবিয়াল জীবন আবিষ্কার করেছিল। শুক্রকে অগ্রাধিকার দেওয়ার সময় এসেছে৷'

যদিও শুক্রের উপরের দিকে মেঘের তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস অবধি হয়, কিন্তু সেটাও অবিশ্বাস্যভাবে অ্যাসিডিক ৷ প্রায় ৯০ শতাংশ সালফিউরিক অ্যাসিডে ভরা। সেখানে বেঁচে থাকা যে কোনও জীবাণুর জন্য বড় সমস্যা তৈরি করে। তবে শুক্রের বায়ুমণ্ডলে সনাক্ত হওয়া ফসফিনের উৎসটি বিশ্লেষণ করে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এটি কোনও জীবিত কিছু থেকেই আসতে পারে।

ব্রিটেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং জাপানের গবেষকদের যে দল অন্তর্ভুক্ত ছিলেন, তাঁরা বিশ্বাস করেন, তাঁদের আবিষ্কারটি তাৎপর্যপূর্ণ। তাঁরা ফসফিন তৈরির অনেক বিকল্প উপায়কেই বাতিল করতে পেরেছেন, তবে তাঁরা স্বীকার করেছেন জীবনের উপস্থিতি নিশ্চিত করার জন্য আরও অনেক বেশি কাজ করা দরকার।

নাসার পরবর্তী চারটি মিশনের মধ্যে দুটি শুক্র গ্রহকে কেন্দ্র করে। ইউরোপের এনভিশন মিশনও হবে শুক্রকে কেন্দ্র করে যেখানে নাসাও অংশীদার। নাসা জানিয়েছে, শুক্র গ্রহদের মধ্যে এমন এক গন্তব্য যা আমরা ছোট ছোট মিশন দিয়ে পৌঁছে যেতে পারি৷

Published by:Arindam Gupta
First published: