corona virus btn
corona virus btn
Loading

জন্মের আগেই মানুষের হাতে খতম ‘সন্তান’রা, সহ্য করতে না পেরে মৃত্যু শোকার্ত ‘মা’ হাঁসের

জন্মের আগেই মানুষের হাতে খতম ‘সন্তান’রা, সহ্য করতে না পেরে মৃত্যু শোকার্ত ‘মা’ হাঁসের

সন্তানদের জন্মানোর আগেই অকালে মৃত্যু, সহ্য করতে না পেরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল ‘মা’ রাজহাঁস ৷ মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ইংল্যান্ডের কিয়ার্সলের ম্যাঞ্চেস্টার ক্যানালে ৷ মানুষের পাশবিকতাই এই ঘটনার জন্য দায়ী ৷

  • Share this:

‘আমার সন্তান যেন থাকে দুধে ভাতে’ পশু হোক বা পাখি, মানুষের মতো প্রত্যেকেই চায় জীবনের সেরা সম্পদ সন্তানকে যত্নে ৷ স্বনির্ভর হওয়া পর্যন্ত সবসময় সমস্ত বিপদ থেকে আগলে রাখে মায়েরা ৷ এমন মায়েরা কি করে চোখের সামনে আগত সন্তানের মৃত্যু দেখতে পারে ! চোখ মেলে পৃথিবীটা দেখার আগেই নিষ্ঠুরতার শিকার হয়ে সন্তানের চলে যাওয়ার কষ্ট যে  কতটা হৃদয়বিদারক, তা আরও একবার প্রমাণ দিল প্রকৃতি ৷ সন্তানদের জন্মানোর আগেই অকালে মৃত্যু, সহ্য করতে না পেরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল ‘মা’ রাজহাঁস ৷ মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ইংল্যান্ডের কিয়ার্সলের ম্যাঞ্চেস্টার ক্যানালে ৷ মানুষের পাশবিকতাই এই ঘটনার জন্য দায়ী ৷

খুশির সীমানা ছিল না সন্তান গর্বে গর্বিনী রাজহাঁসের ৷ আর কয়েকদিনের মধ্যেই ডিম ফুটে ডানা মেলে বেরোবে তাঁর ৬ সন্তান ৷ তাই বাসায় বসে যত্নে তা দিচ্ছিল ডিমে ৷ এমন সময়ই ঘটল বিপর্যয় ৷ হাঁসটির বাসার পাশে হানা দেয় একদল কিশোর-কিশোরী ৷ বাসা লক্ষ্য করে লাগাতার ঢিল ছুঁড়তে থাকে তারা ৷ ঢিলের আঘাতে মুহূর্তে মা হাঁসটির চোখের সামনে ভেঙে যায় তাঁর একের পর এক ডিম ৷

ক্যানালের কর্মীরা ও এক বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ কর্মী এই হৃদয়বিদারক ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন ৷ সেখানেই তিনি জানিয়েছেন, ওই হামলায় রাজহাঁসটির বেশিরভাগ ডিম নষ্ট হয়ে যায় ৷ হারিয়েও যায় ৷ শেষে বাসায় পড়েছিল একটিমাত্র ডিম ৷ কিন্তু চোখের সামনে এরকম অসহায়ভাবে সন্তানদের মৃত্যু মানতে পারেনি মা রাজহাঁসটি ৷ বেঁচে থাকার ইচ্ছেই হারিয়ে ফেলে সে ৷ এর মধ্যে এই ঘটনার প্রভাবে সঙ্গী পুরুষ হাঁসটিও তাঁকে ফেলে চলে যায় ৷ তাতে আরও আঘাত পেয়ে অবসাদ-হতাশায় ডুবে যায় সে ৷ সন্তানদের মৃত্যুর শোকে একমাসেরও কম সময়ে এই নিষ্ঠুর পৃথিবী ছেড়ে বিদায় নিল মা হাঁসটিও ৷ ১৮ জুন সকালে বাসায় তাঁর প্রাণহীন শরীর আবিষ্কার করে ক্যানালের কর্মীরা ৷

বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ কর্মী মাইকেল জেমস মেসনের পোস্টে দুর্ভাগ্যজনক এই ঘটনাটির কথা নেটিজেনদের চোখেও জল এনে দিয়েছে ৷ মৃত মা হাঁসটির ছবি দিয়ে মেসন লিখেছেন, ‘এরকম হৃদয় ভেঙে দেওয়া ঘটনার কথা লিখতে চাইছিলাম না ৷ কিন্তু ওর কথাটা যে না বললেই নয় ৷ ওর সন্তানদের শেষ করে দিয়েছে মানুষ ৷ সঙ্গীও ছেড়ে চলে গিয়েছে ৷ একের পর এক আঘাত সহ্য করতে না পেরে শোকে-দুঃখে পৃথিবী ছেড়েই চলে গেল বেচারি ৷ ওর কথা ভেবেই কান্না পাচ্ছে আমার ৷ গত ১২ সপ্তাহ ধরে ওকে দেখে আসছি ৷ ’

Published by: Elina Datta
First published: June 22, 2020, 9:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर