Home /News /international /
চিনে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হলে সব দেশকে সাহায্য করবে তারাই! বললেন চিনের মন্ত্রী

চিনে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হলে সব দেশকে সাহায্য করবে তারাই! বললেন চিনের মন্ত্রী

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের Jenner Institute-এ এই ভ্যাকসিন তৈরি হলেও গ্রেট ব্রিটেন সরকার এবং AstraZeneca সংস্থা এই ভ্যাকসিন তৈরিতে সাহায্য করছে৷ এই ওষুধ নির্মাতা সংস্থাই ভ্যাকসিনের বাণিজ্যিক উৎপাদনের দিকে নজর রাখছে৷ প্রতীকী ছবি

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের Jenner Institute-এ এই ভ্যাকসিন তৈরি হলেও গ্রেট ব্রিটেন সরকার এবং AstraZeneca সংস্থা এই ভ্যাকসিন তৈরিতে সাহায্য করছে৷ এই ওষুধ নির্মাতা সংস্থাই ভ্যাকসিনের বাণিজ্যিক উৎপাদনের দিকে নজর রাখছে৷ প্রতীকী ছবি

ইতিমধ্যে করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে মানব দেহে ৫টি ট্রায়াল শুরু করেছেন চিন৷

  • Share this:

    #বেজিং: চিনের ইউহান প্রদেশ থেকে ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস৷ তাই এই মারণ সংক্রমণের দায় নিতে হবে তাদের৷ এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছে বহু দেশ৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট করোনা ভাইরাসকে বহুবার চিনা ভাইরাস বলে উল্লেখ করেছেন৷ এবং এই মারণ রোগের ফলে চিন-আমেরিকার সম্পর্কও তলানিতে ঠেকেছে৷ এরই মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কাছে 'হিতকর' বার্তা দিতে চাইলেন চিনের বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী ওয়াং ঝিগাং৷ তিনি জানালেন যে, চিনে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি হলে তা বিশ্বের প্রতিটি দেশের কাছে পৌঁছে দেবেন তাঁরা৷ এর মাধ্যমে সকলের মঙ্গল করা হবে বলে মন্ত্রীর মত৷

    ইতিমধ্যে করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে মানব দেহে ৫টি ট্রায়াল শুরু হয়েছে চিনে৷ গতমাসে ওয়ার্ল্ড হেলথ অ্যাসেম্বলিতে চিনা রাষ্ট্রপতি শি জিনপিন জানান যে, চিনের তৈরি ভ্যাকসিন প্রস্তুতের পর তা বিশ্বব্যাপী মানুষের ভাল উদ্দশ্যে ব্যবহার করা হবে৷ উন্নয়নশীল দেশগুলিও যাতে সেই ভ্যাকসিন পেতে পারে তার দিকে বিশেষ নজর থাকবে চিনের৷

    করোনা মোকাবিলায় ভ্যাকসিনই একমাত্র পথ৷ তবে তা তৈরি করতে অনেকটা সময় লাগবে এবং খুবই কঠিন সেই কাজ৷ তাই এই কাজে সকলে মিলে এগিয়ে আসা উচিৎ৷ কোনও দেশের নাম না করে চিনা মন্ত্রী বলেন যে ভাইরাস নিয়ে রাজনীতি করার সময় এটা নয়৷ বরং কীভাবে এর থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে, একযোগে তার উদ্দেশ্যে কাজ করাই প্রয়োজন৷ মত চিনের বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী ওয়াং ঝিগাং-এর৷

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    Tags: Coronavirus, COVID19

    পরবর্তী খবর