ই মেইল পরিষেবা হ্যাক করেছে চিন, অভিযোগ মাইক্রোসফট সংস্থার

ই মেইল পরিষেবা হ্যাক করেছে চিন, অভিযোগ মাইক্রোসফট সংস্থার

চিনা হ্যাকারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ মাইক্রোসফটের

মাইক্রোসফ্ট অভিযোগ করে বলেছে, চিনের সঙ্গে সংযুক্ত হ্যাকারদের একটি দল তাঁদের জনপ্রিয় ইমেইল সেবা হ্যাক করেছে

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: ডোনাল্ড ট্রাম্প যুগের শেষে আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি হবে আশা করেছিল চিন। কিন্তু নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ট্রাম্পের মত অতি আক্রমনাত্মক না হলেও বুঝিয়ে দিয়েছিলেন চিন প্রসঙ্গে দেখে পা ফেলবে আমেরিকা। রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে ভারত এবং দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ার লক্ষ্যে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিলেও চিন নিয়ে খুব বেশি শব্দ খরচ করেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট। উল্টে চিনকে বার্তা দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন প্রতিবেশীর সঙ্গে ঝামেলা যেন দ্রুত মিটিয়ে নেয় তাঁরা। কমিউনিস্ট দেশটিকে চাপে রাখতে দক্ষিণ চিন সাগরে নৌবহরের শক্তি বাড়িয়েছে আমেরিকা।

    কিন্তু চিন সাইবার যুদ্ধে অনেকটা জায়গা দখল করেছে শেষ কয়েক বছরে। পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি হ্যাকার রয়েছে চিনে। সম্প্রতি মাইক্রোসফ্ট সংস্থা বড় অভিযোগ করেছে চিনের বিরুদ্ধে। মাইক্রোসফ্ট অভিযোগ করে বলেছে, চিনের সঙ্গে সংযুক্ত হ্যাকারদের একটি দল তাঁদের জনপ্রিয় ইমেইল সেবা হ্যাক করেছে। একটি ব্লগ পোস্টে কোম্পানিটি বলেছে, তাঁদের সফটওয়্যারের চারটি দুর্বলতা হ্যাকারদের মাইক্রোসফট এক্সচেঞ্জের সার্ভারে প্রবেশের অনুমতি দেয়। এর ফলে তাঁরা ইমেইল অ্যাকাউন্টে প্রবেশাধিকার পায়। দীর্ঘমেয়াদী প্রবেশাধিকারের জন্য তাঁরা অতিরিক্ত ম্যালওয়্যার স্থাপন করেছে।

    কোম্পানিটি আরও বলেছে, তাঁরা বিশ্বাস করে যে ‘হাফনিয়াম’ এই হামলা চালিয়েছে, যাঁরা চিনের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় কাজ করে। মার্কিন সংস্থার অভিযোগের জবাব দিতে গিয়ে চিনের বিদেশ মন্ত্রকের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন যে কোনওরকম সাইবার ক্রাইম, চুরি, হ্যাকিং বা প্রযুক্তির ওপর নির্ভরশীল মানুষের জীবনের ক্ষতি হতে পারে এমন পদক্ষেপ সমর্থন করে না চিন। তবে প্রমাণ ছাড়া এমন অভিযোগ ঠিক নয় জানিয়েছে তাঁরা। সংস্থাটি যদি প্রমাণ করতে পারে চিনের হ্যাকারদের দ্বারা এই কাজ হয়েছে তাহলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে আশ্বাস দিয়েছেন ওই মুখপাত্র।

    কিন্তু সাইবার বিশেষজ্ঞরা মনে করেন চিন আধুনিক প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এতটাই এগিয়ে গিয়েছে মাইক্রোসফট সহজে প্রমাণ করতে পারবে না চিনের হাত থাকার কথা। বিখ্যাত মার্কিন টিভি চ্যানেল সিএনএন জানিয়েছে হাফনিয়ামের সঙ্গে এটাই মাইক্রোসফটের প্রথম ঝামেলা নয়। এর আগেও তাঁরা এই হ্যাকার গ্রুপের হামলার শিকার হয়েছে।

    উল্লেখ্য কয়েকদিন আগেই গুগলের প্রাক্তন সিইও জানিয়েছিলেন প্রযুক্তির ময়দানে আমেরিকার রাজত্ব করার দিন প্রায় শেষ। চিন সামান্য পিছিয়ে রয়েছে আমেরিকার তুলনায়। আমেরিকা যদি দ্রুত উন্নতি করতে না পারে তাহলে অচিরেই প্রযুক্তির ক্ষেত্রে শীর্ষস্থান চলে যাবে ড্রাগনের দখলে। তাই সত্যি যদি চিনা হ্যাকাররা মাইক্রোসফট সার্ভার হ্যাক করে থাকে, তাহলে সেটা আমেরিকার জন্য যথেষ্ট চিন্তার কারণ।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: