• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • হাতের আঙুলের মাপ এমন হলেই করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা কম, বলছেন বিজ্ঞানীরা

হাতের আঙুলের মাপ এমন হলেই করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা কম, বলছেন বিজ্ঞানীরা

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

গবেষকরা বলেছেন, আঙুলের দৈর্ঘ্য প্রমাণ করে শরীরে কতটা টেস্টোস্টরেন আছে।

  • Share this:

    #‌সিডনি:‌ সারা পৃথিবীতে করোনা সংক্রমণ প্রতিদিন বাড়ছে লাফিয়ে লাফিয়ে। বিশ্বের তাবড় গবেষকরা লড়াই করছেন করোনার প্রতিষেধক খুঁজতে। পাশাপাশি রোগ সংক্রমণের নানা দিক নিয়ে গবেষণা শুরু হয়েছে। আর সেই গবেষণায় উঠে আসছে অনেক তথ্য। কীভাবে ভাইরাস ছড়াতে পারে, রোগ সংক্রমণের নানাদিক উঠে আসছে রোজ। তেমনই এক গবেষণায় প্রকাশ পেয়েছে, হাতের আঙুলের মাপ দেখে বোঝা সম্ভব কোনও ব্যক্তির করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা কতটা।

    গবেষকরা বলেছেন, মধ্যমা বা ইংরাজিতে যাকে বলে রিং ফিঙ্গার, সেটি পুরুষের যত লম্বা তাঁর শরীরে তত টেস্টোস্টরেন হরমোনের মাত্রা বেশি। গবেষকরা বলছেন, টেস্টোস্টরেন শরীরে ACE-2 গ্রাহকের পরিমাণ বাড়ায় যা রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। অস্ট্রেলিয়া,নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রিয়া ও পূর্ব এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশের পুরুষদের এই মধ্যমার দৈর্ঘ্য বেশি হয়। তাই তাঁদের রোগে পড়ার সম্ভাবনা কম।

    গবেষকরা বলেছেন, আঙুলের দৈর্ঘ্য প্রমাণ করে শরীরে কতটা টেস্টোস্টরেন আছে। আর টেস্টোস্টরেন থাকলে শরীরে ACE-2–এর পরিমাণ বৃদ্ধি পায়, এটা মোটামুটি প্রতিষ্ঠিত সত্য। এর আগেও দেখা গিয়েছে, একাধিক রোগ থেকে রক্ষা করার ক্ষেত্রে শরীরে ACE-2 গ্রাহক বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারে। আর সেই কারণেই মনে করা হচ্ছে, এই তত্ত্ব অনুসারে মধ্যমা বড় এমন পুরুষের শরীরে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা কম।

    ওদিকে, বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এই মুহূর্তে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭ লক্ষ ৮৯ হাজার ৫৭১। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। শেষ পাওয়া খবরে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ৫৭ হাজার ৪৩২। তবে, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৪ লক্ষ ৯৭ হাজার ৬১৮ জন। ‌

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: