নেপথ্যে ভয়ঙ্কর খুনের ইতিহাস, নিলামে উঠল আমেরিকার এই রহস্যজনক বাড়ি!

নেপথ্যে ভয়ঙ্কর খুনের ইতিহাস, নিলামে উঠল আমেরিকার এই রহস্যজনক বাড়ি!
এতদিন এক নৃশংস খুনের ইতিহাস বুকে নিয়ে বিশ্ববাসীর কাছে জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট স্পট ছিল এই বাড়ি। এবার তা বিক্রি করতে চলেছেন বর্তমান মালিক।

এতদিন এক নৃশংস খুনের ইতিহাস বুকে নিয়ে বিশ্ববাসীর কাছে জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট স্পট ছিল এই বাড়ি। এবার তা বিক্রি করতে চলেছেন বর্তমান মালিক।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: এবার নিলামে উঠল আমেরিকার ম্যাসাচুসেটসের (Massachusetts) বিখ্যাত বাড়ি লিজি বোর্ডেন বেড ও ব্রেকফাস্ট মিউজিয়াম। এতদিন এক নৃশংস খুনের ইতিহাস বুকে নিয়ে বিশ্ববাসীর কাছে জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট স্পট ছিল এই বাড়ি। এবার তা বিক্রি করতে চলেছেন বর্তমান মালিক। এর পর থেকেই গোটা বিশ্বের কাছে চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে বাড়িটি। কিন্তু কী এমন হয়েছিল এই বাড়িতে? কেনই বা এই বাড়ি ঘিরে বিশ্ববাসীর এত কৌতূহল?

NBC 10 News-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, দীর্ঘ দিন ধরে লোকজনের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে এই ক্রাইম মিউজিয়াম। ১৮৪৫ সালে নির্মিত হয়েছিল বিশ্ববিখ্যাত এই বাড়ি। ঘরের মধ্যে আটটি বেডরুম ছিল। প্রায় দু'টি পরিবার থাকার মতো যাবতীয় ব্যবস্থা ছিল এখানে। এজন্য অনেকে একে টু ফ্যামিলি হাউজ বলেও ডাকতেন। ১৮৭০ সালে অ্যান্ড্রু বোর্ডেন নামে একজন বাড়িটি কিনে নেন। এর পর একে সিঙ্গল ফ্যামিলি হাউজে বদলে দেওয়া হয়। বর্তমানে অ্যান্ড্রুর ছোট মেয়ে লিজির নামে বাড়িটির নামকরণ করা হয়। সেই থেকে বাড়ির নাম হয় লিজি বোর্ডেন বেড ও ব্রেকফাস্ট মিউজিয়াম। সেই বাড়িতেই একদিন ঘটে যায় এক মর্মান্তিক ঘটনা।

ম্যাসাচুসেটসের সেকেন্ড স্ট্রিট ফল রিভার এলাকা। ১৮৯২ সালে ঘটেছিল সেই নির্মম ঘটনা। সেই বছর ৪ অগস্ট সকালে এই বাড়িতেই নৃশংস ভাবে খুন হন অ্যান্ড্রু ও অ্যাবি বোর্ডেন নামে দু'জন। যা আজও একটা রহস্য হয়ে থেকে গিয়েছে। অভিযোগ, নিজের সৎ মা অ্যাবি ও বাবা অ্যান্ড্রুকে খুন করে মেয়ে লিজি বোর্ডেন ( Lizzie Borden)। কিন্তু পরে বেকসুর খালাস হয়ে যায় লিজি। চাপা পড়ে যায় সেই খুনের রহস্য।


জানা গিয়েছে, বর্তমান মালিক ডোনাল্ড উডস ও লিয়েন উইলবার বাড়িটি বিক্রি করে দিতে চান। বর্তমানে ডোনাল্ডের বয়স ৭৪ বছর। প্রায় ২০ বছর ধরে এখানে রয়েছেন তাঁরা। এবার অন্য শহরে যেতে চান। আর তাই এই বাড়ি বিক্রির সিদ্ধান্ত। এই বিষয়ে রিয়েল এস্টেট এজেন্ট সেন্ট জন (St. John) জানিয়েছেন, নৃশংস হত্যার প্রায় ১৩০ বছর হতে চলল। কিন্তু এখনও এই বাড়ির প্রতি একটুও আকর্ষণ কমেনি মানুষের। এই বাড়ির সঙ্গে গিফ্ট সেকশনও রয়েছে। এখানে নানা ধরনের ফার্নিচার ও অন্যান্য গৃহস্থালির সরঞ্জাম রয়েছে। আপাতত খোলা থাকবে লিজি বোর্ডেন বেড ও ব্রেকফাস্ট মিউজিয়াম। তবে নতুন মালিক আসার পর কী হবে, তা কারও জানা নেই!

Published by:Piya Banerjee
First published:

লেটেস্ট খবর