পুরুষাঙ্গে আংটি গলিয়ে প্রেমিকাকে মুগ্ধ করতে চেয়েছিলেন ভ্যালেন্টাইন'স ডে-তে; তারপর...

পুরুষাঙ্গে আংটি গলিয়ে প্রেমিকাকে মুগ্ধ করতে চেয়েছিলেন ভ্যালেন্টাইন'স ডে-তে; তারপর...
ভ্যালেন্টাইন'স ডে-তে প্রেমিকাকে তীব্র পৌরুষের চমক দেবেন ভেবে শুক্রবার রাত থেকেই শুরু করতে যান অনুশীলন!

ভ্যালেন্টাইন'স ডে-তে প্রেমিকাকে তীব্র পৌরুষের চমক দেবেন ভেবে শুক্রবার রাত থেকেই শুরু করতে যান অনুশীলন!

  • Share this:

#ব্যাঙ্কক: Google খুঁজে দেখলে বা Amazon-এ সার্চ দিলেও হাজার একটা পেনিস রিং বা কক রিংয়ের রেজাল্ট বেরিয়ে আসে। কার্যকারিতা এর একটাই- শরীরের এই অংশে রক্তসঞ্চালনের গতি ধীর করে দিয়ে তা সুদৃঢ় করে রাখা! ব্যাঙ্ককের এক যুবকের ব্যাপারটার কথা জানা ছিল। কিন্তু সেই সব আংটি যে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে তৈরি করা হয়ে থাকে, আঙুলে পরার আংটির মতো তারও যে রয়েছে ব্যক্তিবিশেষে মাপের তফাত, সে সব মাথায় রাখার দরকার তিনি মনে করেননি। ভ্যালেন্টাইন'স ডে-তে প্রেমিকাকে তীব্র পৌরুষের চমক দেবেন ভেবে শুক্রবার রাত থেকেই শুরু করতে যান অনুশীলন! বাড়িতে থাকা একটা লোহার নাট নিয়ে, তাতে ভালো করে তেল মাখিয়ে সেটা গলিয়ে দেন পুরুষাঙ্গে! এর পর হাজার চেষ্টা করা সত্ত্বেও সেটা আর বের করতে পারেননি তিনি!

The Daily Star নামের যে সংবাদমাধ্যম এই ঘটনাটির কথা জানিয়েছে, সেখানে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষার স্বার্থে যুবকটির নাম প্রকাশ করা হয়নি। খবর বলছে যে শুক্রবার রাতে ওই লোহার নাট বের করতে না পারলেও ব্যক্তিটি কোনও শারীরিক সমস্যার সম্মুখীন হননি। কিন্তু শনিবার থেকেই পুরুষাঙ্গ ফুলে ওঠে এবং অসম্ভব রকমের যন্ত্রণার মধ্যে পড়তে হয় তাঁকে। যন্ত্রণার তীব্রতা সহ্য করতে না পেরে তিনি স্থানীয় হাসপাতালে খবর দেন। হাসপাতালকর্মীরা তাঁদের বয়ানে জানিয়েছেন যে অ্যাম্বুল্যান্স নিয়ে তাঁরা যখন ওই যুবকের বাড়িতে পৌঁছে যান, তখন তিনি আর সোজা হয়ে দাঁড়াতেও পারছিলেন না!

হাসপাতালের চিকিৎসকরাও ঘটনার আকস্মিকতায় বিহ্বল বোধ করেছিলেন বলে জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। তাঁদের দাবি- আঙুলে আংটি আটকে যাওয়ার মতো ঘটনা তাঁদের কাছে প্রায়শই এসে থাকে, কিন্তু পুরুষাঙ্গে নাট আটকে ফেলার ঘটনা বেশ বিরল! যে প্রক্রিয়ায় আঙুল থেকে আংটি কেটে ফেলা হয়, ওই এক পন্থাতেই তাঁরা এই নাট কেটে বের করেছেন। কাজটা নিয়ে তাঁদের কোনও সমস্যায় পড়তে হয়নি। কিন্তু প্রায় ঘণ্টাখানেকের এই প্রক্রিয়া যতক্ষণ চলেছে, যুবকটি যন্ত্রণায় আর্তনাদ করছিলেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা।


চিকিৎসকদের বক্তব্য, এই ঘটনা যুবকটির স্বাস্থ্যে কোনও নেতিবাচক প্রভাব ফেলেনি। অ্যান্টিবায়োটিক আর অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি ওষুধ দিয়ে তাঁকে ছেড়েও দেওয়া হয়েছে হাসপাতাল থেকে। তবে পুরুষাঙ্গে এই ৩ সেন্টিমিটার ব্যাসবিশিষ্ট, ১.৫ সেন্টিমিটার পুরু নাট গলিয়ে ফেলার পরে ডেটে যে তিনি আর যেতে পারেননি, তা নিয়ে বিশদে কিছু না বললেও চলে!

Published by:Ananya Chakraborty
First published: