বাড়ির ছাদে উল্কা, রাতারাতি ১০ কোটির মালিক দরিদ্র দিনমজুর

বাড়ির ছাদে উল্কা, রাতারাতি ১০ কোটির মালিক দরিদ্র দিনমজুর

বাড়ির ছাদে উল্কা পড়ে রাতারাতি ১০ কোটির মালিক দরিদ্র দিনমজুর

বাড়ির ছাদে উল্কা পড়ে রাতারাতি ১০ কোটির মালিক দরিদ্র দিনমজুর

  • Share this:

    # ইন্দোনেশিয়া: কথায় বলে, ' দেনে ওয়ালা যব ভি দেতা, দেতা চপ্পড় ফাড় করে!' এই প্রবাদ সত্যি প্রমাণিত হল ইন্দোনেশিয়ার এক যুবকের জীবনে। বাড়ির টিনের চালে উল্কাপিণ্ড পড়ে রাতারাতি কোটিপতি হলেন জোসুয়া হুটা গালুঙ্গ নামে ৩৩ বছরের যুবক।

    জানা গিয়েছে, উত্তর সুমাত্রার কোলাঙ্গের বাসিন্দা জোসুয়া কফিন বানানোর কাজ করেন। বাড়ির কাছেই নিজের কাজে ব্যস্ত ছিলেন, আচমকাই আকাশ থেকে দ্রুতগতিতে একটি উল্কা এসে তাঁর বাড়ির টিনের চাল ভেঙে ঘরের মধ্যে পড়ে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জোসুয়া জানান, '' বিকট শব্দ করে উল্কাটি বাড়ির ছাদে আছড়ে পড়ে। গোতা বাড়ি কাঁপছিল। উল্কার আঘাতে টিনের চালের কিছুটা অংশ ভেঙে যায়। যখন পাথর খণ্ডটা তুলি, তখনও গরম ছিল, আমি সেটিকে বাড়ির ভিতরে নিয়ে আসি।'' পরে সেটি ঠান্ডা হলে স্থানীয় প্রশাসনিক আধিকারিকদের কাছে নিয়ে যান জোসুয়া।

    পাথরখণ্ডটিকে পরীক্ষা করে জানা যায়, সেটি সাড়ে চার বিলিয়ন বছরের পুরনো একটি উল্কাপিণ্ডের অংশ। মূল্য হল প্রতি গ্রাম ৮৫৭ ডলার। অর্থাৎ, উল্কাপিণ্ডটি বিক্রি করে ১০ কোটির বেশি টাকা রোজগার হবে জোসুয়ার।বিশাল পরিমাণ অর্থপ্রাপ্তির খবর জানতে পেরে স্বাভাবিকভাবেই আনন্দে দিশেহারা দরিদ্র দিনমজুর জোসুয়া। তাঁর কথায়, '' বস্তুটি বিক্রি করে ১০ কোটির বেশি টাকা পাব বলে জানতে পেরেছি। সেখান থেকে কিছু টাকা নিয়ে এলাকায় একটা গির্জা তৈরি করব। আমার তিনটে ছেলে থাকলেও একটা মেয়ে নেই। এখন সেই আশাও পূরণ হবে বলে মনে করছি।''

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: