Home /News /international /
Major 8 Train Accidents in Bangladesh|| বাংলাদেশের ইতিহাসের ভয়াবহ ৮ ট্রেন দুর্ঘটনা, যে শোক আজও ভুলতে পারেনি দেশবাসী

Major 8 Train Accidents in Bangladesh|| বাংলাদেশের ইতিহাসের ভয়াবহ ৮ ট্রেন দুর্ঘটনা, যে শোক আজও ভুলতে পারেনি দেশবাসী

ফাইল ছবি।

ফাইল ছবি।

Major 8 Train Accidents in Bangladesh: সর্বাধিক ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছিল ১৯৮৯ সালের ১৫ জানুয়ারি টঙ্গীতে। মুখোমুখি দুই ট্রেনের সংঘর্ষে ১৭০ জন নিহত হয়েছিলেন। ১৯৮৩ সালের ২২ মার্চ পাবনার ঈশ্বরদীর কাছে সেতুর স্প্যান ভেঙে একটি ট্রেনের কয়েকটি বগি নিচে পড়ে  ৬০ জন নিহত হন।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #ঢাকা: বাংলাদেশের ইতিহাসে একের পর এক ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার চট্টগ্রামে রক্ষীবিহীন রেল ক্রসিং পার করার সময়ে ট্রেনের ধাক্কায় দলা পাকিয়ে যায় যাত্রী বোঝাই মাইক্রোবাস। দুর্ঘটনায় ইতিমধ্যেই ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত আরও পাঁচ। তাঁদের  চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিউরো সার্জারি বিভাগে চিকিৎসা চলছে।

    সর্বাধিক ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছিল ১৯৮৯ সালের ১৫ জানুয়ারি টঙ্গীতে। মুখোমুখি দুই ট্রেনের সংঘর্ষে ১৭০ জন নিহত হয়েছিলেন। ১৯৮৩ সালের ২২ মার্চ পাবনার ঈশ্বরদীর কাছে সেতুর স্প্যান ভেঙে একটি ট্রেনের কয়েকটি বগি নিচে পড়ে  ৬০ জন নিহত হন। ১৯৮৫ সালের ১৩ জানুয়ারি খুলনা থেকে পার্বতীপুরগামী সীমান্ত এক্সপ্রেসের কোচে আগুন ধরে ২৭ জনের মৃত্যু হয়। ১৯৮৬ সালের ১৫ মার্চ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার কাছে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে নদীতে পড়ে ২৫ জন যাত্রী নিহত হন।

    আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে ট্রেনের ধাক্কায় দলা পাকিয়ে গেল মাইক্রোবাস, ১১ পড়ুয়ার মর্মান্তিক মৃত্যু, আহত আরও ৫

    ১৯৯৫ সালের ১৩ জানুয়ারি হিলি স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের সঙ্গে অন্য একটি ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৫০ অধিক মানুষের মৃত্যু হয়। ২০১০ সালে নরসিংদীতে চট্টগ্রামগামী একটি ট্রেনের সঙ্গে ঢাকাগামী ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক-সহ ১২ জন মারা যান। ২০১৯-এর ১২ নভেম্বর ভোররাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সিগন্যাল ভেঙে মূল লাইনে ঢুকে পড়ে একটি ট্রেন, দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে সেদিন ১৬ জনের মৃত্যু হয়।

    আরও পড়ুন: শস্য-শ্যামলা বসুন্ধরা কী ভাসবে বন্যায়! এ বারে মা দুর্গার কীসে আগমন আর কীসে গমন জেনে নিন

    এরপর শুক্রবার ২৯ জুলাই চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ পড়ুয়ার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তবে নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার দুপুর দেড়টা নাগাদ চট্টগ্রামের মিরসরাই বড়তাকিয়া এলাকায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী মহানগর প্রভাতী ট্রেনের ধাক্কায় দুমড়ে-মুচড়ে দলা পাকিয়ে যায় মাইক্রোবাসটি। গাড়িতে সেই সময়ে যারা ছিলেন, তাঁরা সকলেই পড়ুয়া। কোচিং সেন্টারের শিক্ষকদের সঙ্গে খৈয়াছড়া ঝর্ণায় ঘুরতে গিয়েছিল। বাড়ি ফেরার সময়ই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ১১ জনের।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Bangladesh, Train Accident

    পরবর্তী খবর