corona virus btn
corona virus btn
Loading

মহাকাশে হেঁটেছিলেন, এবার ডুব দিলেন পৃথিবীর গভীরতম অংশে, চিনে নিন ৬৮ বছরের ক্যাথিকে

মহাকাশে হেঁটেছিলেন, এবার ডুব দিলেন পৃথিবীর গভীরতম অংশে, চিনে নিন ৬৮ বছরের ক্যাথিকে
Photo Courtesy- NYTimes

সারা দুনিয়া কুর্নিশ করছে এই মহিলাকে

  • Share this:

#নিউইয়র্ক: মার্কিন প্রৌঢ়ার নজিরবিহীন কৃতিত্ব ৷ প্রথম মহিলা হিসেবে মহাকাশে হাঁটার পর এবার গেলেন মহাসাগরের গভীরতম এলাকায় ৷ রবিবার দিন ৬৮ বছরের ক্যাথি সুলিভান ৩৫,৮১০ ফুট চ্যালেঞ্জারে ডিপে ডাইভ করেন ৷  EYOS Expeditions নামের একটি লজিস্টিক কোম্পানি তাঁকে এই মিশনে সহায়তা করেছিল ৷

প্রথম মহিলা হিসেবে এই নজির গড়লেন তিনি ৷ যিনি মহাকাশেও হেঁটেছিলেন পাশাপাশি পৃথিবীর গভীরতম এলাকায় ডুব দিলেন ৷ রিসার্চ অনুযায়ী চ্যালেঞ্জার ট্রেঞ্চ পৃথিবীর গভীরতম এলাকা ৷

সুলিভান ও ভিক্টর এ ভেসকোভো মহাসাগরের এই গভীরতম এলাকায় প্রায় দেড় ঘণ্টা সময় কাটান ৷ মারিয়ানা ট্রেঞ্চের ভিতর দিয়ে প্রায় ৭ মাইল গিয়েছিলেন এই দুই অভিযাত্রী ৷ এই এলাকা গুয়ামের ২০০ মাইল দক্ষিণ পূর্বে রয়েছে ৷

In an image provided by NASA, Kathy Sullivan during a space walk from the shuttle Challenger in 1984. (NASA via The New York Times) In an image provided by NASA, Kathy Sullivan during a space walk from the shuttle Challenger in 1984. (NASA via The New York Times)

একটি বিশেষ ধরণের ডুবো জলযানে থেকে এই এলাকার ছবিও তোলেন তাঁরা ৷ এই পর্বে মোট চার ঘণ্টা লেগেছে তাঁদের নামতে ৷ নিজেদের জাহাজে ফেরার সময় তাঁরা আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে থাকা মহাকাশচারীদের সঙ্গে কথা বলেন ৷ যাঁরা পৃথিবীর থেকে ২৫৪ মাইল দূরে ছিলেন ৷

এদিনের শুরুতে সুলিভানকে অভিনন্দন জানান কারণ তিনিই প্রথম মহিলা যিনি মহাসাগরের গভীরতম অংশে গেলেন ৷ ১৯৭৮ সালে  NASA যোগ দেন তিনি৷ তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সেই গ্রুপ যেখানে কোনও মহিলা মহাকাশচারী ছিলেন ৷ ১৯৮৪ সালের ১১ অক্টোবর তিনি প্রথম মহিলা হিসেবে মহাকাশে হেঁটেছিলেন ৷

সুলভিয়ান পৃথিবীর থেকে ১৪০ মাইল দূরে গিয়ে হেঁটেছিলেন ৷ ‘এটা একটা মেজর ইভেন্ট ছিল , পৃথিবীতে এই ধরনের রোমহর্ষক ইভেন্ট হলে অংশ নিতে দারুণ লাগে ৷ ’

এদিকে সূত্রের খবর অনুযায়ী সমুদ্রে আরও কয়েকদিন কাটাবেন সুলিভান ৷ এপ্রিল ২০১৯ এ ভেসকোভো পার্টনার ছিলেন ৷ ২০১২ জেমস ক্যামেরন তাঁর সঙ্গে এই কাজ করতে অস্বীকার করেছিলেন ৷ এই ক্যালাডান ওশানিক নামের কোম্পানিও সুলিভানের এই প্রজেক্টে সহায়তা করেছে ৷

Published by: Debalina Datta
First published: June 9, 2020, 4:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर