corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘বিপর্যয় তো বটেই ! তবে করোনা শিখিয়ে দিল জীবন কাকে বলে !’

‘বিপর্যয় তো বটেই ! তবে করোনা শিখিয়ে দিল জীবন কাকে বলে !’

সেই অভ্যাস, বদলে যাওয়া জীবনের মাঝে ‘পজেটিভিটি’ খুঁজে পেলেন টরন্টো নিবাসী ও আইটি কোম্পানিতে কর্মরত বাংলার ছেলে জয় মজুমদার....

  • Share this:

#টরন্টো: করোনায় বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব ৷ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যু সংখ্যা ৷ লকডাউনে এখন নতুন জীবনে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে দেশ-দুনিয়ার মানুষ ৷ সেই অভ্যাস, বদলে যাওয়া জীবনের মাঝে ‘পজেটিভিটি’ খুঁজে পেলেন টরন্টো নিবাসী ও আইটি কোম্পানিতে কর্মরত বাংলার ছেলে জয় মজুমদার....

করোনা ৷ কোয়েরেন্টাইন ৷ লকডাউন৷ মৃত্যু মিছিল ৷ এই শব্দগুলো এখন প্রতিদিনের সঙ্গী ৷ হঠাৎ করেই যেন ডেইলি রুটিন একেবারে চেঞ্জ৷ জানলার বাইরে যখন চোখ রাখি কিংবা সপ্তাহে একদিন যখন দরকারি জিনিস কিনতে স্টোরে যাই, তখন দেখি চারিদিকটা কেমন যেন বদলে গিয়েছে ৷ রাস্তায় তেমন ভিড় নেই ৷ লোকজনের মুখ ঢাকা মাস্কে আর চোখে আতঙ্ক ৷ বহু বছর হয়ে গেল টরেন্টোতে আছি ৷ এই শহর রঙিন শহর ৷ সব সময়ই উজ্জ্বল আলোয় ঘেরা৷ কিন্তু এখন সেই আলোর মাঝে কেমন যেন চাপা অন্ধকার ৷ এক থমকে থাকা জীবনের ছবি ৷ অনেক সময়ই ভ্রম হয়, করোনা নিয়ে টালমাটাল বিশ্বের ছবি দেখতে দেখতে, রোজ খবরে মৃত্যু সংখ্যার দিকে চোখ রাখার ফলে কি, অবচেতনে বাসা করছে আতঙ্ক ! তাই এতো ভাবনা? সন্দেহ কাটে, যখন কলকাতা থেকে কোনও বন্ধুর ফোন আসে, ‘তোরা ঠিক আছিস তো !’

এখন আমি ওয়ার্ক ফ্রম হোমে অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি ৷ ঘরে বেঁচে থাকার জিনিসের সংগ্রহ যথাযথ ৷ কখনও কখনও ভগবানকে ধন্যবাদ জানাই, যাক আমি ভালো আছি ! আমার স্ত্রী, সন্তান ভালো আছে ৷ তবে যখনই বিশ্বের দিকে চোখ রাখি, তখন নিজেকে স্বার্থপর বলে মনে হয় ৷ কোথাও আবার ভয়ও হয়, ঠিক থাকবো তো? পরিবারকে ঠিক রাখতে পারবো তো? আজকাল দিনগুলো এরকমই প্লাসে-মাইনাসেই কেটে যাচ্ছে ৷ ফোনের অনবরত বার্তালাপে করোনা ছাড়া আর যেন কিছুই নেই !

জানেন তো, আজকাল ইচ্ছে করেই সব নেগেটিভের মাঝে পজিটিভ অনেক কিছু খুঁজতে শিখেছি ৷ যেমন, শব্দ ভান্ডারে এসে যোগ হয়েছে কোয়ারেন্টাইন,  আর এই কোয়ারেন্টাইনে নিয়মিত বেশ কিছু কাজ করছি, যে কাজে এতদিন ছিল মরচে ৷ হ্যাঁ, করোনা অন্তত সব খারাপের মাঝে পুরনো অভ্যাসগুলোকে ফিরিয়ে নিয়ে এসেছে ৷

গোটা সপ্তাহই এখন যেন উইকএন্ড ৷ অফিসের কাজ আর সংসার প্রায় একসঙ্গেই চলছে ৷ কাজ করছি, পাশে এসে দাঁড়াছে ছোট্ট মেয়ে৷ একটু ব্রেক নিয়ে স্ত্রীকে হেল্প করছি ৷ কাজের ফাঁকে টুকটাক কথাবার্তা ৷ যে আলাপচারিতা এতদিন শুধু উইকএন্ডেই সম্ভব ছিল, তা এখন রোজ হচ্ছে ৷ ইমোশনগুলোও তাই বদলে যাচ্ছে ৷ নতুন শেপ পাচ্ছে ৷ বন্ধুদের সঙ্গে ভিডিওকলে আড্ডা কিংবা কনফারেন্স কল ! একেবারে নতুন অভিজ্ঞতা ৷ করোনা বিপর্যয়ে কেমন আছে আত্মীয়-পরিজন, তা জানার ছুতোয় বহুদিন বাদে মাসতুতো-খুড়তুতো সম্পর্কে রিফ্রেশ বটন ৷ জমে থাকা নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন সিরিজ দেখে ফেলছি ৷ সবই যেন ঠিক আছে বা ঠিক রাখছি ৷ কিন্তু আমার জানলার বাইরে, এই চার দেওয়ালের বাইরে স্তব্দতা ৷ দেশ, বিদেশের গন্ডি পেরিয়ে হাহাকার ৷ এটা কি সত্যিই ঠিক থাকা? দেখুন আবার সব গুলিয়ে যাচ্ছে...দিন গুণে চলেছি ... হ্যাঁ, সত্যিই ঠিক হয়ে যাবে সব !

First published: April 23, 2020, 11:17 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर