• Home
  • »
  • News
  • »
  • international
  • »
  • JOE BIDEN MAKES IT CLEAR AMERICA WILL NOT PARTICIPATE IN CIVIL WAR OF AFGHANISTAN ANY MORE DMG

Joe Biden Speech on Afghanistan: অতীতের ভুল আর নয়, তবে আফগানদের পাশে থাকবে আমেরিকা: জো বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন৷

একই সঙ্গে তালিবানদেরও কড়া বার্তা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ তাঁর হুঁশিয়ারি আফগানিস্তানে থাকা আমেরিকানদের নিরাপদে বেরিয়ে আসতে না দিলে তার তাৎক্ষণিক ফল ভুগতে হবে তালিবানদের (Joe Biden Speech on Afghanistan)৷

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: অতীতের ভুল আর করবে না আমেরিকা৷ তবে আফগানিস্তানের পাশে থাকবে তারা৷ আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে প্রথম বার বিবৃতি দিতে গিয়ে এমনই দাবি করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট স্পষ্ট করে দিয়েছেন, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহেরর সিদ্ধান্তে কোনও নড়চড় হবে না৷ আমেরিকা যে আফগানিস্তানের গৃহযুদ্ধ বন্ধ করতে অনন্ত কাল ধরে সেখানে সেনা মোতায়েন করে রাখবে না, তাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন বাইডেন৷

    একই সঙ্গে তালিবানদেরও কড়া বার্তা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ তাঁর হুঁশিয়ারি আফগানিস্তানে থাকা আমেরিকানদের নিরাপদে বেরিয়ে আসতে না দিলে তার তাৎক্ষণিক ফল ভুগতে হবে তালিবানদের৷

    এ দিন আফগানিস্তান নিয়ে বিবৃতি দিতে গিয়ে বাইডেন বলেন, 'আমাদের জাতীয় স্বার্থের সঙ্গে যুক্ত নয়, এমন একটি সংঘাতের মধ্যে জড়িয়ে থেকে অনন্ত কাল ধরে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার যে ভুল অতীতে হয়েছিল, আমরা তার পুনরাবৃত্তি করব না৷ বিদেশের মাটিতে গৃহযুদ্ধে অংশ নিয়ে নতুন রাষ্ট্র গড়ার চেষ্টা করতে গিয়ে সীমাহীন ভাবে মার্কিন বাহিনী মোতায়েনও করা হবে না৷'

    যদিও আফগানিস্তানের সাধারণ মানুষের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে জো বাইডেন বলেন, 'এখন আফগানিস্তানে কী করা যেতে পারে, আমরা তার উপরে জোর দিতে চাই৷ আমরা আফগানিস্তানের মানুষের পাশে থাকব৷ কূটনীতি, আন্তর্জাতিক মহলে প্রভাব এবং মানবিক সাহায্য দিয়ে আফগানিস্তানের মানুষের জন্য আমরা অগ্রণী ভূমিকা নেব৷ হিংসা এবং অস্থিরতা বন্ধ করতে আমরা আঞ্চলিক কূটনীতির চেষ্টা করব৷ আফগানরা যাতে তাঁদের প্রাথমিক অধিকারটুকু পান, সেই দাবিতে আমরা সোচ্চার হব৷' জো বাইডেন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, সেনা মোতায়েন করে নয়, বরং অর্থনৈতিক মাধ্যম, কূটনীতির সাহায্যে মানবিধার রক্ষার উপর জোর দেওয়াই হবে আমেরিকার বিদেশ নীতির লক্ষ্য৷ এই লক্ষ্যপূরণে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলিকেও সঙ্গে নেবে তারা৷

    মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে আফগানিস্তানে ৬ হাজার সেনা মোতায়েন করবে আমেরিকা৷ তবে তা করা হবে যুদ্ধবিধস্ত দেশটিতে আটকে থাকা কয়েক হাজার মার্কিন এবং আমেরিকার বন্ধু রাষ্ট্রগুলির নাগরিকদের নিরাপদে বের করে আনার জন্য৷ এর পাশাপাশি যে আফগান নাগরিকদের প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কা রয়েছে, মার্কিন সেনা তাঁদেরও দেশ ছাড়তে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছেন বাইডেন৷

    এর পাশাপাশি আফগানিস্তানে সামরিক ও অসামরিক বিমান ওঠানামা চালু রাখতেও মার্কিন বাহিনী সহযোগিতা করছে বলে জানিয়েছেন বাইডেন৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন,'আমরা এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছি৷ কাবুলে আমাদের দূতাবাসও নিরাপদেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ আমাদের কূটনীতিকরা এই মুহূর্তে কাবুল বিমানবন্দরে রয়েছেন৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: