Home /News /international /
Narendra Modi in Japan: বাংলায় স্বাগতম, জাপানে পা দিয়েই বিপুল সাড়া পেলেন মোদি! উঠল নতুন স্লোগান

Narendra Modi in Japan: বাংলায় স্বাগতম, জাপানে পা দিয়েই বিপুল সাড়া পেলেন মোদি! উঠল নতুন স্লোগান

জাপানে মোদিকে স্বাগত জানালেন প্রবাসী ভারতীয়রা৷ Photo-ANI

জাপানে মোদিকে স্বাগত জানালেন প্রবাসী ভারতীয়রা৷ Photo-ANI

কোয়াড শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে দু' দিনের সফরে জাপান গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ এই সফরের মাঝেই তাঁর সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেনেরেও সাক্ষাৎ হওয়ার কথা৷

  • Share this:

    #টোকিও: জার্মানির প্রবাসী ভারতীয়রা স্লোগান দিয়েছিলেন, 'টু জিরো টু ফোর- নরেন্দ্র মোদি ওয়ান্স মোর৷' এবার জাপানে পা দিয়েও সেদেশের প্রবাসী ভারতীয়দের বিপুল অভ্যর্থনা পেলেন নরেন্দ্র মোদি৷ জাপানে 'ভারত মাতা কা শের' স্লোগান দিয়ে স্বাগত জানানো হল প্রধানমন্ত্রীকে৷ শোনা গেল জয় শ্রীরাম স্লোগানও৷

    প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে ভারতের বিভিন্ন আঞ্চলিক ভাষায় স্বাগতম লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিমানবন্দরে ভিড় করেছিলেন প্রবাসী ভারতীয়রা৷ তার মধ্যে ছিল বাংলাও৷

    কোয়াড শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে দু' দিনের সফরে জাপান গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ এই সফরের মাঝেই তাঁর সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেনেরেও সাক্ষাৎ হওয়ার কথা৷ পাশাপাশি এই সফরে ভারতে বিনিয়োগ টানতেও উদ্যোগী হবেন প্রধানমন্ত্রী৷ সুজুকি, সফটব্যাঙ্কের মতো বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে তাঁর৷

    আরও পড়ুন: জানেন, কেন রাতের বিমানেই বিদেশ সফর করতে ভালোবাসেন নরেন্দ্র মোদি? অবাক হবেন দেশবাসী

    মঙ্গলবার কোয়াড শীর্ষ সম্মেলনে জাপান, অস্ট্রেলিয়া এবং আমেরিকার রাষ্ট্রনেতাদের সঙ্গে অংশ নেবেন নরেন্দ্র মোদি৷ এ ছাড়াও জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করার কথা পয়েছে তাঁর৷ অস্ট্রেলিয়ার নব নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টনি আলবানিসের সঙ্গেও বৈঠক করবেন তিনি৷

    নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানাতে প্রচুর প্রবাসী ভারতীয় বিমানবন্দরে ভিড় করেছিলেন৷ তাঁদের সঙ্গে কথাও বলেন নরেন্দ্র মোদি৷ একটি জাপানি সংবাদপত্রে দু' দেশের সম্পর্ক নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির লেখাও প্রকাশিত হয়েছে৷ সেখানে মোদি লিখেছেন, 'আমাদের সম্পর্ক শান্তি, স্থায়িত্ব এবং সমৃদ্ধির লক্ষ্যে৷ এই বিশেষ বন্ধুত্ব ৭০ বছর পূরণ করল৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর