এক মিটার সরাতে হবে আস্ত বাড়ি, নাহলে ১ কোটি টাকা জরিমানা! রাতের ঘুম উড়েছে মালিকের

প্রতীকী ছবি৷

দীপক লাল নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে থাকেন৷ সেখানেই একটি নতুন বাড়ি তৈরি করেছেন তিনি৷

  • Share this:

    #অকল্য়ান্ড: নতুন তৈরি আস্ত বাড়িটা এক মিটার সরাতে হবে৷ তা না হলে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এক কোটি টাকা৷ আর চিন্তাতেই রাতের ঘুম উড়েছে নিউজিল্যান্ডের বাসিন্দা ভারতীয় বংশোদ্ভুত দীপক লাল নামে এক ব্যক্তির৷

    দীপক লাল নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে থাকেন৷ সেখানেই একটি নতুন বাড়ি তৈরি করেছেন তিনি৷ কারণ একটি নির্মাণকারী সংস্থা ভুল জায়গায় বাড়ি তৈরি করার জন্য দীপক লালের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে৷ অভিযোগ, প্রতিবেশীর জমির সীমানার থেকে নিয়ম মেনে দূরত্ব না রেখেই বাড়িটি তৈরি করেছেন দীপক৷

    দীপক লালের বাড়ির পাশেই একটি সংস্থার অফিস রয়েছে৷ তাদের তরফেই একটি নির্মাণকারী সংস্থা লালের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করেছে৷ ওই সংস্থা দাবি করেছে, হয় দীপক লাল তাঁর বাড়ি মিটারখানেক সরিয়ে নিন৷ অথবা তাঁকে ভুল জায়গায় বাড়ি তৈরি করার খেসারত হিসেবে ৩ লক্ষ ১৫ হাজার নিউজিল্যান্ড ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে৷ ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য ১ কোটি টাকার বেশি৷

    যদিও দীপক লাল বাড়ি তৈরি করার জন্য যে নির্মাণকারী সংস্থাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন, ভুলটা তাঁদেরই৷ কিন্তু এখন তাঁর খেসারত দিতে হবে ওই ব্যক্তিকেই৷ আর এতেই রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে দীপকের৷ তিনটি বেডরুম সমেত আস্ত বাড়ি কীভাবে সরাবেন, নাহলে বিপুল ক্ষতিপূরণের অঙ্ক কোথা থেকে জোগাড় করবেন, সেটাই বুঝে উঠতে পারছেন না তিনি৷ অসহায় দীপকের কথায়, 'মাঝেমধ্যেই রাতে ঘুম ভেঙে গিয়ে ভাবি, এই সমস্যা থেকে কীভাবে মুক্তি পাবো?'

    ২০২০ সালে অকল্যান্ডের পাপাকুরা অঞ্চলে নিজের বাড়ি তৈরি করার জন্য 'পিনাকেল হোমস' নামে একটি সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করেন দীপক৷ বাড়ির নকশা তৈরি থেকে নির্মাণ কাজ, সবকিছুর দায়িত্বে ছিল ওই সংস্থাই৷ ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে তিন বেডরুম সহ বাড়িটি তৈরির কাজ প্রায় শেষ হয়ে আসে৷ কিন্তু তখনই সীমানা সংক্রান্ত জটিলতা দেখা দেয়৷ দেখা যায়, লালের বাড়িটি প্রতিবেশী সংস্থার অফিসের সীমানার একেবারে গা ঘেঁষে তৈরি করা হয়েছে৷ এর পরই বাড়ি সামান্য সরিয়ে নেওয়া অথবা ক্ষতিপূরণের দাবি করে ওই সংস্থা৷

    দীপকের দাবি, অকল্যান্ড কাউন্সিল বাড়ি তৈরির যাবতীয় অনুমতি দিয়েছিল৷ অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী বাড়ি তৈরি হচ্ছে কি না, তা দেখতে একজন সার্ভেয়ারকে ভাড়া করা হয়৷ দীপকের আইনজীবী জানিয়েছেন, বাড়ির নকশা তৈরির সময় ভুলের জেরেই এই জটিলতা তৈরি হহয়েছে৷

    'পিনাকেল হোমস' নামে যে সংস্থাকে দীপক বাড়িটি তৈরির বরাত দেন, তারা আবার 'এইচ কিউ হোমস' নামে হ্যামিলটনের একটি সংস্থাকে বাড়ির নকশা তৈরি এবং তা অনুমোদনের দায়িত্ব দিয়েছিল৷ 'পিনাকেল হোমস'-এর তরফে দাবি করা হয়েছে, তারা নকশা অনুযায়ীই বাড়ি তৈরি করেছেন৷ ওই সংস্থার অভিযোগ, 'এইচ কিউ হোমস'-এর তরফেই নকশা তৈরির সময় গোলমাল হয়েছে৷ গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে অকল্যান্ড কাউন্সিল৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: