Home /News /international /
Indian Family Found Dead in Canada: ঠান্ডায় জমে মৃত্যু! পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে কানাডায় মর্মান্তিক পরিণতি ভারতীয় পরিবারের

Indian Family Found Dead in Canada: ঠান্ডায় জমে মৃত্যু! পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে কানাডায় মর্মান্তিক পরিণতি ভারতীয় পরিবারের

কানাডা আমেরিকা সীমান্তের কাছে একই পরিবারের এই চারজনের দেহ উদ্ধার হয়৷ Photo-Twitter

কানাডা আমেরিকা সীমান্তের কাছে একই পরিবারের এই চারজনের দেহ উদ্ধার হয়৷ Photo-Twitter

গত ১৯ জানুয়ারি মানিটোবার এমারসনের কাছে কানাডা- আমেরিকার সীমান্তের থেকে মাত্র বারো মিটার দূরে ওই চার জনের বরফে জমে যাওয়া দেহ উদ্ধার হয় (Indian Family Found Dead in Canada)৷

  • Share this:

    #টরন্টো: মানব পাচার চক্রের শিকার হয়েই কানাডা-আমেরিকা সীমান্তের কাছে মর্মান্তিক পরিণতি হল ভারতীয় পরিবারের (Indian Family Found Dead in Canada)? প্রাথমিক তদন্তের পর এমনই অনুমান করছে কানাডিয়ান কর্তৃপক্ষ৷ ঘটনার এক সপ্তাহ বেশি সময় পরে ওই চারজনকে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়েছে৷

    জানা গিয়েছে, মৃত চারজনের নাম জগদীশ বালদেবভাই প্যাটেল (৩৯), তাঁর স্ত্রী বৈশালীবেন জগদীশরুমার প্যাটেল (৩৭), ওই দম্পতির ১১ বছরের কন্যা বিহঙ্গী জগদীশকুমার প্যাটেল এবং তিন বছরের শিশুপুত্র ধার্মিক জগদীশকুমার প্যাটেল৷ ময়নাতদন্তের পর কানাডিয়ান (Canada) রয়্যাল মাউন্টেড পুলিশ কর্তৃপক্ষের অনুমান, প্রবল ঠান্ডা সহ্য করতে না পেরেই মৃত্যু হয়েছে ওই চারজনের৷ গত ১৯ জানুয়ারি মানিটোবার এমারসনের কাছে কানাডা- আমেরিকার সীমান্তের থেকে মাত্র বারো মিটার দূরে ওই চার জনের বরফে জমে যাওয়া দেহ উদ্ধার হয়৷

    ওটাওয়ায় ভারতীয় দূতাবােসর পক্ষ থেকেও জানানো হয়েছে, মৃতদের নিকটাত্মীয়দের খবর দেওয়া হচ্ছে৷ টরন্টোয় স্থিত ভারতের রাষ্ট্রদূতও নিহতদের নিকটাত্মীয়দের সমস্ত রকম সহযোগিতা করা হচ্ছে৷

    আরও পড়ুন: রাশিয়া থেকে ইতালি, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে পালিত হল ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস, দেখুন বর্ণময় ছবি

    ময়নাতদন্তের রিপোর্টে স্পষ্টই উল্লেখ করা হয়েছে, একটানা বাইরে থাকার ফলেই চারজনের মৃত্যু হয়েছে৷ কানাডিয়ান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই পরিবারটি ১২ জানুয়ারি টরন্টোয় পৌঁছয়৷ সেখান থেকে ১৮ জানুয়ারি নাগাদ তারা এমারসনের উদ্দেশ্যে রওনা হয়৷

    যদিও ঘটনাস্থল থেকে কোনও পরিত্যক্ত গাড়ি উদ্ধার হয়নি৷ এর থেকেই অনুমান করা হচ্ছে, কোনও গাড়ি ওই চারজনকে নিয়ে এসে সীমান্তের কাছে চারজনকে নামিয়ে দিয়ে গিয়েছিল৷ ওই পরিবার টরন্টো থেকে কীভাবে এমারসনে পৌঁছল, সেটাই এখন তদন্ত করে দেখা হচ্ছে৷ আর সেই সূত্রেই ধরে নেওয়া হচ্ছে, ওই ভারতীয় পরিবারটি মানব পাচারকারীদের খপ্পরে পড়েছিল৷

    আরও পড়ুন: পূর্ব ইউরোপে মুখোমুখি রাশিয়া-আমেরিকার সেনা, ইউক্রেন ঘিরেই কি তবে যুদ্ধের ইঙ্গিত?

    কানাডা পুলিশের তরফে আরও জানানো হয়েছে, কানাডায় পৌঁছনোর পর ওই পরিবারের সঙ্গে কাদের সাক্ষাৎ হয়েছিল, তা খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে৷ গত সপ্তাহেই আমেরিকার মিনেসোটায় স্টিভ শান্দ নামে এক ৪৭ বছর বয়সি ব্যর্কির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়৷ গত ১৯ জানুয়ারি আমেরিকা থেকে দুই ভারতীয়কে বেআইনি ভাবে কানাডায় ঢুকিয়ে দেওয়ার সময় স্টিভ শান্দ নামে ওই মানব পাচারকারীকে গ্রেফতার করে আমেরিকার পুলিশ৷ যে দুই ভারতীয়কে নথি ছাড়াই কানাডায় ঢোকানোর চেষ্টা হয়েছিল তাঁদের নাম এসপি এবং ওয়াইপি বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে৷ ওই একই সময় বেআইনি ভাবে আমেরিকায় থাকার জন্য আরও পাঁচ ভারতীয়কে গ্রেফতার করা হয়৷

    যে দিন মানব পাচারকারী শান্দকে গ্রেফতার করা হয়, সেদিনই কানাডা সীমান্তের কাছে প্যাটেল পরিবারের চার সদস্যের মৃতদেহ উদ্ধার করে রয়্যাল কানাডিয়ান মাউন্টেন পুলিশ৷ বিষয়টি আমেরিকার সীমান্ত রক্ষী বাহিনীকেও জানানো হয়৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Canada

    পরবর্তী খবর