শিকাগো বিমানবন্দরে ৩২০০ ভায়াগ্রা-সহ গ্রেফতার ভারতীয়!

প্রতীকী ছবি

বিমানবন্দর সূত্রে খবর, প্রথমেই ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়নি। তাঁকে জেরার সময় তিনি এতগুলি ভায়াগ্রা নিয়ে আসার কোনও যুক্তিসঙ্গত কারণ দেখাতে পারেননি। তার পরই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

  • Share this:

    #ওয়াশিংটন: বেআইনি ভাবে আমদানি করা অন্তত ৩ হাজার ২০০ টি ভায়াগ্রা-সহ শিকাগো বিমানবন্দরে গ্রেফতার এক ভারতীয়। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, ওই ভায়াগ্রার মূল্য প্রায় ৯৬ হাজার মার্কিন ডলার। যদিও বিমানযাত্রীর পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে। ভারত থেকে আমেরিকায় ফিরছিলেন ওই ব্যক্তি। ব্যাগেজ স্ক্যানের সময়ই ধরা পড়ে যান তিনি। শুক্রবার মার্কিন কাস্টম ও বর্ডার প্রোটেকশন বিবৃতি দিয়ে এই খবর জানিয়েছে।

    বিমানবন্দর সূত্রে খবর, প্রথমেই ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়নি। তাঁকে জেরার সময় তিনি এতগুলি ভায়াগ্রা নিয়ে আসার কোনও যুক্তিসঙ্গত কারণ দেখাতে পারেননি। তার পরই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। মার্কিন কাস্টম ও বর্ডার প্রোটেকশন (CBP) বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে যে, 'বিমানবন্দরে ব্যাগেজ স্ক্যানের সময় এক যাত্রীর কাছ থেকে প্রায় ৩২০০ সিলডেনাফিল সাইট্রেট ট্যাবলেটস (১০০ এম জি) পাওয়া গিয়েছে। এই পিলগুলি এতটা পরিমাণে কেন তিনি ভারত থেকে আমদানি করেছেন জানতে চাওয়া হলে তিনি কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি। প্রথমে তিনি বলেছিলেন, তিনি তাঁর এক বন্ধুর জন্য এগুলি এনেছেন। পরে বয়ান বদল করেন।'

    মার্কিন কাস্টম ও বর্ডার প্রোটেকশন (CBP)-এর দাবি, 'নয় পাউন্ড এই বেআইনি পিল ওই যাত্রীর কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ওষুধগুলির বাজারমূল্য মার্কিন দেশে অন্তত ৯৬ হাজার ডলার।' মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনেস্ট্রেশনের নিয়ম অনুযায়ী প্রেসক্রিপশন ছাড়া বিদেশ থেকে এত পরিমাণে কোনও ওষুধ সে দেশে আমদানি বেআইনি। আইন ভাঙলে দেশের নিয়ম অনুযায়ী তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

    পাশাপাশি, এই ধরনের কোনও জিনিস বিমানবন্দরে লুকনোর চেষ্টা করলে সেটি বেআইনি বলেই ঘোষণা করা হয়। এ ক্ষেত্রেও তাই করা হয়েছে। দেশের কোনও রকম ক্ষতিসাধন আটকাতে বদ্ধপরিকর মার্কিন অফিসারেরা। বিমানবন্দর কাস্টমসের নিয়ম অনুযায়ী ভায়াগ্রা পিলগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ওই যাত্রীকে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: