corona virus btn
corona virus btn
Loading

আমেরিকার পর অকল্যান্ডে বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের শিকার ভারতীয়

আমেরিকার পর অকল্যান্ডে বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের শিকার ভারতীয়

মার্কিন যুক্ররাষ্ট্রের পর এবার নিউজিল্যান্ড।

  • Share this:

#ওয়েলিংটন: মার্কিন যুক্ররাষ্ট্রের পর এবার নিউজিল্যান্ড। কানসাস, পেনসিলভেনিয়া ও সিয়াটেলের  পর এবার নিউজিল্যান্ড জাতিবিদ্বেষের শিকার হলেন এর ভারতীয় ৷ নারিন্দর বীর সিং নামে ওই ভারতীয়র উদ্দেশ্যে বর্ণবৈষম্যেমূলক মন্তব্য করেন এবং নিজের দেশে ফিরে যেতে বলেন ৷

অকল্যান্ডের রাস্তায় নারিন্দর সিং নামে ওই ভারতীয় বংশোদ্ভূতকে প্রাণনাশের হুমকি দেন এক নিউজিল্যান্ড দম্পতি। চলে অশ্লীল ইঙ্গিত। গালিগালাজ। দেওয়া হয় দেশ ছাড়ার হুমকিও। পুরো ঘটনা ফেসবুকে আপলোড করেন ওই ভারতীয়। পরে সিং বলেন, এই ঘটনায় আমি ব্যাথিত। জানি না কেন হুমকি দেওয়া হল। গাড়ি ওভারটেককে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত।

সোমবার সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, গত সপ্তাহে নিজের গাড়ি ভিতরে বসে ছবি তুলছিলেন তিনি ৷ সেই সময় উল্টো দিক থেকে আরেকটি গাড়ি আসে ৷ তাকে জায়গা দেওয়ার জন্য নারিন্দর নিজের গাড়ি সরিয়ে নেন ৷ কিন্তু অন্য গাড়িটির ভিতর থেকে এক মহিলা তাকে দেখে  কুইঙ্গিত করে ও হুমকি ও গালিগালাজ করে ৷ পঞ্জাবীদের সম্পর্কে কটূক্তিরও অভিযোগ ৷ এই পুরো ঘটনাটি ফেসবুক লাইভ করেন আক্রান্ত ভারতীয় ও ফেসবুকে পোস্ট করে দেন ৷ এরপর থেকেই বিভিন্ন বিতর্কের ঝড় উঠেছে ৷ ফেসবুকে আপলোড হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ৷

নারিন্দর বীর জানান, তিনি যখন অন্য গাড়িতে থাকা মহিলা ও ব্যক্তিকে জানান যে এই ঘটনার তিনি ফেসবুক লাইভ করছেন তাতে তাদের অভব্য ব্যবহার আরও বেড়ে যায় ৷ নারিন্দরকে তারা অকত্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন ও পাশাপাশি তাদের দেশে ছেড়ে চলে যেতে বলে ৷ নরিন্দর নিজের গাড়ি সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলেও তারা পিছু ছাড়তে নারাজ ছিল ৷ পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে নরিন্দরবীর এক সময় ভয় পেয়ে যায় যে তার শারীরিক ক্ষতি করতে পারে আক্রমণকারীরা ৷

গত সপ্তাহেই বিক্রমজিৎ সিং নামে এক ভারতীয় আক্রান্ত হয়েছিলেন। দুটো ঘটনাই পুলিশে অভিযোগ করা হয়েছে।

First published: March 7, 2017, 10:53 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर