তরুণী মহিলার হাতে ছিল ক্ষমতার রাশ, ইউরোপে পুরুষদের শাসন করতেন তাঁরা

This undated photo issued by Crown Office Communications shows objects found by metal detectorist Mariusz Stepien in the Scottish Borders. Credits: AP.

পুরুষদের দমন করে ইউরোপ শাসন করতেন, মহিলাদের সমাধি আবিষ্কারে ঝড়...

  • Share this:

#মাদ্রিদ: আজকের দুনিয়ায় নারী শক্তির উত্থান, নারীর ক্ষমতা নিয়ে নানা আলোচনা হয়। আগামী দিনে মেয়েরাই যে বিশ্ব পরিচালনা করবেন, এই সব কথা নানা জায়গায় উচ্চারিত হয়। কিন্তু প্রাচীন যুগেও যে এই ধারণা প্রচলিত ছিল সেটা বেশ বিস্ময়কর। পুরুষদের দমিয়ে রেখে ইউরোপ শাসন করছেন মেয়েরাই, এমন কথা ভাবলেও চোখ কপালে ওঠে!

যদিও সম্প্রতি অ্যান্টিকুইটি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে এমনই একটি চিত্তাকর্ষক প্রবন্ধ। যেখানে বলা হয়েছে যে আজকের আধুনিক স্পেনে আজ থেকে ৪ হাজার বছর আগে সমাধিস্থ করা এক মহিলা ছিলেন আশেপাশের অঞ্চলের শাসক। একদল আন্তর্জাতিক গবেষক এই তথ্য প্রকাশ করেছেন। দক্ষিণ স্পেনের মুরসিয়া অঞ্চলের লা আমোলায়া একটি বারিয়াল সাইট বা সমাধি দেওয়ার অঞ্চল। এটিকে একটি রাজকীয় সমাধি ক্ষেত্র বলা যেতে পারে। অঞ্চলটি নিয়ে ২০১৩ সাল থেকে কাজ করছেন গবেষকরা। দেখা গিয়েছে যে একটি সেরামিকের পাত্রে এক জন মহিলা ও এক জন পুরুষকে এখানে সমাধি দেওয়া হয়েছে। এই সেরামিকের পাত্রটি ১৭ শতকের। সমাধিস্থ মহিলার আশেপাশে অনেক দামি দামি জিনিস রাখা আছে। এর থেকে অনুমান করা হচ্ছে যে তিনি সমাজের খুব উচ্চ স্তরে অবস্থান করতেন।

মহিলার বয়স আনুমানিক ২৫ থেকে ৩০-এর মধ্যে। তিনি আরগারিক যুগের মানুষ। সমাধিস্থল থেকে ৫০ মাইল দক্ষিণে অবস্থিত প্রত্নতাত্বিক সাইট এল আরগারের নাম অনুসারে এই আরগারিক যুগের নামকরণ করা হয়েছে। মহিলার কঙ্কালে পরানো ছিল এক বিশেষ রকমের অভিজাত মুকুট, যাকে বলা হয় ডায়াডেম। এছাড়াও তাঁর কাছে রাখা ছিল দামি ব্রেসলেট, আংটি ইত্যাদি। এই সাইট থেকে ২৩০ গ্রাম মতো রুপো পাওয়া গিয়েছে। যা অনুমান করা হচ্ছে সেই সময়ে ৯৩৮ জন দিন মজুরের দৈনিক পাওনার সমান। ডায়াডেম নামের যে বিশেষ মুকুট এখানে পাওয়া গিয়েছে, সেরকম সমতুল আরও ছয়টি মুকুট আরগারিক সমাধি থেকে পাওয়া গিয়েছে। এই সব মহিলারাই ধনী ও ক্ষমতাশালী ছিলেন। যা প্রমাণ করে যে সেই সময়ে সমাজ ছিল মাতৃতান্ত্রিক, পুরুষদের অবস্থান ছিল সমাজে নারীর পরে।

এত দিন পর্যন্ত অনেকেরই ধারণা ছিল যে তাম্র যুগে পুরুষদের আধিপত্য ছিল। কিন্তু এই ধারণা যে ঠিক নয়, সে কথার ইঙ্গিত দিচ্ছে এই রাজকীয় মহিলাদের সমাধিগুলো। এই মহিলারা প্রত্যেকেই ভুরু পর্যন্ত ঢাকা এবং নাকের নিচে এক জাতীয় চন্দ্রাকৃতি গয়না পরতেন। এঁরা যে সাধারণ নয়, সেটা প্রমাণিত। আরগারিক যুগের সময়সীমা ছিল ২২০০ থেকে ১৫০০ খ্রিস্ট পূর্বকাল। দক্ষিণ পূর্ব আইবেরিয়ান উপদ্বীপে এই সংস্কৃতির বিকাশ ঘটে। আশেপাশের অন্যান্য অঞ্চলের অনেক আগেই আরগারিক সংস্কৃতির মানুষ তামার ব্যবহার শিখে নেয়।

বার্সেলোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতাত্ত্বিক রবার্ট রিশ বলেছেন যে এই মহিলারা ক্ষমতাশালী ছিলেন। কিন্তু সেটা ঠিক কী রকম ক্ষমতা, তা বিশদে জানা যায়নি। এই নিয়ে আপাতত গবেষণা চলছে। যদিও লা আমোলোয়া থেকে প্রাপ্ত এই সমাধিগুলো ইঙ্গিত করে যে সেই সময়ের সমাজে মহিলাদের যথেষ্ট প্রতিপত্তি ছিল।

Published by:Debalina Datta
First published: