বিদেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

হাফ ক্যান বিয়ারেই চলে যায় হাত আর চোখের নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা, বলছে সমীক্ষা

হাফ ক্যান বিয়ারেই চলে যায় হাত আর চোখের নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা, বলছে সমীক্ষা

ক্যালিফোর্নিয়ায় নাসার আমেস সেন্টারে সম্প্রতি যে গবেষণা চালানো হয়েছে, তাতে দেখা গিয়েছে হাফ ক্যান বিয়ার খেলেও না কি হাতের নিয়ন্ত্রণক্ষমতা হারিয়ে যায়, চোখের দৃষ্টি আবছা হয়ে আসে

  • Share this:

#ক্যালিফোর্নিয়া: অনেকেরই ধারণা আছে, যতই মদ খাওয়া হোক না কেন, তাঁদের নেশা চট করে হয় না! পরের ধাপে মদ খেয়ে গাড়ি চালাতে গিয়ে কী কী সমস্যার মুখে পড়তে হতে পারে তাঁদের, তা সহজেই অনুমান করে নেওয়া যায়। আর কিছু না হোক, পুলিশের হাতে হয়রানির সম্ভাবনা থেকেই যায়! অন্য দিকে আবার অনেকে মনে করেন, খুব অল্প পরিমাণে মদ খেলে কোনও সমস্যা নেই, গাড়ি চালানোই যায়! কিন্তু সম্প্রতি এই দুই ধরনের ধারনার বশবর্তী হয়ে যাঁরা চলেন, সেই দুই পক্ষের জন্যই সতর্কতা জারি করল মার্কিন মুলুকের ন্যাশনাল অ্যারোনটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ওরফে নাসা। ক্যালিফোর্নিয়ায় নাসার আমেস সেন্টারে সম্প্রতি যে গবেষণা চালানো হয়েছে, তাতে দেখা গিয়েছে হাফ ক্যান বিয়ার খেলেও না কি হাতের নিয়ন্ত্রণক্ষমতা হারিয়ে যায়, চোখের দৃষ্টি আবছা হয়ে আসে। এর পরিমাণ এতই সূক্ষ্ম যে তা চট করে উপলব্ধি করা যায় না। তাই অনেকেই অল্প পরিমাণে মদ খেয়ে গাড়ি চালাতে যান, কিন্তু সেটা করা ঠিক নয়। কেন না, যে কোনও মুহূর্তে দুর্ঘটনার কবলে পড়ার সম্ভাবনা থেকেই যায় এ ক্ষেত্রে!

খবর বলছে, ব্লাড অ্যালকোহল কনসেনট্রেশনে এত দিন পর্যন্ত এই অনুপাতটাকে ধরা হত ০.০১৫ শতাংশ। অর্থাৎ অল্প পরিমাণে মদ খেলে হাত কতটা কাঁপতে পারে, চোখের দেখার ক্ষমতা কতটা বিঘ্নিত হতে পারে, ০.০১৫ শতাংশ ছিল তার নির্ধারিত অনুপাত। কিন্তু নাসা-র সমীক্ষা বলছে যে এই অনুপাতটা আদতে ২০ শতাংশ! অতএব ঝুঁকি না নেওয়াটাই ঠিক হবে! কেন না, যত অল্প পরিমাণেই খাওয়া হোক না কেন, অ্যালকোহল শরীরে গিয়ে একটা প্রতিক্রিয়া তৈরি করবেই! প্রভাবিত করবে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতাকেও। ফলে, মস্তিষ্কের সঙ্গে স্নায়ুপথে হাত আর চোখের যোগাযোগ ব্যাহত হবে যা যে কোনও সময়ে বিপদজনক হয়ে উঠতে পারে!

নাসা জানিয়েছে যে আমেস রিসার্ট সেন্টারে এই পরীক্ষাটি ৭৫ কেজি ওজন পর্যন্ত তরুণ প্রজন্মের এমন স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়েই করা হয়েছে, যাঁরা সপ্তাহে বড় জোর দু'বার মদ খেয়ে থাকেন। গবেষণা করার আগে বিশেষ ভাবে খেয়াল রাখা হয়েছিল যে তাঁরা তার আগের দিন থেতে মদ তো দূরের কথা, এমনকী কফিও খাচ্ছেন না। এর পর অল্প অ্যালকোহল মেশানো পানীয় খাইয়ে নানা শারীরিক পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে তাঁদের ড্রাইভিং স্কিল খতিয়ে দেখা হয়। আর তাতেই উঠে এসেছে এই ভয় পাইয়ে দেওয়া তথ্য!

Published by: Rukmini Mazumder
First published: December 26, 2020, 4:01 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर