১০ সেকেন্ডের ভিডিও বিক্রি হল ৪৮.৪২ কোটি টাকায় ! জেনে নিন নেপথ্যের কারণ!

১০ সেকেন্ডের ভিডিও বিক্রি হল ৪৮.৪২ কোটি টাকায় ! জেনে নিন নেপথ্যের কারণ!

১০ সেকেন্ডের একটি আর্টিস্টিক ভিডিও বিক্রি হল ৬.৬ মিলিয়ন ডলারে অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪৮.৪২ কোটি টাকায়।

১০ সেকেন্ডের একটি আর্টিস্টিক ভিডিও বিক্রি হল ৬.৬ মিলিয়ন ডলারে অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪৮.৪২ কোটি টাকায়।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: পরিশ্রম আর চেষ্টা খুলে দিতে পারে ভাগ্যের চাবি। তবে সুযোগও একটি বড় বিষয়। আর এক্ষেত্রে যেন একযোগে কাজ করেছে তিনটি জিনিস। পরিশ্রম, ভাগ্য আর সুযোগ মিলিয়ে দিয়েছে সব কিছু। আর সেই সুবাদেই ১০ সেকেন্ডের একটি আর্টিস্টিক ভিডিও বিক্রি হল ৬.৬ মিলিয়ন ডলারে অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪৮.৪২ কোটি টাকায়। জেনে নেওয়া যাক নেপথ্যের গল্প!

গত বছর অক্টোবর মাসে আমেরিকার মিয়ামির বাসিন্দা পাবলো রদ্রিগেজ ফ্রেইল (Pablo Rodriguez-Fraile) একটি ১০ সেকেন্ডের আর্ট ভিডিওর উপরে প্রায় ৬৭,০০০ ডলার খরচ করেন। অনলাইনে হয় তো ফ্রিতেই দেখতে পেতেন। তবে এই ৬৭,০০০ ডলারের খরচ যেন ভাগ্য বদলে দিল। গত সপ্তাহে ৬.৬ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হল সেই ভিডিও।

ভিডিওটি তৈরি করেছিলেন ডিজিটাল ভিডিও আর্টিস্ট বিপল। তাঁর প্রকৃত নাম মাইক উইঙ্কেলমন (Mike Winkelmann)। ব্ল্যাকচেন নামক সংস্থার রিপোর্টেও এই বিষয়টি উঠে আসে। এই ধরনের ভিডিওকে বলা হয় নন ফাঞ্জিবল টোকেন NFT (Non-fungible Token)। করোনা কালে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিল এই ধরনের ডিজিটাল আর্ট প্ল্যাটফর্ম। তবে শুধুমাত্র অনলাইনেই উপলব্ধ থাকে এটি। এই শিল্প আবার ব্ল্যাকচেন প্রযুক্তির মাধ্যমেও সংরক্ষিত। যার কোনও প্রতিরূপ তৈরি করা যায় না।

শিল্পকলার সংগ্রাহক পাবলো রডরিগেজ ফ্রেইল বলেন, বিপলের কাজ দেখে আমি মুগ্ধ। তাই প্রথমে আমিই সেটি কিনে নিই। তার পর বিপুল দাম পাওয়া যায়। বিষয়টি সত্যিই বিস্ময়কর। আসলে NFT ইন্টারনেটে পরিবর্তন করা যায় না। এক্ষেত্রে ডিজিটাল আর্ট ওয়ার্ক, স্পোর্টস কার্ড, ভার্চুয়াল এনভায়রনমেন্টের মতো বিষয়গুলি NFT-র আওতায় আসে। তাই এই শিল্পটি অত্যন্ত দামি। কিন্তু কী এমন আছে এই শিল্পে? পাবলো প্রথমে কেনার পর যে আর্টিস্টিক ভিডিওটি বিক্রি করেছেন, তাতে দেখা যাচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump) মাটিতে পড়ে রয়েছেন। এক্ষেত্রে ট্রাম্পের শরীরে রয়েছে অনেক ট্যাটু। লেখা আছে স্লোগানও। তার উপর রয়েছে Twitter-এর চিহ্ন। বোধ হয়, এদিকে থেকেও আকর্ষণের জায়গা হয়েছে দাঁড়িয়েছে ভিডিওটি।

প্রসঙ্গত NFT-এর জন্য মার্কেটপ্লেস OpenSea জানিয়েছে, NFT-এর সূত্র ধরে ধীরে ধীরে মাসিক সেলস ভলিউমও বেড়েছে। ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এই বৃদ্ধির পরিমাণ ছিল ৮৬.৩ মিলিয়ন ডলার। সৌজন্যে নানা ধরনের নন ফাঞ্জিবল টোকেন ডিজিটাল আর্ট। আপাতত, এই ভিডিওর বিস্ময়কর দামে মজেছে বিশ্ববাসী!

Published by:Piya Banerjee
First published: