corona virus btn
corona virus btn
Loading

Coronavirus: হিন্দু বলে রেশন নয়, করোনা সংকটেও অমানবিক ছবি পাকিস্তানে

Coronavirus: হিন্দু বলে রেশন নয়, করোনা সংকটেও অমানবিক ছবি পাকিস্তানে
পাকিস্তানে চরম দুরবস্থার মধ্যে হিন্দুরা৷ PHOTO- ANI

করোনা সংকটের জেরে ভারতের মতো পাকিস্তানেও জনজীবন স্তব্ধ৷সাধারণ মানুষের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে যে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে তা হিন্দু বা খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষকে তা দেওয়া হচ্ছে না৷

  • Share this:

#করাচি: করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে একজোট গোটা বিশ্ব৷ জাতি, বর্ণ, ধর্ম বা দেশের সীমানার ঊর্ধ্বে উঠে মানুষ মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে৷ পরিস্থিতি যখন এতটাই কঠিন তখন ফের একবার পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দু এবং খ্রিস্টানদের সঙ্গে অমানবিক ব্যবহারের অভিযোগ সামনে এলো৷ করোনা সংকটের জেরে ভারতের মতো পাকিস্তানেও জনজীবন স্তব্ধ৷ ভারতের মতো সেখানেও চলছে লকডাউন৷ অভিযোগ, সাধারণ মানুষের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে যে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হচ্ছে তা কেবলমাত্র মুসলিমরাই পাচ্ছেন৷ হিন্দু বা খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষকে তা দেওয়া হচ্ছে না৷

করাচির বাসিন্দা এক হিন্দু ব্যক্তি আক্ষেপের সুরে বলেন, 'প্রশাসন আমাদের সঙ্গে কোনও রকম সহযোগিতা করছেন না৷ লকডাউনের মধ্যে যে রেশন দেওয়া হচ্ছে তা আমরা হিন্দু বলে পাচ্ছি না৷'

করাচির রেহরি ঘোট এলাকায় সাধারণ মানুষকে চাল, ডালের মতো অত্যাবশ্যকীয় পণ্য বন্টন করা হচ্ছে৷ সেখানেই ভিড় করেছিলেন বহু হিন্দু এবং খ্রিস্টান৷ অভিযোগ, তাঁদের মুখের উপরে বলে দেওয়া হয়েছে যে হিন্দু হওয়ার কারণেই তাঁরা রেশন পাবেন না৷

হিন্দু সম্প্রদায়ের আর এক ব্যক্তিও বলেন, 'আমাদের প্রতিবেশীরা সবাই রেশন পাচ্ছেন৷ আমার ছেলে রিকশা চালায়৷ এখন তাঁর কোনও কাজ নেই৷ আমাদের হাতে টাকাও নেই, কোনও খাবারও নেই৷ রেশন নিতে এলে আমাদের বলা হয়েছিল যে আলাদা ট্রাকে করে আমাদের জন্য রেশন পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে৷ কিন্তু বাস্তবে কিছুই হয়নি৷'

পাকিস্তানের মোট জনসংখ্যার চার শতাংশ মতো হিন্দু ধর্মাবলম্বী৷ কিন্তু বছরের পর বছর তাঁরা বৈষম্য এবং অত্যাচারের শিকার হন বলে অভিযোগ৷ আন্তর্জাতিক চাপের কাছে নতিস্বীকার করে গত বছর ইমরান খান সরকার চারশো হিন্দু মন্দির সংস্কারের উদ্যোগ নেয়৷ কিন্তু এক বছর পেরিয়ে যাওয়ার পরেও সেই প্রকল্প দিনের আলো দেখেনি৷ টেনেটুনে বারোটি মতো মন্দির পুনরায় খুলে দেওয়া হয়েছে৷

পাকিস্তানের আরও এক হিন্দু নাগরিক অভিযোগ করেছেন, এক সপ্তাহ ধরে তাঁদের বাড়িতে কোনও চাল- ডাল নেই৷ অথচ রাস্তায় বেরোলেই তাঁদের পুলিশ তাড়া করছে৷ করোনার বিপদের মধ্যে পাক প্রশাসনের অমানবিক আচরণ সেদেশের হিন্দুদের সংকট আরও বাড়িয়ে দিয়েছে৷

 
First published: April 1, 2020, 4:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर