লন্ডন মিউজিয়ামে ব্যঙ্গ প্রতিরূপ, আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে 'বেবি ট্রাম্প'

লন্ডন মিউজিয়ামে ব্যঙ্গ প্রতিরূপ, আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে 'বেবি ট্রাম্প'
photo/the hill

ছয় মিটার উঁচু একটি বেলুন। হিলিয়াম গ্যাস ভরা বেলুনটিতে ট্রাম্পের আদলে ন্যাপি পরা কমলা রংয়ের দাঁত বের করা শিশু, হাতে ধরা স্মার্ট ফোন। আসলে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে এটা ব্রিটেনের প্রতিবাদের প্রতীক।

  • Share this:

    #লন্ডন: সময়টা সত্যিই খারাপ যাচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের। বিদায় নিয়েও শান্তি নেই। ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং বিতর্ক যেন একে অপরের পরিপূরক। মার্কিন সেনেটে পরের মাসের প্রথমদিকে শুরু হবে তাঁর ইমপিচমেন্ট শুনানি। তার আগে এবার বিদায় মার্কিন প্রেসিডেন্টকে নিয়ে অভিনব ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করা হল।

    এমনিতেই ব্যঙ্গ বিদ্রুপ ব্রিটিশদের অত্যন্ত পছন্দের বিষয়। প্রতিক্রিয়া বললেও ভুল নয়। বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের নিয়ে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডগুলো এরকম করেই থাকে। কিন্তু এবার শীতের বিলেতে নজর কাড়ছে 'বেবি ট্রাম্প'। আসলে এটা প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টের একটি ব্যঙ্গ প্রতিরূপ।

    ছয় মিটার উঁচু একটি বেলুন। হিলিয়াম গ্যাস ভরা বেলুনটিতে ট্রাম্পের আদলে ন্যাপি পরা কমলা রংয়ের দাঁত বের করা শিশু, হাতে ধরা স্মার্ট ফোন। আসলে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে এটা ব্রিটেনের প্রতিবাদের প্রতীক।


    তবে এই প্রথম নয়,এর আগেও ট্রাম্প যখন ব্রিটেনে এসেছিলেন তখন পার্লামেন্ট স্কোয়ারের আকাশে উড়তে দেখা গিয়েছিল এরকম বেলুন। আর্জেন্টিনা থেকে আয়ারল্যান্ড, ডেনমার্ক থেকে ফ্রান্স। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বার্তা নিয়ে বেলুন আকাশে উড়তে দেখা গিয়েছে আগেও।

    মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষের তরফে বলা হয়েছে এটা কৌতুকের ঢালাও ব্যবহার হিসেবে দেখা উচিত। শুধু ট্রাম্প নন, বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাদের নিয়ে আগেও ঠাট্টা করা হয়েছে। এটা সেরকমই একটি উদাহরণ। কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আঘাত করার উদ্দেশ্যে নয়। ছোট করাও লক্ষ্য নয়। মানুষকে মজা দেওয়াই আসল উদ্দেশ্য।তবে আপাতত বেলুনটি কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। সাজিয়ে রাখার আগে যে নিয়ম এখন বাধ্যতামূলক।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: