বিদেশ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

বড় ধাক্কা খেল চিন, নীতি বদলে ভারতের দিকে ঝুঁকল জার্মানি

বড় ধাক্কা খেল চিন, নীতি বদলে ভারতের দিকে ঝুঁকল জার্মানি
ভারতের সঙ্গে সহযোগিতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত জার্মানির৷ Photo-Reuters

এমনিতে এতদিন চিনের সঙ্গে জার্মানির সম্পর্ক যথেষ্ট ভালই ছিল৷ সম্প্রতি চিন সফরে এসেছিলেন জার্মান চান্সেলর অ্যাঞ্জেলো মার্কেল৷

  • Share this:

#বার্লিন: কূটনৈতিক ভাবে চিনকে বড় ধাক্কা দিয়ে ভারতের দিকেই ঝুঁকল জার্মানি৷ জার্মান সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আইনের শাসনকে আরও উৎসাহ দিতে এবার থেকে ভারত সহ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলের দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্কে উন্নতিতে জোর দেবে বার্লিন৷

চিনে মানবাধিকার রক্ষা হচ্ছে না বলে ইতিমধ্যেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপের একাধিক দেশ৷ তার উপরে যেভাবে অর্থনৈতিক ভাবে চিনের উপরে ইউরোপের দেশগুলিও নির্ভরশীল হয়ে পড়ছিল, তা নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়৷ বিগত প্রায় চার মাস ধরে ভারত-চিন সীমান্তে সংঘাতের পরিবেশ তৈরি হয়ে আছে৷ দু' তরফে সামরিক এবং কূটনৈতিক স্তরে একাধিক বৈঠকের পরেও কোনও সমাধান সূত্র বেরিয়ে আসেনি৷

সংবাদসংস্থা এএনআই-এর দাবি অনুযায়ী গত ২ সেপ্টেম্বর জার্মানির বিদেশমন্ত্রী বলেন, 'যে শক্তিশালী তার ইচ্ছে বা আইন অনুযায়ী নয়, আন্তর্জাতিক নিয়ম এবং সহযোগিতার ভিত্তিতে দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠুক৷ আমরা এটাই চাই৷ সেই কারণেই যে দেশগুলি আমাদের মতোই গণতান্ত্রিক এবং মুক্ত চিন্তাধারার মূল্যবোধে বিশ্বাস রাখে, আমরা তাদের সঙ্গে আরও গভীর সহযোগিতা বৃদ্ধির উপরে জোর দিয়েছি৷'

জানা গিয়েছে, ইন্দো প্যাসিফিক অঞ্চলের যে দেশগুলি আইনের শাসনে বিশ্বাস করে এবং মুক্ত বাজারের নীতিতে বিশ্বাসী, সেই দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্কে উন্নতির জন্য বিশেষ গাইডলাইন তৈরি করেছে জার্মানি৷

ভারত, অস্ট্রেলিয়া, জাপান এবং আসিয়ান গোষ্ঠীর সদস্য দেশগুলিও জার্মানির এই নীতিকে সমর্থন করেছে৷ এমনিতে এতদিন চিনের সঙ্গে জার্মানির সম্পর্ক যথেষ্ট ভালই ছিল৷ সম্প্রতি চিন সফরে এসেছিলেন জার্মান চান্সেলর অ্যাঞ্জেলো মার্কেল৷ এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে জার্মানির মোট বাণিজ্যের ৫০ শতাংশই চিন থেকে আসে৷ তবে এবার নীতিতে বদলের পর জার্মানি চিনকে নিয়ে কঠোর অবস্থান নেবে বলেই মনে করা হচ্ছে৷ চিনের স্বপ্নের বেল্ট অ্যান্ড রোড প্রকল্পের জন্য অংশীদার দেশগুলির উপরে যেভাবে ঋণের বোঝা বাড়ছে, তারও কঠোর সমালোচনা করতে চলেছে জার্মানি৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: September 14, 2020, 8:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर