Home /News /international /
Fact Check: হাতে অস্ত্র, যুদ্ধে নেমেছেন ইউক্রেনের সব থেকে সুন্দরী মহিলা! আসল সত্যিটা জেনে নিন

Fact Check: হাতে অস্ত্র, যুদ্ধে নেমেছেন ইউক্রেনের সব থেকে সুন্দরী মহিলা! আসল সত্যিটা জেনে নিন

Miss Ukraine Anastasia Lena Fact Check: ইউক্রেনের সব থেকে সুন্দর মহিলা কি সত্যিই বন্দুক হাতে তুলে নিয়েছিেলেন? জানুন আসল সত্যিটা!

  • Share this:

    #কিভ: রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ইতিমধ্যে ইউক্রেনের ৩৫২ জন্য সাধারণ নাগরিক প্রাণ হারিয়েছেন। সরকারি হিসেব বলছে, ১৬৮৪ জনের বেশি সাধারণ মানুষ আহত। তবে রাশিয়ার আগ্রাসনের সামনে বুক চিতিয়ে লড়ছে ইউক্রেনের সেনা। এরই মধ্যে দেশ রক্ষার জন্য অস্ত্র তুলে নিয়েছেন ইউক্রেনের অনেক সাধারণ মানুষ।

    যুদ্ধে পুরুষদের পাশাপাশি অনেক মহিলা ও সেলিব্রেটিও অবদান রাখছেন। এমনকী ইউক্রেনের মহিলা একজন সংসদ হাতে অস্ত্র তুলে নিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছিল। এদিকে, কিছুদিন আগে খবর ছড়িয়ে পড়েছিল ইউক্রেনের সবচেয়ে সুন্দরী মহিলা ও প্রাক্তন মিস ইউক্রেন হাতে বন্দুক তুলে নিয়েছেন। ২০১৫ সালে মিস ইউনিভার্স হয়েছিলেন তিনি। তবে আসল সত্যিটা কিন্তু অন্য।

    আরও পড়ুন- ইউরোপে হাজার হাজার কম্পিউটারে ইন্টারনেট বন্ধ, সাইবার হামলা ইউরোপে

    রাশিয়ার হামলার বিরুদ্ধে দেশকে রক্ষা করতে ইউক্রেনের সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন আনাস্তাসিয়া লেনা। খবর ছিল এমনই। সেই খবর ভাইরাল হতে সময় লাগেনি। তবে এবার লিনা নিজেই জানিয়েছেন, তার নামে যেটা রটেছিল সেটা সত্যি নয়। ২০১৫ মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল বিউটি কনটেস্টে ইউক্রেনের প্রতিনিধি ছিলেন তিনি। জিতেছিলেন খেতাব। ইউক্রেনে তিনি বেশ জনপ্রিয়। ইউক্রেনের মহিলাদের মনোবল বাড়াতে তিনি সব সময় কিছু না কিছু উদ্যোগ নিয়েই চলেছেন তবে লিনা জানিয়েছেন, তিনি যুদ্ধ পরিস্থিতে হাতে অস্ত্র তুলে নেননি।

    লিনা ইউক্রেনের সেনায় যোগ দিয়েছেন বলেও খবর রটেছিল। তবে সেই খবরও সত্যি নয় বলে জানিয়েছেন লিনা। ইনস্টাগ্রামে আনাস্তাসিয়ার ফলোয়ার ৭৫ হাজারের বেশি। তাই ইনস্টাগ্রামের প্ল্যাটফর্মেই সত্যিটা তুলে ধরলেন তিনি। জানালেন, দেশে যুদ্ধ পরিস্থিতি নিয়ে তিনি উদ্বিগ্ন। তবে অস্ত্র তুলে তিনি যুদ্ধে নামেননি। তিনি ইউক্রেনের আর পাঁচজন সাধারণ মানুষের মতোই যুদ্ধের ভয়াবহতা দেখে ভীত, সন্ত্রস্ত। তিনিও চাইছেন, জোট তাড়াতাড়ি সম্ভব এই রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ যেন শেষ হয়!

    আরও পড়ুন- তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ বাঁধলে পৃথিবী থেকে জীবের অস্তিত্ব নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে

    এদিন ইনস্টাগ্রামে লিনা লিখেছেন, "আমি ইউক্রেনের সেনায় যোগ দিইনি। আমি ইউক্রেনের একজন সাধারণ মানুষ। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে আমি কয়েকটা কথা বলতে বাধ্য হচ্ছি। আমি সেনাতে যোগ দিইনি। আমি একজন নারী, একজন সাধারণ মানুষ। শুধু একজন মানুষ, আমার দেশের সব মানুষের মতো। আমিও বছরের পর বছর ধরে একজন এয়ারসফট প্লেয়ার। #airsoft মানে কী সেটা জনাতে আপনি Google করতে পারেন (এয়ার সফট হল সামরিক বিভাগের আয়োজন করা বিভিন্ন স্পোর্ট। এই স্পোর্ট - এ অংশ নেওয়া প্রতিনিধি হাতে বন্দুক নিয়ে, সামরিক নিয়ম মেনে মক কমব্যাট করেন। একেবারে সেনার সাজে )। আমার প্রোফাইলের সমস্ত ছবি মানুষকে অনুপ্রাণিত করতে দেওয়া। লক্ষাধিক মানুষের মতো আমার স্বাভাবিক জীবন ছিল। আমাদের ইউক্রেনের মহিলাদের শক্তিশালী, আত্মবিশ্বাসী করা ছাড়া আমি কোনও প্রচার করি না। আমি আমার দেশের প্রতিটি পদক্ষেপের প্রশংসা করি। ইউক্রেনের সমস্ত মানুষ প্রতিদিন রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। আমরা জিতব। আমি কিয়েভে জন্মেছিলাম এবং এখানেই বসবাস করি। এই আমার শহর। ইউক্রেন আমার দেশ। ২৪ ফেব্রুয়ারী রাশিয়ান ফেডারেশন আমাদের জমিতে পা রেখে সাধারণ মানুষ, নারী, শিশুদের হত্যা শুরু করে। ইউক্রেনের জনগণের কোনো অপরাধ নেই। আমাদের কারো কোনও দোষ নেই। আমরা আমাদের জমিতে আছি। আমি পৃথিবীর সব মানুষের কথা বলি। ইউক্রেনে যুদ্ধ বন্ধ করুন! কোন মানুষকেই মেরে ফেলা উচিত নয়! আমরা একসাথে এই সব বন্ধ করতে পারি। পরিস্থিতি সম্পর্কে তথ্য শেয়ার করুন। @nato কে আকাশপথ বন্ধ করতে বলুন সবাইমিলে। রুশ আগ্রাসন বন্ধ করতে আমাদের ইউক্রেনীয় জনগণকে সাহায্য করুন।"

    Published by:Suman Majumder
    First published:

    Tags: Russia Ukraine Crisis, Russia Ukraine War, Ukraine crisis, Ukraine Russia War

    পরবর্তী খবর