Thai Pm Fined: মাস্ক না পরেই টিকা সংক্রান্ত বৈঠকে হাজির, ১৫ হাজার টাকা জরিমানা থাই প্রধানমন্ত্রীর!

Thai Pm Fined: মাস্ক না পরেই টিকা সংক্রান্ত বৈঠকে হাজির, ১৫ হাজার টাকা জরিমানা থাই প্রধানমন্ত্রীর!

মাস্ক না পরায় প্রধানমন্ত্রীরও জরিমানা!

এবার সেই জরিমানা থেকে বাদ পড়লেন না থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী (Thailand Prime Minister)। মাস্ক না পরার জন্য তাঁকেও দিতে হল জরিমানা।

  • Share this:

    #থাইল্যান্ড: করোনার দ্বিতীয় ঢেউ (Second Wave of Coronavirus) আছড়ে পড়েছে বিশ্বে। আর তাতে সবচেয়ে বিপর্যস্ত অবস্থা ভারতে (Corona in India)। এই পরিস্থিতিতে করোনা রুখতে মাস্ক পরাকেই সবথেকে জরুরি কাজ মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু তাতেও বহু মানুষের মাস্ক পরতে অনীহা। এমনকী রাজনীতিকদের অনেককেই মাস্ক ছাড়া দেখা যাচ্ছে। কিন্তু থাইল্যান্ডে মাস্ক নিয়ে বেজায় কড়াকড়ি। মাস্ক না পরলে সেখানে পড়তে হচ্ছে জরিমানার মুখে। এবার সেই জরিমানা থেকে বাদ পড়লেন না থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী (Thailand Prime Minister)। মাস্ক না পরার জন্য তাঁকেও দিতে হল জরিমানা।

    জানা গিয়েছে, টিকা (Vaccine) সংক্রান্ত একটি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী প্রয়ুথ চান-ও-চা’কে মাস্ক না পরেই দেখা গিয়েছিল। আর সেই অপরাধের কারণেই ৬ হাজার বাহত অর্থাৎ, ভারতীয় মূল্যে ১৪ হাজার ৭২০ টাকা জরিমানা দিতে হয়েছে তাঁকে। প্রসঙ্গত, রাজধানী ব্যাংকক-সহ ৪৮টি প্রদেশে সকলের জন্য মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে থাইল্যান্ডে।

    সোমবারই দেশের ভ্যাকসিন বণ্টন সংক্রান্ত একটি বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী। সেই বৈঠকের একটি ছবিও তিনি ফেসবুকে দেন। তাতেই দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী নিজে মাস্ক পরেননি। এরপরই বিতর্ক শুরু হয়। ফেসবুক থেকে ছবিটি সরিয়ে দিয়েও কোনও লাভ হয়নি। সেই ছবি প্রকাশের পরই তাঁকে জরিমানা করার কথা ঘোষণা করেন ব্যাংককের গভর্নর অশ্বিন ওয়ানমুয়াং। জনমানসে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিতেই জরিমানার সিদ্ধান্ত নেন গভর্নর।

    প্রসঙ্গত, এখনও পর্যন্ত থাইল্যান্ডে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ হাজার ৫০৮ জন। মারা গিয়েছেন ১৪৮ জন। তাই এই পরিস্থিতিতে দেশের প্রতিটি নাগরিকের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এই নিয়ম ভাঙলে সর্বোচ্চ ২০ হাজার বাহত জরিমানার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। তবে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষেত্রে জরিমানা ধার্য্য হয়েছে ৬ হাজার বাহত। তিনিই দেশের প্রথম ব্যক্তি যাঁকে মাস্ক না পরার অপরাধে জরিমানা দিতে হল।

    Published by:Suman Biswas
    First published:
    0