চাঁদের বুক খুঁড়ে তুলে আনা নুড়ি ও মাটির প্রদর্শন এই মাসেই, জানিয়ে দিল চিন!

চাঁদের বুক খুঁড়ে তুলে আনা নুড়ি ও মাটির প্রদর্শন এই মাসেই, জানিয়ে দিল চিন!

first youngest moon samples by chinas change 5 mission to be displayed from march

চাঁদের বুক থেকে সংগ্রহ করে আনা নুড়ি ও মাটি চলতি মার্চে প্রদর্শন করা হবে বলে জানিয়ে দিল চিন। চাঁদের বুক থেকে নমুনা সংগ্রহ করে গত ডিসেম্বরেই মাটিতে ফিরে এসেছিল চিনের মহাকাশযান চ্যাং'ই ৫ (Chang'e 5)।

  • Share this:

#বেজিং: চাঁদের বুক থেকে সংগ্রহ করে আনা নুড়ি ও মাটি চলতি মার্চে প্রদর্শন করা হবে বলে জানিয়ে দিল চিন। চাঁদের বুক থেকে নমুনা সংগ্রহ করে গত ডিসেম্বরেই মাটিতে ফিরে এসেছিল চিনের মহাকাশযান চ্যাং'ই ৫ (Chang'e 5)। সেই ছবি ইতিমধ্যেই বিশ্বের দরবারে প্রকাশ করে ভারত তো বটেই, আমেরিকা, রাশিয়ার মতো দেশগুলিকেও টেক্কা দিয়েছে বেজিং। চাঁদের বুক থেকে তুলে নিয়ে আসা নমুনা নতুন মহাকাশ বিজ্ঞানে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে বলে চিনের দাবি।

গত ডিসেম্বরে চাঁদের মাটি স্পর্শ করেছিল চিনের মহাকাশ যান চ্যাং'ই ৫। কোনও মানুষ ছাড়া রোবটচালিত ওই প্রচেষ্টার মূল উদ্দেশ্য ছিল, চাঁদের বুক থেকে নুড়ি এবং মাটি সংগ্রহ করে আনা। যা এ অবধি বিশ্বের অন্য কোনও দেশ করে দেখাতে পারেনি। প্রথম দেশের প্রতিনিধি হিসেবে চাঁদের মাটিতে পা রেখেছিলেন আমেরিকার মহাকাশচারীরা। এর পর রাশিয়ারও একাধিকবার চাঁদে মানুষ পাঠিয়েছে। সেখানে দুই দেশের পতাকার স্থির দণ্ডায়মান অবস্থার দৃশ্য ভাইরাল হলেও কেউই চাঁদ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আনতে পারেনি। তবে চিন দুই কাজই একসঙ্গে করে বিশ্বকে তাক লাগিয়েছে বলা চলে।

চাঁদের মাটিতে নিজেদের পতাকা পুঁতে এসেছে চিন। একই সঙ্গে পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ থেকে নুড়ি এবং মাটি সংগ্রহ করে ধরায় ফিরেছে চ্যাং'ই ৫। চাঁদের বুক থেকে ১.৭৩১ কিলোগ্রাম নমুনা ব্যাগে ভরে গত ডিসেম্বরেই পৃথিবীতে ফিরেছিল চিনের মহাকাশযান। সেই দৃশ্য ঝড়ের গতিতে নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। চাঁদের মাটিতে মহাকাশযানের অবতরণ থেকে উত্তরণ, সবটাই লাইভ টেলিকাস্ট করেছিল বেজিং। যা বিশ্বের অন্যান্য উন্নত দেশগুলির কাছে যে খুব একটা সুখকর নয়, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এই সাফল্যের জন্য গত ২২ ফেব্রুয়ারি বেজিংয়ের গ্রেট ওয়াল অফ পিপলে, চন্দ্রাভিযানের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা বিজ্ঞানী, গবেষকদের নিজে হাতে সংবর্ধিত করেন চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিংপিং (Xi Jinping)। তার পরেই জানিয়ে দেওয়া হয় যে চাঁদের বুক থেকে তুলে আনা নুড়ি ও মাটির সংরক্ষণ প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। চলছে গবেষণা। তারই মধ্যে এবার মার্চ থেকে সেটি সকলের দেখার জন্য প্রকাশ্যে আনা হবে বলে জানিয়েছে বেজিং। চিনের ন্যাশনাল মিউজিয়ামে চাঁদের মাটি ও নুড়ি রাখা থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

First published:

লেটেস্ট খবর