Chinese New Year 2021: রাত পোহালেই চিনা নতুন বছর, আপনার জন্যও কী মঙ্গলবার্তা নিয়ে আসছে? জানুন

Chinese New Year 2021: রাত পোহালেই চিনা নতুন বছর, আপনার জন্যও কী মঙ্গলবার্তা নিয়ে আসছে? জানুন
আজ, ১১ ফেব্রুয়ারি, সন্ধেতে নিউ ইয়ার ইভ দিয়ে সূচনা হচ্ছে চাইনিজ নিউ ইয়ার অনুষ্ঠানের। আগামীকাল অর্থাৎ ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১-এর নতুন বছর শুরু হবে। অনুষ্ঠান শেষ হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি।

আজ, ১১ ফেব্রুয়ারি, সন্ধেতে নিউ ইয়ার ইভ দিয়ে সূচনা হচ্ছে চাইনিজ নিউ ইয়ার অনুষ্ঠানের। আগামীকাল অর্থাৎ ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১-এর নতুন বছর শুরু হবে। অনুষ্ঠান শেষ হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি।

  • Share this:

#বেজিং: প্রায় এক বছর আগে এমন সময়ে হঠাৎই লকডাউন জারি হয় চিনে। সংক্রমণ ঠেকাতে একের পর এক বন্ধ হয় সরকারি দফতর থেকে দোকান-বাজার। তখন ভারতে বা বিশ্বের অন্য কোনও প্রান্ত সংক্রমণের আঁচ সে ভাবে না পেলেও চিন কিন্তু লড়াইয়ে নেমে পড়েছে। গত বছর তাই কোনও ভাবেই নতুন বছর উদযাপন করতে পারেনি তারা। কিন্তু প্রায় এক বছর পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে পরিস্থিতি। পার্ক বা জিমও কিছুটা খুলে গিয়েছে। দোকান-বাজারও মোটামুটি খুলে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে রাত পেরোলেই নতুন বছর পালন করতে চলেছে চিন। আজ সন্ধে থেকে শুরু হচ্ছে উদযাপন।

সাধারণত বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষ যে ১ জানুয়ারিতে নতুন বছর উদযাপন করে, চিন তা করে না। চিনে নতুন বছর শুরু হয় ফেব্রুয়ারিতে। একটু ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে, আগে চিন গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার মানত না। কিন্তু ১৯১১ সাল থেকে তা মানতে শুরু করে। তার পরই চিনের নতুন বছরের নাম পরিবর্তন হয়। তারা এই উৎসবকে স্প্রিং ফেসটিভ্যালও বলে থাকে।

চিনের ক্যালেন্ডার ১২ বছরের হয়। যা তৈরি হয় চিনা রাশির উপরে নির্ভর করে। প্রতি বারে একটা করে রাশি বছরের আধিপত্যে থাকে। নতুন বছর উদযাপন হয় এই দেশে ১৬ দিন ধরে। শুরু হয় নিউ ইয়ার ইভ দিয়ে আর শেষ হয় ল্যান্টার্ন ফেস্টিভ্যাল দিয়ে।


এই বছর কবে পড়ছে চিনের নতুন বছর?

আজ, ১১ ফেব্রুয়ারি, সন্ধেতে নিউ ইয়ার ইভ দিয়ে সূচনা হচ্ছে চাইনিজ নিউ ইয়ার অনুষ্ঠানের। আগামীকাল অর্থাৎ ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১-এর নতুন বছর শুরু হবে। অনুষ্ঠান শেষ হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি।

এরই সঙ্গে বলে রাখা ভাল, আগামী বছর নতুন বছর কিন্তু পড়েছে ফেব্রুয়ারির ১ তারিখে।

এই ১৬ দিন চিনে বেশিরভাগ সরকারি ও বেসরকারি সংগঠন বন্ধ থাকে। ছুটি মেলে চিনে থাকা অন্যান্য দেশের লোকজনেরও। ছুটি থাকে অসরকারি সংস্থারও। এই উৎসব উপলক্ষ্যে একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ঢেলে সাজানো হয় রাস্তা-ঘাট।

প্রতি বছর কোনও না কোনও চিনা রাশির দিক থেকে নতুন বছরের শুভাশুভের গণনা করা হয়। একটি করে পশু একটি করে রাশির প্রতীক হিসেবে জায়গা নেয়। জন্মসাল অনুসারে ঠিক করা হয় যে কে কোন পশুর অধীনে রয়েছেন! আসন্ন বছরের আধিপত্যে রয়েছে ষাঁড়। এছাড়াও ইঁদুর, ড্র্যাগন, সাপ, ঘোড়া, বাঘ, খরগোশ, ভেড়া, মোরগ, হনুমান, কুকুর ও শূকর থাকে এই তালিকায়।

চিনা রাশিফল অনুযায়ী যাঁরা ১৯৬১, ১৯৭৩, ১৯৮৫, ১৯৯৭, ২০০৯, ২০২১ সালে জন্মেছেন, তাঁদের জন্য এই আসন্ন নতুন বছর মঙ্গলময় হবে। এই সবকটা বছরেরই অধিপতি ষাঁড়!

Published by:Pooja Basu
First published: